১১:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীর কালুখালীতে স্ত্রীকে ইট দিয়ে থেতলে হত্যার ঘটনায় স্বামী মো. আব্দুল মন্ডল ওরফে আব্দুল মিয়াকে (৩১) যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ-, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদ- দিয়েছে আদালত। সে কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের কোমরপুর গ্রামের রুহুল আমিন ওরফে নুরুল মন্ডলের ছেলে। মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে রাজবাড়ীর সিনিয়র দায়রা জজ মোসাম্মৎ জাকিয়া পারভিন এ রায় প্রদান করেন।

মামলা সুত্রে জানাগেছে, ভালোবেসে বিয়ে করেন আব্দুল মন্ডল ও রাশিদা বেগম। বিয়ের পর তাদের ঔরসে জন্ম নেয় ২টি ছেলে ও একটি মেয়ে। কিন্তু মেয়ের বাবার কাছ থেকে বন্ধকী রাখা জমি নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হয় দুজনের মধ্যে। এ বিরোধের জের ধরে ২০২৩ সালের ৬ জুন দিবাগত রাতে কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের কোমরপুর গ্রামের আব্দুল মন্ডল তার স্ত্রী তিন সন্তানের জননী রাশিদা বেগমকে (২৫) ইট দিয়ে থেতলে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় তার বোন আসমা বেগম বাদী হয়ে পরদিন ৭জুন কালুখালী থানায় বোন জামাই আব্দুল মন্ডলকে অভিযুক্ত করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

রাজবাড়ী জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এ্যাডভোকেট উজির আলী শেখ জানান, মামলাটি দ্রুত স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে সল্প সময়ের মধ্যে রায় হয়েছে। রায়ে স্বামী আব্দুল মন্ডল ওরফে আব্দুল মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদ-, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদ- প্রদান করা হয়। এভাবে মামলার রায় দ্রুত সময়ে হলে মামলা জট হ্রাস পাবে বলেও মনে করেন তিনি।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সোহেল ও সম্পাদক কামরুল পুনরায় নির্বাচিত

রাজবাড়ীতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

পোস্ট হয়েছেঃ ০৮:৫৩:১২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীর কালুখালীতে স্ত্রীকে ইট দিয়ে থেতলে হত্যার ঘটনায় স্বামী মো. আব্দুল মন্ডল ওরফে আব্দুল মিয়াকে (৩১) যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ-, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদ- দিয়েছে আদালত। সে কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের কোমরপুর গ্রামের রুহুল আমিন ওরফে নুরুল মন্ডলের ছেলে। মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে রাজবাড়ীর সিনিয়র দায়রা জজ মোসাম্মৎ জাকিয়া পারভিন এ রায় প্রদান করেন।

মামলা সুত্রে জানাগেছে, ভালোবেসে বিয়ে করেন আব্দুল মন্ডল ও রাশিদা বেগম। বিয়ের পর তাদের ঔরসে জন্ম নেয় ২টি ছেলে ও একটি মেয়ে। কিন্তু মেয়ের বাবার কাছ থেকে বন্ধকী রাখা জমি নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হয় দুজনের মধ্যে। এ বিরোধের জের ধরে ২০২৩ সালের ৬ জুন দিবাগত রাতে কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের কোমরপুর গ্রামের আব্দুল মন্ডল তার স্ত্রী তিন সন্তানের জননী রাশিদা বেগমকে (২৫) ইট দিয়ে থেতলে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় তার বোন আসমা বেগম বাদী হয়ে পরদিন ৭জুন কালুখালী থানায় বোন জামাই আব্দুল মন্ডলকে অভিযুক্ত করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

রাজবাড়ী জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এ্যাডভোকেট উজির আলী শেখ জানান, মামলাটি দ্রুত স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে সল্প সময়ের মধ্যে রায় হয়েছে। রায়ে স্বামী আব্দুল মন্ডল ওরফে আব্দুল মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদ-, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদ- প্রদান করা হয়। এভাবে মামলার রায় দ্রুত সময়ে হলে মামলা জট হ্রাস পাবে বলেও মনে করেন তিনি।