১১:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এমপি হতে চেয়ারম্যানের পদত্যাগ, বাছাইয়ে মনোনয়ন বাতিল

মইনুল হক মৃধা, রাজবাড়ীঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজবাড়ী (রাজবাড়ী সদর গোয়ালন্দ) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. এমদাদুল হক বিশ্বাস। এজন্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থেকে পদত্যাগ করেছেন তিনি। কিন্তু সোমবার ( ডিসেম্বর) দুপুরে যাচাইবাছাই শেষে তার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবু কায়সার খান

জেলা প্রশাসক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী কতৃক % সমর্থন সূচক তালিকা হতে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক দৈবচয়নের ভিত্তিতে প্রদত্ত ১০ জন ভোটারের তথ্য যাচাইবাছাইয়ে দুইজন ভোটারের সমর্থনের তথ্য সঠিকভাবে পাওয়া যায়নি। তাঁরা জানান, তারা ইমদাদুল হক বিশ্বাসের পক্ষে তালিকায় স্বাক্ষর করেননি। তাই % ভোটারের তথ্য সঠিক ভাবে না পাওয়ায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে

জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী কতৃক % সমর্থন সূচক তালিকা হতে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক দৈবচয়নের ভিত্তিতে প্রদত্ত ১০ জন ভোটারের তথ্য যাচাইয়ের ভিত্তিতে দুই জন ভোটারের তথ্য সঠিক পাওয়া যায়নি। ফলে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থন যাচাইবাচাই বিধিমালা ২০১১ এর বিধি লঙ্ঘিত হয়েছে। পরে আইন অনুযায়ী তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। তিনি নির্বাচন কমিশনে আপিল করতে পারবেন

স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাড. ইমদাদুল হক বিশ্বাস বলেন, আমি মনে করি আমার মনোনয়নপত্রটি সম্পূর্ণ অবৈধভাবে বাতিল করা হয়েছে। সমর্থনে হাজার ৪৪ জনের স্বাক্ষর দেওয়ার কথা সেখানে ৪ হাজার ৩১২ জনের সমর্থিত ব্যক্তির কাগজ দিয়েছি। যারা বিষয়টি তদন্ত করেছে তাদের তদন্তটি সঠিক হয়নি। অথবা তারা আমার সমর্থকের কাছে বিষয়টি সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারেনি। আমি যে সমর্থনের তথ্য দিয়েছি সেখানে একটি জায়গায় স্বাক্ষর বাদ নেই, তথ্য গত ভুল নেই। আমি নির্বাচন কমিশন বরাবর আপিল করব

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

এমপি হতে চেয়ারম্যানের পদত্যাগ, বাছাইয়ে মনোনয়ন বাতিল

পোস্ট হয়েছেঃ ১০:২০:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩

মইনুল হক মৃধা, রাজবাড়ীঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজবাড়ী (রাজবাড়ী সদর গোয়ালন্দ) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. এমদাদুল হক বিশ্বাস। এজন্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থেকে পদত্যাগ করেছেন তিনি। কিন্তু সোমবার ( ডিসেম্বর) দুপুরে যাচাইবাছাই শেষে তার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবু কায়সার খান

জেলা প্রশাসক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী কতৃক % সমর্থন সূচক তালিকা হতে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক দৈবচয়নের ভিত্তিতে প্রদত্ত ১০ জন ভোটারের তথ্য যাচাইবাছাইয়ে দুইজন ভোটারের সমর্থনের তথ্য সঠিকভাবে পাওয়া যায়নি। তাঁরা জানান, তারা ইমদাদুল হক বিশ্বাসের পক্ষে তালিকায় স্বাক্ষর করেননি। তাই % ভোটারের তথ্য সঠিক ভাবে না পাওয়ায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে

জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী কতৃক % সমর্থন সূচক তালিকা হতে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক দৈবচয়নের ভিত্তিতে প্রদত্ত ১০ জন ভোটারের তথ্য যাচাইয়ের ভিত্তিতে দুই জন ভোটারের তথ্য সঠিক পাওয়া যায়নি। ফলে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থন যাচাইবাচাই বিধিমালা ২০১১ এর বিধি লঙ্ঘিত হয়েছে। পরে আইন অনুযায়ী তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। তিনি নির্বাচন কমিশনে আপিল করতে পারবেন

স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাড. ইমদাদুল হক বিশ্বাস বলেন, আমি মনে করি আমার মনোনয়নপত্রটি সম্পূর্ণ অবৈধভাবে বাতিল করা হয়েছে। সমর্থনে হাজার ৪৪ জনের স্বাক্ষর দেওয়ার কথা সেখানে ৪ হাজার ৩১২ জনের সমর্থিত ব্যক্তির কাগজ দিয়েছি। যারা বিষয়টি তদন্ত করেছে তাদের তদন্তটি সঠিক হয়নি। অথবা তারা আমার সমর্থকের কাছে বিষয়টি সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারেনি। আমি যে সমর্থনের তথ্য দিয়েছি সেখানে একটি জায়গায় স্বাক্ষর বাদ নেই, তথ্য গত ভুল নেই। আমি নির্বাচন কমিশন বরাবর আপিল করব