December 7, 2021, 8:45 pm
Title :
গোয়ালন্দে চার ভিক্ষুককে পুনর্বাসনে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান গোয়ালন্দে পালানোর সময় জনতার হাতে মোটরসাইকেলসহ চোর আটক পাঁচুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাতিজাকে অপহরন, ৯৯৯-এ নম্বরে ফোন করে উদ্ধার ঘূূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবঃ বৃষ্টিতে গোয়ালন্দে জনজীবন বিপর্যস্ত পাংশার দশ ইউপিতে নৌকা পেলেন যারা রাজবাড়ীতে বোমাসহ নৌকা প্রার্থীর ছেলেসহ আটক দুই রাজবাড়ীতে মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে তরুণ গ্রেপ্তার রাজবাড়ীতে ইলিশ সম্পদ উন্নয়নের লক্ষে অবহিতকরণ কর্মশালা গোয়ালন্দে দরিদ্র পরিবারের ঘরে জমজ তিন সন্তান “ঘর জুড়ে আলো, মন জুড়ে আধার” গোয়ালন্দে হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নির্মল সভাপতি ও কোমল সম্পাদক

মা ইলিশ রক্ষায় অভিযানে ৭ জেলে আটক, ৪০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, অক্টোবর ৯, ২০২১
  • 91 Time View
শেয়ার করুনঃ

ষ্টাফ রিপোর্টার, গোয়ালন্দঃ “ডিমওয়ালা ইলিশ ধরব না দেশের ক্ষতি করব না” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে পদ্মা নদীতে অভিযান শনিবার অভিযান চালানো হয়। মা ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে (৪ অক্টোবর হতে ২৫ অক্টোবর) পর্যন্ত ইলিশ আহরন হতে বিরত থাকার জন্য মৎস্য বিষয়ক আইন বাস্তবায়ন ও সংরক্ষণের জন্য ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে।

শনিবার (৯ অক্টোবর) দুপুরের পর থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ও দেবগ্রাম অঞ্চলে পদ্মা নদীতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানের নেতৃত্ব দেন উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রফিকুল ইসলাম। এ সময় কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে দেবগ্রামের অন্তারমোড় এলাকা থেকে ৪০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ, ৫ কেজি জাটকা ইলিশ মাছ এবং ৭ জেলেকে আটক করা হয়।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. রেজাউল শরিফ জনান, মা ইলিশ সংরক্ষণের জন্য মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এ সময় ৭ জন জেলের কাছ থেকে ৪০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মো. রফিকুল ইসলাম জানান, মা ইলিশ রক্ষা ও সংরক্ষণ আইন-৬০ এর ১৮৮ ধারা মোতাবেক অপরাধ করায় ৭ জেলের কাছ থেকে ৪০ হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে। পরে ৭ জেলেকে ১৮ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। রাতেই জব্দকৃত জাল আগুনে পুড়িয়ে ভস্মিভুত করা হয়। এছাড়া জব্দকৃত ৫ কেজি জাটকা ইলিশ স্থানীয় একটি মাদ্রাসার লিল্লাহ বোর্ডিংয়ে দেওয়া হয়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. রেজাউল শরিফ, নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক সৈয়দ মো. জাকির হোসেন ও উপপরিদর্শক (এস.আই) নাজমুজ্জামান সহ সঙ্গীয় ফোর্স।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102