১১:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ী‌তে হে‌ভি‌য়েট দুই প্রার্থী ইমদাদ বিশ্বাস ও নুরে আলম সিদ্দিকী সহ ৫ স্বতন্ত্র প্রার্থীর ম‌নোনয়ন পত্র বা‌তিল

ইমরান হোসেন মনিম, রাজবাড়ীঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোয়ন পত্র যাচাই বাছাই’য়ের দিনে রাজবাড়ী‌তে দুটি আসনে হে‌ভি‌য়েট দুই সতন্ত্র প্রার্থীসহ ৭ জ‌নের ম‌নোনয়ন বা‌তিল করা হয়েছে। রাজবাড়ী-১ আস‌নে সদ্য পদত্যাগকৃত চারবারের উপ‌জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. ইমদাদুল হক বিশ্বাস সহ ৪ সতন্ত্র প্রার্থী এবং রাজবাড়ী-২ আস‌নে কেন্দ্রীয় আওয়ামী কৃষকলীগের সাংগঠ‌নিক সম্পাদক সতন্ত্র প্রার্থী নূরে আলম সি‌দ্দিকী হক সহ ৩ জ‌নের ম‌নোনয়ন বা‌তিল ক‌রা হ‌য়ে‌ছে।

সোমবার (৪ ডিসেম্বর) রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক ও জেলা রির্টা‌নিং অ‌ফিসার আবু কায়সার খান ম‌নোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শে‌ষে তাদের তথ্যে গড়মিল থাকায় মনোনয়ন আাতিল বলে ঘোষনা দেন।

এ সময় রাজবাড়ী-১ (রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ) আস‌নে সতন্ত্র চারজন প্রার্থীর মধ্যে সদ‌্য পদত‌্যাগকৃত উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান এ‌্যাডঃ ইমদাদুল হক বিশ্বাস, সা‌বেক মুলঘর ইউপি চেয়ারম‌্যান আব্দুল মান্নান মুসুল্লী, স্বপন কুমার সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপ‌তি আকবর আলী ম‌র্জির ছে‌লে আশিশ আকবর সু‌বির এর ম‌নোনয়নপ‌ত্রে ১ শতাংশ ভোটা‌রের ত‌থ্যে গড়‌মিল থাকায় তা‌দের ম‌নোনয়নপত্র বা‌তিল করা হয়।

অপর‌দি‌কে রাজবাড়ী-২ (পাংশা, বা‌লিয়াকা‌ন্দি ও কালুখালী) সতন্ত্র প্রার্থী সহ তিন জনের মনোনয়ম পত্র বাতিল করা হয়। এ তালিকায় হেভিওয়েট প্রার্থী কেন্দ্রীয় কৃষক লী‌গের সাংগঠ‌নিক সম্পাদক নূ‌রে আলম সি‌দ্দিকী হকের ম‌নোনয়নপত্রে ১ শতাংশ ভোটা‌রের ত‌থ্যে গড়‌মিল ও ঋণ খেলা‌পি থাকায় তৃণমূল বিএন‌পির এসএম ফজলুল হক ও মু‌ক্তি‌জো‌টের প্রার্থী মোঃ আব্দুল মা‌লেক মন্ডলের ম‌নোনয়নপত্র বা‌তিল করা হয়।

এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক বিশ্বাস বলেন, নির্বাচনে আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেছি। আমার প্রয়োজনীয় সকল কাগজ পত্র সঠিক ভাবে পূরন করে দাখিল করা হয়।কিন্তু যে অযুহাতে আজ আমার মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছে জেলা রিটার্নিং অফিসার তা সম্পূর্ণ অবৈধ ও বে-আইনী ভাবে বাতিল করেছে। তবে আমি নির্বাচন কমিশনে আবেদন করব এবং নির্বাচন কমিশন আমার প্রার্থীতা বৈধতা দেবে বলে মনে করেন। রাজবাড়ী-২ আসনের মনোনয়ন বাতিল হওয়া আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, আমি সহ রাজবাড়ী-১ ও ২ আসনের সব সতন্ত্র প্রার্থীদের মনোনয়ন বাতিল করেছে। আমি আইনগত ভাবে প্রার্থীতা ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে আপিল আবেদন করবো।

