May 18, 2022, 3:56 pm
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ তিন ফেরি বিকল, ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির চাপ গোয়ালন্দে হেরোইনসহ তরুণ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল রাজবাড়ীতে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রনে সচেতনতামূলক সভা রাজবাড়ীর পুলিশ পরিদর্শক অধীর চন্দ্র রায়ের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা রাজবাড়ীতে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও লোকসানে চাষিরা রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ গোয়ালন্দে জমি নিয়ে সংঘর্ষে কৃষক নিহত, মামলা দায়ের, গ্রেপ্তার ২ দৌলতদিয়ায় বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ৪টি দোকানে জরিমানা গোয়ালন্দে হেরোইনসহ যুবক গ্রেপ্তার

পদ্মায় ১২ কেজির চিতল ও ১৮ কেজির বাগাড় মাছ বিক্রি হলো ৪১ হাজারে

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১
  • 92 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে শনিবার সকালে পদ্মা নদীর ১৮ কেজি ওজনের একটি বাগাড় ও ১২ কেজি ওজনের একটি বড় চিতল মাছ বিক্রি হয়েছে। মাছ দুটি সকালেই দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট থেকে গাজীপুরের এক শিল্পপতির কাছে বিক্রি করেন।

এর আগে মাছ দুটি শনিবার ভোরে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর এলাকার পদ্মা নদীতে জেলে রতন হালদারের জালে ধরা পড়ে। চিতল মাছটি জেলে রতন হালদার ১ হাজার ৫৫০ টাকা কেজি দরে এবং বাগাড় মাছটি ১ হাজার ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেন। দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট এলাকার মৎস্য ব্যবসায়ী শাহজাহান শেখ মাছ দুটি কিনে নেন। পরে গাজীপুরের মাওনা এলাকার এক শিল্পপতি ব্যবসায়ীর কাছে ১ হাজার ৬০০ টাকা কেজি দরে ১৯ হাজার ২০০ টাকায় চিতল এবং ১ হাজার ১০০ টাকা কেজি দরে ২২ হাজার টাকা কেজি দরে চিতল মাছ বিক্রি করেন।

মৎস্য জীবিরা জানান, শুক্রবার রাতে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার মালোচি এলাকার জেলে রতন হালদার সহকর্মীদের সাথে করে মাছ শিকারে বের হন। হরিরামপুর উপজেলার পদ্মা নদীর মোহনায় জাল ফেলেন। রাত শেষে আজ শনিবার ভোর রাতের দিকে জাল গুটিয়ে নৌকায় তোলার পর দেখতে পান বড় একটি চিতল মাছ। মাছটি পাওয়ার পর বিক্রির জন্য দ্রুত যোগাযোগ করেন দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট এলাকার মৎস্য ব্যবসায়ী শাহজাহান শেখ এর সাথে। এরপর পরে আরেকবার জাল ফেলে পান বড় একটি বাগাড় মাছ। সকাল ৭ টার দিকে ফেরি ঘাটে আনার পর ওজন দিয়ে দেখেন বাগাড় মাছটির ওজন প্রায় ১৮ কেজি এবং চিতল মাছটির ওজন হয়েছে প্রায় ১২ কেজির মতো। পরে চিতল মাছটি ১ হাজার ৫৫০ টাকা কেজি দরে এবং ১ হাজার ২০ টাকা কেজি দরে বাগাড় মাছটি শাহজাহান শেখ এর কাছে বিক্রি করেন।

দৌলতদিয়ার ৫নম্বর ফেরি ঘাট এলাকার শাকিল-সোহান মৎস্য আড়তের সত্বাধিকারী শাহজাহান শেখ বলেন, বড় মাছ পাওয়ায় জেলেরা খুশি, ব্যবসায়ী হিসেবে আমরাও খুশি। চিতল মাছ সাধারণত ৪-৫ কেজি করে পাওয়া যায়। পদ্মা নদীর ১০-১২ কেজি ওজনের চিতল খুব কমই পাওয়া যায়। ১২ কেজি ওজনের চিতলটি ১ হাজার ৫৫০ টাকা কেজি দরে কেনার পর বিভিন্ন জনের সাথে যোগাযোগ করতে থাকি। পরে গাজীপুরের মাওনা এলাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে ১ হাজার ৬০০ টাকা কেজি দরে মোট ১৯ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি করেছি। একই সাথে তিনি বাগাড় মাছটিও তাঁর কাছে বিক্রি করা হয়। তিনি বাগাড় মাছটি ১ হাজার ১০০ টাকা কেজি দরে মোট ২২ হাজার টাকায় কিনে নেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102