October 25, 2021, 11:22 am
Title :
টুঙ্গিপাড়ায় রাজবাড়ী জেলা আ.লীগের নেতৃবৃন্দের শ্রদ্ধা নিবেদন রাজবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে ইলিশ শিকারের অপরাধে ২০জেলের জেল জরিমানা দৌলতদিয়ায় হেরোইন সহ গ্রেপ্তার ১ রাজবাড়ীতে শান্তি ও সম্প্রীতির পদযাত্রা গোয়ালন্দের পদ্মায় মা ইলিশ শিকারে ৫ জেলের কারাদন্ড পাংশায় অভিযানে ৭ জেলে আটক, ২০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার প্রতিবাদে রাজবাড়ীতে গন-অনশন ও বিক্ষোভ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে বালিয়াকান্দিতে প্রতিবাদ সভা এক ঘন্টার জন্য প্রতিকী ইউএনও হলেন দশম শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী বাবলী রাজবাড়ীতে চলন্ত ট্রেনে দুর্বৃত্তদের ছোড়া ঢিলে যুবক আহত

অজ্ঞাতনামা মৃত ব্যক্তির দাফনের দায়িত্ব নিল ‘গোয়ালন্দ ব্লাড ডোনার ক্লাব’

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১
  • 103 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার ৫০ শয্যা হাসপাতালের বারান্দায় গত প্রায় ১০ দিন ধরে পড়ে ছিলেন অজ্ঞাত মানসিক ভারসাম্যহাীন এক ব্যক্তি (৪০)। সেখানেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে চলছিল তার চিকিৎসা ব্যবস্থা। গতকাল বুধবার বেলা দুইটার দিকে তিনি সেখানে মৃত্যু বরণ করেন।

কিন্তু সমস্যায় পড়েন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। নাম পরিচয়হীন অজ্ঞাত ওই মৃত ব্যক্তির স্বজনদের কাউকে না পাওয়ায় পরে তার দাফন-কাফনের দায়িত্ব নেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘গোয়ালন্দ ব্লাড ডোনার ক্লাব’। বুধবার রাতেই হাসপাতাল চত্বরেই তার গোসলের ব্যবস্থা করা হয়। সেখানেই নামাজে জানাযা শেষে জমিদারব্রীজ সংলগ্ন কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়। জানাযা নামাজে সংগঠনের সদস্যরা ছাড়াও হাসপাতালের চিকিৎসক ও স্থানীয় অনেকেই শরিক হন।

গোয়ালন্দ ব্লাড ডোনার ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহাফুজুর রহমান জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বুধবার বিকেলে অজ্ঞাত লাশ আমাদের বুঝিয়ে দিলে সংগঠনের নিয়ম অনুসারে রাতেই দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়। এই কাজে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মোস্তফা মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মোস্তফা মুন্সী। রাত সাড়ে ৮টার দিকে হাসপাতাল চত্বরে জানাযার নামাজে ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, মোস্তফা মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এর পরিচালক সেলিম মুন্সী, ক্লাবের সদস্য, চিকিৎসকসহ স্থানীয় শতাধিক মুসল্লি শরিক হন।

হাসপাতাল জানায়, গত ৩১ আগষ্ট দুপুরে উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আবুল হোসেন অজ্ঞাত ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করেন। তার কোন পরিচয় জানা না থাকায় বা কেউ না থাকায় তাকে প্রাথমিকভাবে স্বাভাবিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তিনি মারা যান। তবে মারা যাওয়ার দুই-তিন দিন আগে তার জ্ঞান ফিরে আসে।

ইউপি সদস্য আবুল হোসেন প্রামানিক বলেন, তার বাড়ির কাছে স্থানীয় আঞ্জুমান কাদরিয়া মসজিদের পাশে অচেতন অবস্থায় পড়েছিল। তার আগে এলাকায় তাকে মানসিক ভারসাম্যহীনভাবে চলাফেরা করতে দেখেছেন অনেকে। মসজিদ কর্তৃপক্ষের অনুরোধে তাকে তিনি নিজ দায়িত্বে গত ৩১ আগষ্ট দুপুরে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করি। এরপর মাঝে মধ্যে গিয়ে তাঁর খোঁজ খবর রাখতেন। তার পড়নে একটি প্যান্ট, গেঞ্জি ও খুচরা তিন হাজারের মতো টাকা ছিল। টাকাগুলো তার হেফাজতে রয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নার্সিং সুপার ভাইজার মৃদুলা রানী বিশ্বাস বলেন, অজ্ঞাত ওই ব্যক্তিকে ভর্তির পর থেকে তাঁকে হাসপাতালের সেবিকারা নিয়মিত খাবার দিয়েছেন, যত্ন করেছেন। দীর্ঘ ১০ দিন প্রাথমিক চিকিৎসাকালীন সময় তিনি দুই-তিন আগে কিছুটা সুস্থ্য হন। এরপরও সে তার নিজের নাম, ঠিকানা কিছুই বলতে পারেননি।

জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসা কর্মকর্তা চন্দন কুমার ঘোষ জানান, অজ্ঞাত ব্যক্তি মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ছিল। তাকে প্রাথমিকভাবে ক্লিনিক্যাল চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। যেহেতু তার পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। এ কারনে তার কি কি সমস্যা ছিল সে বিষয়ে আমরা সঠিক চিকিৎসা দিতে পারিনি।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) নিতাই কুমার ঘোষ জানান, বুধবার দুপুর দুইটার দিকে ওই ব্যক্তি মারা গেলে তাৎক্ষনিক বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন এবং গোয়ালন্দ ঘাট থানাকে অবগত করি। তাঁদের পরামর্শে মৃত ব্যক্তির আঙ্গুলের ফিঙার ছাপ নেওয়া সহ আনুসাঙ্গিক কাজ সম্পন্ন করে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গোয়ালন্দ ব্লাড ডোনার ক্লাবের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরবর্তীতে যদি কেউ লাশের সন্ধানের জন্য আসেন এক্ষেত্রে আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102