আব্দুল মান্নান মুসল্লী বলেন, তথ্যে গড়মিলর কারনে আমার মনোনয়ম বাতিল করা হয়েছে যা সম্পূর্ণ অবৈধ। আমি নির্বাচন কমিশনে আপিল করব। তারপরও যদি আমার মনেনয়ন বাতিল করা হয় তাহলে আমি উচ্চ আদালতে আবেদন করে আমার প্রার্থীতা ফিরে পাব বলে আশা করি। স্বতন্ত্র প্রার্থী স্বপন কুমার সরকার বলেন, যে আইনে ভোটারদের ১ শতাংশ ভোটারদের তথ্যের গড়মিল দেখিয়ে আমার প্রার্থীতা বাতিল বলে ঘোষনা দিয়েছেন, এটা রিটার্নিং অফিসারের অর্ডার, এটা কোন এ্যাবসলিউট অর্ডার নয়। তাই আমরা নির্বাচন কমিশনে আপিল আবেদন করবো, সেখানেও না হলে আমি উচ্চ আদালতে আবেদন করবো প্রার্থীতা ফিরে পাবার জন্য।

জেলা প্রশাসক ও রির্টা‌নিং অ‌ফিসার আবু কায়সার খান ব‌লেন, যাচাই-বাছাইয়ে বাতিলকৃত প্রার্থীরা নি‌র্দিষ্ট সম‌য়ের ম‌ধ্যে নির্বাচন কমিশন প্রার্থীতা ফিরে পেতে  নির্বাচন কমিশন বরাবর আপিল কর‌তে প‌ার‌বে।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

রাজবাড়ী‌তে হে‌ভি‌য়েট দুই প্রার্থী ইমদাদ বিশ্বাস ও নুরে আলম সিদ্দিকী সহ ৫ স্বতন্ত্র প্রার্থীর ম‌নোনয়ন পত্র বা‌তিল

পোস্ট হয়েছেঃ ১০:৪৯:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩

ইমরান হোসেন মনিম, রাজবাড়ীঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোয়ন পত্র যাচাই বাছাই’য়ের দিনে রাজবাড়ী‌তে দুটি আসনে হে‌ভি‌য়েট দুই সতন্ত্র প্রার্থীসহ ৭ জ‌নের ম‌নোনয়ন বা‌তিল করা হয়েছে। রাজবাড়ী-১ আস‌নে সদ্য পদত্যাগকৃত চারবারের উপ‌জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. ইমদাদুল হক বিশ্বাস সহ ৪ সতন্ত্র প্রার্থী এবং রাজবাড়ী-২ আস‌নে কেন্দ্রীয় আওয়ামী কৃষকলীগের সাংগঠ‌নিক সম্পাদক সতন্ত্র প্রার্থী নূরে আলম সি‌দ্দিকী হক সহ ৩ জ‌নের ম‌নোনয়ন বা‌তিল ক‌রা হ‌য়ে‌ছে।

সোমবার (৪ ডিসেম্বর) রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক ও জেলা রির্টা‌নিং অ‌ফিসার আবু কায়সার খান ম‌নোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শে‌ষে তাদের তথ্যে গড়মিল থাকায় মনোনয়ন আাতিল বলে ঘোষনা দেন।

