০৬:৪১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে ৮০ নারী প্রশিক্ষণার্থীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ল্যাপটপ বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীতে ৮০জন নারী প্রশিক্ষণার্থীর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে স্মার্ট উপহার হিসেবে ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীনে হার পাওয়ার প্রকল্পের আওতায় এই ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকালে রাজবাড়ী সদর উপজেলা প্রশাসন ও তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে এসব ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়।

রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মো. রবিউল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম নওয়াব আলী, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাহিদুল আলম রাজু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফন নাহার মিতা বক্তব্য রাখেন।

অন্যান্যের মধ্যে রাজবাড়ী সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. জনি খান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. খায়ের উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোস্তফা আল রাজীব, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. আতাহার আলী, উপজেলা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহকারী প্রোগ্রামার মো. আব্দুল করিম সহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান বলেন, অনেক নারী এখন ঘরে বসে লাখ টাকা আয় করছেন। এটাও প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ ছিল। তিনিই নারীদের নিয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে নারীদের প্রযুক্তিতে দক্ষ হয়ে দেশের উন্নয়নে অংশীদার হওয়ার সুযোগ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যে জাতি যত শিক্ষিত, সে জাতি তত উন্নত। সরকার সে লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর ‘স্মার্ট উপহার’ তার জ্বলন্ত প্রমাণ।

ডিসি বলেন, উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে হলে ডিজিটাল বাংলাদেশ অবশ্যই গড়তে হবে। সেজন্য সকলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের ত্যাগ প্রজন্মের জন্য আর্শিবাদ বয়ে আনবে। প্রতিটি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও গ্রাম পর্যন্ত স্মার্ট সেবা চালু হয়েছে। তথ্য ও প্রযুক্তির ছোঁয়া প্রত্যন্ত গ্রামগঞ্জ পর্যন্ত পৌঁছেছে। সরকার সবাইকে চাকরি দিতে পারবেনা। কিন্তু সবাইকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলার চেষ্টা করছে। স্বাবলম্বী জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে সব ধরনের সহযোগিতা করে আসছে।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সোহেল ও সম্পাদক কামরুল পুনরায় নির্বাচিত

রাজবাড়ীতে ৮০ নারী প্রশিক্ষণার্থীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ল্যাপটপ বিতরণ

পোস্ট হয়েছেঃ ১০:৪২:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীতে ৮০জন নারী প্রশিক্ষণার্থীর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে স্মার্ট উপহার হিসেবে ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীনে হার পাওয়ার প্রকল্পের আওতায় এই ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকালে রাজবাড়ী সদর উপজেলা প্রশাসন ও তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে এসব ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়।

রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মো. রবিউল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম নওয়াব আলী, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাহিদুল আলম রাজু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফন নাহার মিতা বক্তব্য রাখেন।

অন্যান্যের মধ্যে রাজবাড়ী সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. জনি খান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. খায়ের উদ্দিন আহমেদ, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোস্তফা আল রাজীব, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. আতাহার আলী, উপজেলা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহকারী প্রোগ্রামার মো. আব্দুল করিম সহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান বলেন, অনেক নারী এখন ঘরে বসে লাখ টাকা আয় করছেন। এটাও প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ ছিল। তিনিই নারীদের নিয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে নারীদের প্রযুক্তিতে দক্ষ হয়ে দেশের উন্নয়নে অংশীদার হওয়ার সুযোগ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যে জাতি যত শিক্ষিত, সে জাতি তত উন্নত। সরকার সে লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর ‘স্মার্ট উপহার’ তার জ্বলন্ত প্রমাণ।

ডিসি বলেন, উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে হলে ডিজিটাল বাংলাদেশ অবশ্যই গড়তে হবে। সেজন্য সকলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের ত্যাগ প্রজন্মের জন্য আর্শিবাদ বয়ে আনবে। প্রতিটি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও গ্রাম পর্যন্ত স্মার্ট সেবা চালু হয়েছে। তথ্য ও প্রযুক্তির ছোঁয়া প্রত্যন্ত গ্রামগঞ্জ পর্যন্ত পৌঁছেছে। সরকার সবাইকে চাকরি দিতে পারবেনা। কিন্তু সবাইকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলার চেষ্টা করছে। স্বাবলম্বী জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে সব ধরনের সহযোগিতা করে আসছে।