May 20, 2022, 11:21 pm
শিরোনামঃ
রাজবাড়ীতে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তর সরবরাহকারী চক্রের ১৩ সদস্য আটক গোয়ালন্দে পদ্মার ভাঙনঃ থেমে আছে ঘাট আধুনিকায়ন কাজ রাজবাড়ীতে টিকা সপ্তাহ উপলক্ষে প্রশিক্ষণ কর্মশালা কালুখালীতে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রাংশ ক্রয়ে অনিয়মের অভিযোগ রাজবাড়ীতে দ্বিতীয় শ্রেনীর শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষন, ধর্ষক গ্রেপ্তার দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ তিন ফেরি বিকল, ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির চাপ গোয়ালন্দে হেরোইনসহ তরুণ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল রাজবাড়ীতে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রনে সচেতনতামূলক সভা রাজবাড়ীর পুলিশ পরিদর্শক অধীর চন্দ্র রায়ের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা

প্রশাসন দেখে পালালো বর ও কনে, গভীররাতে বন্ধ হলো বাল্যবিবাহ

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, আগস্ট ৬, ২০২১
  • 94 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রামে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিবাহ বন্ধ হয়েছে। গত বুধবার রাতে বাল্যবিবাহের খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন সেখানে অভিযান চালায়। অভিযান পরিচালনা করেন গোয়ালন্দের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. রফিকুল ইসলাম।

ভ্রাম্যমান আদালত জানায়, উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের দেবগ্রাম গ্রামের দরিদ্র তোফাজ্জেল শেখ এর নাবালিকা কিশোরীর সঙ্গে উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের হোসেন মন্ডল পাড়া এলাকার সেকেন মন্ডলের ছেলে ছালাম মন্ডলের সাথে বিয়ে ঠিক হয়। পূর্ব নির্ধারিত দিন তারিখ অনুযায়ী গত বুধবার (৪ আগষ্ট) গভীর রাতে কনে বাড়িতে চলে বিয়ের আয়োজন। যথারীতি আত্মীয়-স্বজন এবং পাড়া প্রতিবেশী সকলেই বাড়িতে হাজির। আয়োজন করা হয় বিভিন্ন প্রকারের খাবারের। এ ধরনের আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাল্যবিবাহ চলাকালে খবর পেয়ে রাতেই আনছার বাহিনীর সদস্যদের সাথে করে হাজির হন সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. রফিকুল ইসলাম।

প্রশাসনের খবর পেয়ে অভিভাবকরা বাড়ি থেকে বর ও কনেকে পালাতে সহযোগিতা করে। পরে প্রায় আড়াই ঘন্টা অপেক্ষার পর রাত দশটার দিকে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যের সহযোগিতায় হাজির করা হয় বর ও কনেকে। এসময় তিনি কনে এবং ছেলে পক্ষের সাথে সরাসরি কথা বলে বুঝতে পারেন এটি বাল্যবিবাহের আয়োজন চলছিল। বাল্যবিবাহের কুফল সর্ম্পকে উভয় পক্ষকে বোঝাতে সক্ষম হন। পরে তারা তাদের ভুল বুঝতে পারলে আর্থিক দৈন্যতা ও সামাজিক বিষয় চিন্তা করে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ আইন ২০১৭ এর ধারা ৫ মোতাবেক ছেলে পক্ষকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা এবং এরকম কাজ করবে না মর্মে উভয় পক্ষের কাছ থেকে মুচলেকা গ্রহন করে ছেড়ে দেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. রফিকুল ইসলাম জানান, বাল্যবিবাহের গোপন সংবাদ পেয়ে কনের বাড়ীতে আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বর ও কনেকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। স্থানীয় ইউপি সদস্য উসমান কাজির সহযোগিতায় আড়াই ঘন্টা পর তাদেরকে বাড়িতে হাজির করা হয়। পরে বাল্যবিবাহ নিশ্চিত হওয়ার পর ওই কনের বাবার কাছ থেকে ভবিষ্যতে প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেওয়ার লিখিত অঙ্গিকার আদায় করেন। সাথে তিনি বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে ছেলে পক্ষের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102