এ সময় রাজবাড়ী-১ (রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ) আস‌নে সতন্ত্র চারজন প্রার্থীর মধ্যে সদ‌্য পদত‌্যাগকৃত উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান এ‌্যাডঃ ইমদাদুল হক বিশ্বাস, সা‌বেক মুলঘর ইউপি চেয়ারম‌্যান আব্দুল মান্নান মুসুল্লী, স্বপন কুমার সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপ‌তি আকবর আলী ম‌র্জির ছে‌লে আশিশ আকবর সু‌বির এর ম‌নোনয়নপ‌ত্রে ১ শতাংশ ভোটা‌রের ত‌থ্যে গড়‌মিল থাকায় তা‌দের ম‌নোনয়নপত্র বা‌তিল করা হয়।

অপর‌দি‌কে রাজবাড়ী-২ (পাংশা, বা‌লিয়াকা‌ন্দি ও কালুখালী) সতন্ত্র প্রার্থী সহ তিন জনের মনোনয়ম পত্র বাতিল করা হয়। এ তালিকায় হেভিওয়েট প্রার্থী কেন্দ্রীয় কৃষক লী‌গের সাংগঠ‌নিক সম্পাদক নূ‌রে আলম সি‌দ্দিকী হকের ম‌নোনয়নপত্রে ১ শতাংশ ভোটা‌রের ত‌থ্যে গড়‌মিল ও ঋণ খেলা‌পি থাকায় তৃণমূল বিএন‌পির এসএম ফজলুল হক ও মু‌ক্তি‌জো‌টের প্রার্থী মোঃ আব্দুল মা‌লেক মন্ডলের ম‌নোনয়নপত্র বা‌তিল করা হয়।

এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক বিশ্বাস বলেন, নির্বাচনে আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেছি। আমার প্রয়োজনীয় সকল কাগজ পত্র সঠিক ভাবে পূরন করে দাখিল করা হয়।কিন্তু যে অযুহাতে আজ আমার মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছে জেলা রিটার্নিং অফিসার তা সম্পূর্ণ অবৈধ ও বে-আইনী ভাবে বাতিল করেছে। তবে আমি নির্বাচন কমিশনে আবেদন করব এবং নির্বাচন কমিশন আমার প্রার্থীতা বৈধতা দেবে বলে মনে করেন। রাজবাড়ী-২ আসনের মনোনয়ন বাতিল হওয়া আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, আমি সহ রাজবাড়ী-১ ও ২ আসনের সব সতন্ত্র প্রার্থীদের মনোনয়ন বাতিল করেছে। আমি আইনগত ভাবে প্রার্থীতা ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে আপিল আবেদন করবো।

আব্দুল মান্নান মুসল্লী বলেন, তথ্যে গড়মিলর কারনে আমার মনোনয়ম বাতিল করা হয়েছে যা সম্পূর্ণ অবৈধ। আমি নির্বাচন কমিশনে আপিল করব। তারপরও যদি আমার মনেনয়ন বাতিল করা হয় তাহলে আমি উচ্চ আদালতে আবেদন করে আমার প্রার্থীতা ফিরে পাব বলে আশা করি। স্বতন্ত্র প্রার্থী স্বপন কুমার সরকার বলেন, যে আইনে ভোটারদের ১ শতাংশ ভোটারদের তথ্যের গড়মিল দেখিয়ে আমার প্রার্থীতা বাতিল বলে ঘোষনা দিয়েছেন, এটা রিটার্নিং অফিসারের অর্ডার, এটা কোন এ্যাবসলিউট অর্ডার নয়। তাই আমরা নির্বাচন কমিশনে আপিল আবেদন করবো, সেখানেও না হলে আমি উচ্চ আদালতে আবেদন করবো প্রার্থীতা ফিরে পাবার জন্য।

জেলা প্রশাসক ও রির্টা‌নিং অ‌ফিসার আবু কায়সার খান ব‌লেন, যাচাই-বাছাইয়ে বাতিলকৃত প্রার্থীরা নি‌র্দিষ্ট সম‌য়ের ম‌ধ্যে নির্বাচন কমিশন প্রার্থীতা ফিরে পেতে  নির্বাচন কমিশন বরাবর আপিল কর‌তে প‌ার‌বে।