December 7, 2021, 8:46 pm
Title :
গোয়ালন্দে চার ভিক্ষুককে পুনর্বাসনে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান গোয়ালন্দে পালানোর সময় জনতার হাতে মোটরসাইকেলসহ চোর আটক পাঁচুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাতিজাকে অপহরন, ৯৯৯-এ নম্বরে ফোন করে উদ্ধার ঘূূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবঃ বৃষ্টিতে গোয়ালন্দে জনজীবন বিপর্যস্ত পাংশার দশ ইউপিতে নৌকা পেলেন যারা রাজবাড়ীতে বোমাসহ নৌকা প্রার্থীর ছেলেসহ আটক দুই রাজবাড়ীতে মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে তরুণ গ্রেপ্তার রাজবাড়ীতে ইলিশ সম্পদ উন্নয়নের লক্ষে অবহিতকরণ কর্মশালা গোয়ালন্দে দরিদ্র পরিবারের ঘরে জমজ তিন সন্তান “ঘর জুড়ে আলো, মন জুড়ে আধার” গোয়ালন্দে হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নির্মল সভাপতি ও কোমল সম্পাদক

খাল খননে বিভিন্ন স্থানে ভাঙন, ধ্বসে যাচ্ছে রাস্তা-বসতভিটা, দুর্ভোগ

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৭, ২০২১
  • 132 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ও ছোটভাকলা ইউনিয়নে অপরিকল্পিতভাবে খাল খননে প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকা জুড়ে রাস্তা ও বসতভিটা ধ্বসে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন স্হানীয়রা। এ নিয়ে ভুক্তভোগীদের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। পাউবো বলছে, খাল খননের জন্য নয় বরং খালের উপর অপরিকল্পিতভাবে ব্রীজ নির্মাণ এবং বসতভিটা থাকায় পানি ঠিকমতো প্রবাহিত হতে না পারায় ভাঙন সৃষ্টি হচ্ছে।

রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) জানায়, ৬৪ জেলা খাল খনন প্রকল্পের আওতায় ২০১৮ সালে গোয়ালন্দ-রাজবাড়ী-ফরিদপুরের ১৭কিলোমিটার দৈর্ঘের খাল খনন প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। গত ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে খনন কাজ শেষ হয়। প্রায় ২৫ফুট চওড়া এবং ৪ফুট গভীর খনন কাজের প্রাক্কলিত ব্যায় ধরা হয়েছিল প্রায় ৭ কোটি ২৫ লাখ টাকা। চুক্তিমূল্য ধরা হয় ৬ কোটি ৫২ লাখ টাকা। ঢাকার মতিঝিলের টিটিএসএল-এসআর নামক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অনূকূলে কার্যাদেশ প্রদান করা হয়।

সুত্র জানায়, পাউবোর তত্বাবধানে গোয়ালন্দের দেবগ্রাম ইউনিয়নের তেনাপচা এলাকায় পদ্মা নদী হতে ছোটভাকলা ইউপির কেউটিল হয়ে বয়ে আসা ফরিদপুর পর্যন্ত প্রায় ১৭ কিলোমিটার দৈর্ঘের খালটি খনন শুরু করে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে গোয়ালন্দ উপজেলা এলাকায় রয়েছে প্রায় ১১ কিলোমিটার। খালের অনেক জায়গায় পর্যাপ্ত ঢাল বা জায়গা রাখা হয়নি। ব্রীজসহ বিভিন্ন ঝুকিপূর্ণ স্হানে গার্ডার, সিসি ব্লক, জিও ব্যাগসহ প্রয়োজনীয় সুরক্ষা ব্যবস্থার প্রয়োজন থাকলেও করা হয়নি। ফলে দুই বছর ধরে বর্ষা মৌসুমে খাল দিয়ে তীব্র স্রোত প্রবাহিত হওয়ায় দেবগ্রামের তেনাপচা এলাকার প্রায় এক কিলোমিটার জুড়ে ধ্বসের সৃষ্টি হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, পাউবো অপরিকল্পিত খাল খনন করায় দুই বছর ধরে ধ্বসে পড়ছে। ছোটভাকলার কেউটিল আব্দুল আজিজ মাষ্টারের বাড়ির কাছ থেকে শুরু করে দেবগ্রামের প্রয়াত চেয়ারম্যান পিয়ার আলীর বাড়ির পাশ দিয়ে সুইস গেট হয়ে তেনাপচা পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। এমনকি আমার তেনাপচা এলাকার বাড়ির বসতভিটা রক্ষা করতে পারছিনা। নদীর পানি দ্রুত কমে যাওয়ায় বসতভিটা ভেঙে ঘর ধ্বসে পড়ার উপক্রম হয়েছে। দ্রুত বাঁশ দিয়ে পাইলিং করলেও রক্ষা করতে পারছি না। স্থানীয় কবরস্থানে যাতায়াতের জন্য প্রায় ৫০০ দৈর্ঘের রাস্তা করেছিলাম। তা ধ্বসে চলাচল প্রায় বন্ধের উপক্রম হয়েছে। এছাড়া অধিকাংশ বাড়ি-ঘর ঝুকিতে পড়েছে।

স্থানীয় আইয়ুব সরদার (৫২) ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ঘরের পিছনে দুই সারি গাছ লাগানো ছিল, ১০ফুট চওড়া রাস্তা ছিল। রাস্তা থেকে খালের ঢালু ছিল আরো প্রায় ১২ফুট। তার পাশ দিয়ে মেহগনি গাছ লাগানো ছিল। এখন রাস্তা, গাছ, ঢালু কিছুই নাই। খাল খননের পর থেকে ভাঙতে থাকায় এমন পরিস্থিতি হয়েছে। এখন বাড়ি-ঘর রক্ষা করা যাচ্ছেনা। ঘর সরিয়ে আরেক ভিটায় নিয়ে তুলছি। খাল পাড়ের প্রায় ৫০টি পরিবার ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে।

দেবগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলাম জানান, আমি ঘটনাস্হল ঘুরে দেখেছি। গত বছর থেকে খাল খননকালে পর্যাপ্ত জায়গা বা ঢালু না রাখায় দুই পাড় স্থানে ধ্বসে যাচ্ছে। এখন বর্ষাকালে পানির স্রোত বেশি থাকায় ভাঙন ঝুঁকি রয়েছে। ভাঙ্গন ও ধ্বসে যাওয়া এলাকায় দ্রুত মেরামতের জন্য সংশ্লিষ্টদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করছি।

রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলী ও গোয়ালন্দের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল সরদার বলেন, খালের উভয় পাশে ঘর-বাড়িসহ অনেক স্থাপনা থাকায় নিয়মমাফিক খনন সম্ভব হয়নি। সিডিউল অনুযায়ী খনন করলে অনেক বসতভিটা ক্ষতি হতো। বসত বাড়ির কারনে ঠিকাদার সাড়ে ৬ কোটি টাকার কাজ মাত্র ৩ কোটিতেই শেষ করতে হয়েছে। এ কাজে জিও ব্যাগ, সিসি ব্লক বা এমন কিছুর জন্য বরাদ্দ ছিল না। খালের চওড়া অনুপাতে ব্রীজ সঠিকমাপে না করে ছোট করে তৈরি করায় পশ্চিম তেনাপঁচা এলাকায় তীব্র স্রোতের সৃষ্টি হচ্ছে। যার ফলে সেখানে ভাঙ্গন ও ধ্বসের সৃষ্টি হচ্ছে বলে দাবী করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102