May 18, 2022, 3:36 pm
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ তিন ফেরি বিকল, ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির চাপ গোয়ালন্দে হেরোইনসহ তরুণ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল রাজবাড়ীতে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রনে সচেতনতামূলক সভা রাজবাড়ীর পুলিশ পরিদর্শক অধীর চন্দ্র রায়ের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা রাজবাড়ীতে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও লোকসানে চাষিরা রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ গোয়ালন্দে জমি নিয়ে সংঘর্ষে কৃষক নিহত, মামলা দায়ের, গ্রেপ্তার ২ দৌলতদিয়ায় বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ৪টি দোকানে জরিমানা গোয়ালন্দে হেরোইনসহ যুবক গ্রেপ্তার

ইলিশ ধরতে গিয়ে পেলেন ১৫ কেজির পাঙ্গাশ , ২০ হাজার টাকায় বিক্রি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, অক্টোবর ১১, ২০২১
  • 119 Time View
শেয়ার করুনঃ

ফিরোজ আহম্মেদ, গোয়ালন্দঃ পদ্মা নদীতে বর্তমানে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানের অংশ হিসেবে মাছ ধরা নিষেধ রয়েছে। কিন্তু কিছু জেলে সুযোগ পেলেই নেমে পড়ছে নদীতে। সোমবার এমন এক জেলে নদীতে চুরি করে মাছ শিকারে বের হয়ে শিকার করেন একটি বড় পাঙ্ড়াশ মাছ।প্রায় ১৫কেজি ওজনের ওই পাঙ্গাশ মাছটি ২০ হাজার ২৫০ টাকায় বিক্রি করেন তিনি।

মৎস্যজীবিরা জানান, সোমবার (১১ অক্টোবর) বেলা ১১ টার দিকে রাজবাড়ী সদর উপজেলার পদ্মা নদীর ঢালারচর নামক এলাকা থেকে স্থানীয় জেলে আব্দুর রহমান হালদারের জালে পাঙ্গাশ মাছটি ধরা পড়ে। জেলে আব্দুর রহমান হালদার মাছটি বিক্রির জন্য বোবাইল ফোনের মাধ্যমে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার মৎস্যব্যবসায়ীদের সাথে যোগাযোগ করেন। পরে দুপুর ১২ টার দিকে দৌলতদিয়ার ৫নং ফেরি ঘাটে অবস্থিত চাঁদনি এন্ড আরিফা মৎস্য আড়তে নিয়ে আসেন। পরে মো. চাঁন্দু মোল্লা মাছটি ১ হাজার ৩৫০ টাকা কেজি দরে মোট ২০ হাজার ২৫০ টাকা দিয়ে মাছটি কিনে নেন। বর্তমানে মাছটি ফেরি ঘাটে রাখা হয়েছে।

মৎস্য ব্যবসায়ী মো. চাঁন্দু মোল্লা বলেন, বর্তমানে নদীতে মাছ ধরা নিষেধ না নামা নিষেধ থাকায় আড়ত ঘর বন্ধ করে বাড়িতেই বসে সময় পার করছি।মাছটি জেলে আব্দুর রহমান পাওয়ার পর মুঠোফোনে যোগাযোগ করেন। পরে তাকে মাছটি নিয়ে ঘাটে আসতে বললে তিনি চলে আসেন। এসময় তার সাথে দরদাম করেই সরাসরি জেলের কাছ থেকেই পাঙ্গাশটি কিনে নিয়েছি। পরবর্তীতে মোবাইলের মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করে কেজি প্রতি ১০০ করে লাভে অর্থাৎ ১হাজার ৪৫০ টাকা কেজি দর পেলেই বিক্রি করে দেওয়া হবে বিলে তিনি জানান। বিকেল পর্যন্ত মাছটি বিক্রির জন্য বিভিন্ন পরিচিত জনদের সাথে তিনি যোগাযোগ করছেন।

জেলে আব্দুর রহমান হালদার বলেন, নিষেধাজ্ঞা সত্তেও আমরা সোমবার সকালে লুকিয়ে লুকিয়ে নদীতে মাছ ধরতে যাই। রাজবাড়ীর সীমান্তবর্তী ঢালার চরের কাছে নদীতে জাল ফেলে লুকিয়ে ছিলাম। এসময় ইলিশের দেখা না মিললেও বেলা ১১ টার দিকে জাল তুলতেই দেখি বড় একটি পাঙ্গাশ মাছ আটকা পড়েছে। এসংসার চালাতে খুব হিমশিম খাচ্ছিলাম তাই ঝুকি নিয়েই নদীতে নেমেছিলাম। এখন নদীতে মাছ ধরা নিষেধ তারপরও কোন উপায় না পেয়ে নদীতে নেমেছিলাম। অনেকদিন পর অনেক বড় একটি মাছ পেয়ে অনেক ভালো লাগছে। মাছটির ভালো দামও পেয়েছে বলে জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102