May 17, 2022, 7:34 pm
শিরোনামঃ
রাজবাড়ীতে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও লোকসানে চাষিরা রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ গোয়ালন্দে জমি নিয়ে সংঘর্ষে কৃষক নিহত, মামলা দায়ের, গ্রেপ্তার ২ দৌলতদিয়ায় বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ৪টি দোকানে জরিমানা গোয়ালন্দে হেরোইনসহ যুবক গ্রেপ্তার ফরিদপুর জেলা আ.লীগঃ শামীম হকে উল্লাস, শাহ মো. ইশতিয়াকে বিস্ময় কন্ঠশিল্পী রশীদ আহমেদ তিতু’র দ্বিতীয় মৃত্যু বাষির্কী শনিবার রাজবাড়ীতে কাঠের ঘানিতে শরিষার তেল উৎপাদন সচল রেখেছেন বাচ্চু বেপারী গোয়ালন্দে ট্রাকের ধাক্কায় দারিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা নিহত সাংসদ কাজী কেরামত আলীর সুস্থ্যতা কামনায় গোয়ালন্দ প্রপার হাই স্কুলে দোয়া

দৌলতদিয়ায় প্যানেল চেয়ারম্যান খুনের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, এপ্রিল ৩, ২০২১
  • 36 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল গণি মন্ডল (৬০) হত্যার ঘটনায় শনিবার সকালে থানায় মামলা দায়ের করেছেন তাঁর বড় ছেলে আলমগীর হোসেন মন্ডল। তিনি বাদী হয়ে পাঁচজনকে চিহিৃত এবং অজ্ঞাত আরো ১০-১২ জনকে আসামী করেছেন। তবে এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।

এরমধ্যে ১নম্বর আসামী স্থানীয় ওমর আলী মোল্লার পাড়ার কাশেম মন্ডলের ছেলে রাজিব মন্ডল (৩২)। তিনি দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান মন্ডলের শ্যালক এবং ২নম্বর আসামী করেছেন স্থানীয় ২নং বেপারী পাড়ার কাশেম ফকীরের ছেলে কাওছার ফকীরকে (২৯)। কাওছার ইউপি চেয়ারম্যানের এলাকা সর্ম্পকে চাচাতো ভাই। অপর তিন আসামী হলেন ওমর আলী মোল্লা পাড়ার রহমান মন্ডল (৩৩), লোকমান চেয়ারম্যান পাড়ার খায়রুল (২৮) ও গোয়ালন্দ পৌরসভার রেলগেট কছিমুদ্দিন সরদার পাড়ার আলামিন (২৮)।

মামলার এজাহারে গণি মন্ডলের ছেলে আলমগীর হোসেন মন্ডল বলেন, প্রায় ২০ বছর ধরে দৌলতদিয়া ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান হিসেবে গণি মন্ডল সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। সাথে তিনি অনেক সামাজিক কর্মকান্ডের সাথেও জড়িত। তার সুনামের কারনে স্থানীয় অনেক সন্ত্রাসী বা খারাপ প্রকৃতির মানুষ ঈর্ষান্বিত ছিলেন। সম্প্রতি তাঁর ওপর অর্পিত দায়িত্ব এবং সামাজিক কাজ করায় তিনি অনেক দুশ্চিন্তার মধ্যে পড়েন। পারিবারিকভাবে তিনি বিভিন্ন সময় আলোচনা করেন, কতিপয় লোকজন তাঁকে ক্ষতি করতে পারে। ৩১ মার্চ বুধবার এশার নামাজ শেষে ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে পাশের গ্রামের হাকিম মন্ডলের জানাযা নামাজ শেষে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক সংলগ্ন সোবানের দোকানে বসে চা পান করেন। আড্ডা শেষে রাত ১০টার দিকে তিনি ভাগ্নে ইমনকে সাথে করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। পথিমধ্যে প্রতিবেশী মোক্তার মোল্লার বাড়ির কাঁচা রাস্তায় পৌছা মাত্র মহাসড়কে মোটরসাইকেল থামিয়ে কাওছারসহ রহমান, খায়রুল ও আলামিন দাঁড়িয়ে থাকে। রাজিব মন্ডল মহাসড়ক থেকে দ্রুত ওই রাস্তার পাশে বাঁশ ঝোপের কাছে দাড়িয়ে তাঁর পথরোধ করে কোমড় থেকে আগ্নেয়াস্ত্র বের করে পেটে গুলি করে। এসময় ইমন সৌর বিদ্যুতের ও রাস্তায় থাকা গাড়ির হেডলাইটের আলোয় রাজিবসহ ও মহাসড়কে থাকা তিনজনকে চিনে ফেলে।

গণি মন্ডলের ছেলে আলমগীর মন্ডল আরো বলেন, গুলিবিদ্ধ হয়ে তাঁর বাবা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। গুলির শব্দে এবং তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। রক্তাত্ব অবস্থায় তার বাবাকে উদ্ধার করে প্রথমে গোয়ালন্দ পরে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার আরো অবনতি হওয়ায় তাঁকে রাতেই ঢাকা মেডিকেলে স্থানান্তর করে। পথিমধ্যে তাঁর প্রচুর রক্তক্ষরণ হলে অবস্থা বেশি খারাপ হওয়ায় সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অস্ত্রপচারে গুলি বের করার পর ১ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি মারা যান।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, পুলিশ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ সকল স্থানে চেকপোস্ট বসিয়েছে। অপরাধীরা পলাতক থাকায় এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। তবে তাদের ধরতে পুলিশের কয়েকটি দল মাঠে কাজ করছে। আশা করি শীঘ্রই আসামীদের ধরতে সক্ষম হবো।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102