October 25, 2021, 9:47 am
Title :
টুঙ্গিপাড়ায় রাজবাড়ী জেলা আ.লীগের নেতৃবৃন্দের শ্রদ্ধা নিবেদন রাজবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে ইলিশ শিকারের অপরাধে ২০জেলের জেল জরিমানা দৌলতদিয়ায় হেরোইন সহ গ্রেপ্তার ১ রাজবাড়ীতে শান্তি ও সম্প্রীতির পদযাত্রা গোয়ালন্দের পদ্মায় মা ইলিশ শিকারে ৫ জেলের কারাদন্ড পাংশায় অভিযানে ৭ জেলে আটক, ২০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার প্রতিবাদে রাজবাড়ীতে গন-অনশন ও বিক্ষোভ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে বালিয়াকান্দিতে প্রতিবাদ সভা এক ঘন্টার জন্য প্রতিকী ইউএনও হলেন দশম শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী বাবলী রাজবাড়ীতে চলন্ত ট্রেনে দুর্বৃত্তদের ছোড়া ঢিলে যুবক আহত

রাজবাড়ীতে নদী তীর সংরক্ষণ কাজের ৫০ মিটার সিসি ব্লক বিলীন

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১
  • 45 Time View
শেয়ার করুনঃ

ষ্টাফ রিপোর্টার, রাজবাড়ীঃ গাঙ্গে ঘর ভাঙ্গে গেলো। আপনারা দেহেন না। আমি অসুস্থ,কনতে কনে যাবো, সরার জাগা নাই, জায়গা জমি নাই আমাগোরে। এভাবেই কথা গুলো বলছিলো সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের সিলিমপুর গ্রামের পদ্মা পাড়ের বাসিন্দা আশি বছর বয়সী মহিরন বেগম।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, পদ্মার পানি কমার সাথে সাথে নদী তীরবর্তী এলাকায় ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যেই নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে পদ্মা নদী তীর সংরক্ষণ কাজের ৫০ মিটার এলাকার সিসি ব্লক । ভাঙ্গন ঝুঁকিতে রয়েছে চরসিলিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যানলয় সহ নদী পাড়ের ৩৫ টি বসত বাড়ি। এরই মধ্যে বিদ্যাটলয়টির ভবনে পাঠদান বন্ধ করে দিয়েছে কতৃপক্ষ। ভাঙ্গন রোধে জিও ব্যাগ ফেলছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

এলাকাবাসী জানায়,মঙ্গলবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে চরসিলিমপুর এলাকায় হঠাৎ ভাঙ্গন শুরু হয়। পানি কমার সাথে সাথে নদী ভাঙ্গ দেখা দেওয়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন পদ্মা পাড়ের বাসিন্দারা । দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে আরো ক্ষয়ক্ষতি হবার আশঙ্কা করছেন তারা।

স্থানীয় খোদেজা বেগম জানায়, ঘুম ভেঙে তিনি দেখেন নদীতে বুদবুদ উঠছে। নদীর পাড়ের বøকগুলো ভেঙে চলে যাচ্ছে। তখনই তার স্বামী পানি উন্নয়ন বোর্ডকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানান। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোকেরা এসে কিছু বালুর বস্তা ফেলেছে। এখন বসতঘর নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন।

আলী আকবর জানায়, এর আগে নদী ভাঙনে তাদের বসতঘরসহ দুই বিঘা জমি বিলীন হয়েছে। তার সহায় সম্বল সবই কেড়ে নিয়েছে নদী। এবার নদীতে বসতঘর ভাঙলে ছেলে মেয়ে নিয়ে রাস্তায় দাঁড়াতে হবে।

চরসিলিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইমান আল ফকির জানায়, স্কুল থেকে দশ গজ দূরে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যেই ভবনের শিক্ষাথীদের পাঠদান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আতঙ্কের মধ্যে রয়েছি কখন যেন স্কুলটি নদীতে নিলীন হয়ে যায়।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলী মোঃ রনি জানায়, খবর পেয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডে তাৎক্ষনীক বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলার কাজ শুরু করে। এখন ওই এলাকার ভাঙ্গন নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102