০৯:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে দেশের সবচেয়ে বড় রেলওয়ে কারখানা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে – রেলপথ মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীতে বাংলাদেশের সবচেয়ে বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানা হবে। ১০৫ একর জমি নিয়ে এই কারখানা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। রাজবাড়ী এক সময় রেলওয়ে শহর হিসেবে পরিচিত ছিল। এখানে দ্বিতীয় তলা বিশিষ্ট ষ্টেশন নির্মাণসহ রাজবাড়ীকে রেলওয়ে শহরে পরিণত করা হবে। আজ রোববার আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে কথাগুলো বলেন রেলপথ মন্ত্রী মো. জিল্লুল হাকিম এমপি।

সংগ্রাম, উন্নয়ন ও অর্জনে গৌরবদীপ্ত পথচলার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন উপলক্ষে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বেলা ১১টায় জাতীয় সঙ্গীতের সাথে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তেলনের পর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অপর্ন করেন নেতৃবৃন্দ। পরে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। আলোচনা সভা শেষে দলীয় কার্যালয় থেকে শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

জেলা আ.লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এ্যাড. শফিকুল হোসেন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য, সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী, জেলা আ.লীগের সহসভাপতি ও সাবেক সংরক্ষিত সাংসদ সালমা চৌধুরী রুমা, জেলা আ.লীগের সহসভাপতি ও পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল মোরশেদ আরজ, সহসভাপতি ও জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ফকীর আব্দুল জব্বার, সহসভাপতি রাজবাড়ী পৌরসভার সাবেক মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, সহসভাপতি হেদায়েত আলী সোহরাব, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শেখ সোহেল রানা টিপু, রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র আলমগীর শেখ তিতু প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আ.লীগের সভাপতি, রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য রেলপথ মন্ত্রী জিল্লুল হাকিম বলেন, রাজবাড়ীতে আরেকটা স্পেশাল ট্রেন দেয়া হয়েছে। যেটা রাজবাড়ী থেকে ভাঙ্গা হয়ে ঢাকা যাবে। এই ট্রেনটি ফরিদপুরে ষ্টপিজ দিবে। বিভিন্ন জায়গা থেকে ট্রেন এখানে আসতো। আমরা চেষ্টা করছি রাজবাড়ীকে একটা রেলওয়ে ডিভিশন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা। রেলওয়ে ডিভিশন এটা অনেক বড় ব্যাপার। রাজবাড়ী ডিভিশন হলে এখানে অনেক মানুষের কর্মস্থান হবে। অন্তত ৫ হাজার মানুষ চাকুরী পাবে।

রেলপথ মন্ত্রী বলেন, রেলওয়ে ষ্টেশন হিসেবে এখানে একটা দ্বিতল ভবন হবে। ইতিমধ্যে এটার টেন্ডার হয়ে গেছে। আমরা চাচ্ছি রাজবাড়ীকে একটা রেলের শহর হিসেবে আবার প্রতিষ্ঠা করবার জন্য। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অনেক পরিবর্তন হয়েছে। যেখানে রেল বন্ধ করে দেয়ার মতো অবস্থা হয়েছিল। আজ ঈদ যাত্রায় রেল হচ্ছে সবচেয়ে নিরাপদ যানবাহন। অনেক পরিবর্তন হয়েছে। ঈদের সময় মানুষজন নিরাপদে বাড়ি যেতে পারছে।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সোহেল ও সম্পাদক কামরুল পুনরায় নির্বাচিত

রাজবাড়ীতে দেশের সবচেয়ে বড় রেলওয়ে কারখানা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে – রেলপথ মন্ত্রী

পোস্ট হয়েছেঃ ০৭:১৩:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীতে বাংলাদেশের সবচেয়ে বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানা হবে। ১০৫ একর জমি নিয়ে এই কারখানা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। রাজবাড়ী এক সময় রেলওয়ে শহর হিসেবে পরিচিত ছিল। এখানে দ্বিতীয় তলা বিশিষ্ট ষ্টেশন নির্মাণসহ রাজবাড়ীকে রেলওয়ে শহরে পরিণত করা হবে। আজ রোববার আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে কথাগুলো বলেন রেলপথ মন্ত্রী মো. জিল্লুল হাকিম এমপি।

সংগ্রাম, উন্নয়ন ও অর্জনে গৌরবদীপ্ত পথচলার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন উপলক্ষে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বেলা ১১টায় জাতীয় সঙ্গীতের সাথে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তেলনের পর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অপর্ন করেন নেতৃবৃন্দ। পরে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। আলোচনা সভা শেষে দলীয় কার্যালয় থেকে শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

জেলা আ.লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এ্যাড. শফিকুল হোসেন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য, সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী, জেলা আ.লীগের সহসভাপতি ও সাবেক সংরক্ষিত সাংসদ সালমা চৌধুরী রুমা, জেলা আ.লীগের সহসভাপতি ও পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল মোরশেদ আরজ, সহসভাপতি ও জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ফকীর আব্দুল জব্বার, সহসভাপতি রাজবাড়ী পৌরসভার সাবেক মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, সহসভাপতি হেদায়েত আলী সোহরাব, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শেখ সোহেল রানা টিপু, রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র আলমগীর শেখ তিতু প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আ.লীগের সভাপতি, রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য রেলপথ মন্ত্রী জিল্লুল হাকিম বলেন, রাজবাড়ীতে আরেকটা স্পেশাল ট্রেন দেয়া হয়েছে। যেটা রাজবাড়ী থেকে ভাঙ্গা হয়ে ঢাকা যাবে। এই ট্রেনটি ফরিদপুরে ষ্টপিজ দিবে। বিভিন্ন জায়গা থেকে ট্রেন এখানে আসতো। আমরা চেষ্টা করছি রাজবাড়ীকে একটা রেলওয়ে ডিভিশন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা। রেলওয়ে ডিভিশন এটা অনেক বড় ব্যাপার। রাজবাড়ী ডিভিশন হলে এখানে অনেক মানুষের কর্মস্থান হবে। অন্তত ৫ হাজার মানুষ চাকুরী পাবে।

রেলপথ মন্ত্রী বলেন, রেলওয়ে ষ্টেশন হিসেবে এখানে একটা দ্বিতল ভবন হবে। ইতিমধ্যে এটার টেন্ডার হয়ে গেছে। আমরা চাচ্ছি রাজবাড়ীকে একটা রেলের শহর হিসেবে আবার প্রতিষ্ঠা করবার জন্য। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অনেক পরিবর্তন হয়েছে। যেখানে রেল বন্ধ করে দেয়ার মতো অবস্থা হয়েছিল। আজ ঈদ যাত্রায় রেল হচ্ছে সবচেয়ে নিরাপদ যানবাহন। অনেক পরিবর্তন হয়েছে। ঈদের সময় মানুষজন নিরাপদে বাড়ি যেতে পারছে।