January 20, 2022, 5:54 pm

গোয়ালন্দে যুগান্তর প্রতিনিধির ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় প্রধান আসামী গ্রেপ্তার

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, মে ৫, ২০২১
  • 130 Time View
শেয়ার করুনঃ

শামীম শেখ, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ ঘাট থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেছেন যুগান্তরের গোয়ালন্দ প্রতিনিধি ও গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামীম শেখ। পুলিশ মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১১ টার দিকে উপজেলার দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা থেকে মামলার ১ নং আসামি সুজন খন্দকার ওরফে ডেসটিনি ইউসুফকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে। সে উপজেলার দৌলতদিয়া শাহাদাৎ মেম্বার পাড়ার মৃত মোহাম্মদ আলী খোন্দকারের ছেলে।

তিনি দৌলতদিয়া থেকে পরিচালিত ফেসবুক ও ইউটিউব নির্ভর “জনতার বিবেক টিভি’র” চেয়ারম্যান ও নিজস্ব প্রতিনিধি।পাশাপাশি তিনি দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর একজন চিহ্নিত বাড়ীওয়ালা ও দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার একজন পরিবহন দালাল।এ সংক্রান্ত তিনি বেশ কয়েকটি মামলার আসামি এবং জেল খাটার নজির রয়েছে।

মামলার অপর আসামি হিসেবে চ্যানেলটির প্রধান সম্পাদক মেহেদুল হাসান আক্কাছকেও আসামী করা হয়েছে। তিনি গোয়ালন্দ পৌরসভার হাউলি কেউটিল ওলিমদ্দিন পাড়ার বাসিন্দা। সরকারী নীতিমালা লঙ্ঘন করে তারা পরস্পর যোগসাজশে অবৈধ, অনুনমোদিত ও ভুঁইফোড় টিভির বিভিন্ন পদ-পদবী ব্যবহার করে সাধারণ মানুষকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে অবৈধ লাভের বশবর্তী হয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের মাধ্যমে অবৈধ সুবিধা গ্রহন করে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

মামলার এজাহারে প্রকাশ গত ১৭ এপ্রিল যুগান্তরে “গোয়ালন্দে শতাধিক নারীর কার্ড জব্দের অভিযোগ” শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। আসামীগণ পরস্পর যোগসাজশে যুগান্তরের সংবাদটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার অপকৌশল হিসেবে গ্রেপ্তারকৃত সুজন খোন্দকার ১৯ এপ্রিল ইউপি চেয়ারম্যানের উন্নয়নমুখী কর্মকান্ড প্রচারণার অজুহাতে প্রতিবেদন ফেসবুক ও ইউটিউবে প্রচার করে। প্রতিবেদনের একটি অংশজুড়ে তারা যুগান্তরে প্রকাশিত সংবাদটিকে মিথ্যা বলে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করে। সেই সাথে প্রতিবেদনে যুগান্তর প্রতিনিধি শামীম শেখের ছবি বারবার প্রদর্শন ও উৎকোচ গ্রহনের মিথ্যা প্রচারনার মাধ্যমে তাকে সামাজিকভাবে হেয় করার অপচেষ্টা চালায়। এতে  গোয়ালন্দ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নের্তৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের জনগনের মধ্যে তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও উত্তেজনাকর পরিস্হিতির সৃষ্টি হয়।

এ অবস্থায় গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা গত ১ মে শনিবার রাতে এক জরুরী সভার মাধ্যমে কথিত জনতার বিবেক টিভি’র অপ-সাংবাদিকতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং আইনী প্রক্রিয়ায় তাদেরকে মোকাবিলার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ৩ মে সোমবার রাতে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ২০১৮ সালের ২৫/২৯/৩১ ধারায় ওই মামলাটি দায়ের করা হয়।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, ধৃত আসামী সুজন খোন্দকারকে বুধবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে রাজবাড়ীর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102