০৩:৩৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গোয়ালন্দে ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত, কমিটি ঘোষণা হবে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে

মইনুল হক মৃধাঃ বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ গোয়ালন্দ উপজেলা শাখার বার্ষিক সম্মেলন- ২০২৪ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে গোয়ালন্দ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফকির মহিউদ্দিন আনসার ক্লাব মাঠে  চত্বরে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। তবে সম্মেলনে কমিটি ঘোষণা করা হয়নি। প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে কমিটি ঘোষণার কথা জানানো হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. তুহিন দেওয়ানের সভাপতিত্বে কোরআন থেকে তিলাওয়াত ও জাতীয় সংগীত পরিবেশন শেষে উদ্বোধন ঘোষণা করেন রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. শাহিন শেখ।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবির হোসেন রিদয় এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজবাড়ী- ২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জিল্লুল হাকিম (এমপি)। সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তফা মুন্সী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব ঘোষ, গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম মন্ডল, গোয়ালন্দ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম সুজ্জল, জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কাজী রাকিবুল ইসলাম শান্তুনু, জেলা যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী কানিজ ফাতেমা চৈতী, রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাকারিয়া মাসুদ রাজীব, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এরশাদ প্রমুখ।

গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্যে রাখেন রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রী মো. জিল্লুল হাকিম বলেন, রাজবাড়ী এই প্রথম একজন পূর্ণ মন্ত্রীত্ব পেয়েছে৷ আমাকে নেত্রী মূল্যায়ণ করেছেন, আমার উপর আস্থা রেখেছেন, এজন্য আমাকে মন্ত্রীত্ব দিয়েছেন। আমি মনে করি সবার দোয়া ও সমর্থনের কারনেই আজ আমি রেলপথ মন্ত্রী। এজন্য রাজবাড়ীবাসীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আমার রাজনীতির জন্ম কিন্তু ছাত্রলীগের মাধ্যমে। নেতা হতে চাইলেই কিন্তু নেতা হওয়া যায়না। নেতা হওয়ার জন্য নিজেকে উপযুক্ত করতে হয়। যাদের বয়স পার হয়ে গেছে ছাত্রলীগের নীতিমালা অনুযায়ী সে পদ পাবে না। তাকে এমনিতে সরে যাওয়া উচিত, যেন ঝামেলা সৃষ্টি না হয়। যাদের নামে মামলা আছে তারা নেতা হতে পারবে না। ছাত্রলীগের নেতা হতে হলে তাকে নির্মল চরিত্রের অধিকারী হতে হবে। তাই আগামী দিনে যারা নেতৃত্বে আসবে তারা সুশৃঙ্খলভাবে দল পরিচালনা করতে হবে। আর যারা আসতে পারবে না তারা হতাশ হলে চলবে না। তাদের দলের পিছনে লেগে থাকতে হবে।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি, সম্মানিত অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাশীদের জমা দেয়া জীবন বৃত্তান্ত ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন কার্যক্রম বিবেচনা করে রাজবাড়ী জেলা হতে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পরবর্তীতে কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সোহেল ও সম্পাদক কামরুল পুনরায় নির্বাচিত

গোয়ালন্দে ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত, কমিটি ঘোষণা হবে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে

পোস্ট হয়েছেঃ ০৯:৩৩:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

মইনুল হক মৃধাঃ বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ গোয়ালন্দ উপজেলা শাখার বার্ষিক সম্মেলন- ২০২৪ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে গোয়ালন্দ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফকির মহিউদ্দিন আনসার ক্লাব মাঠে  চত্বরে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। তবে সম্মেলনে কমিটি ঘোষণা করা হয়নি। প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে কমিটি ঘোষণার কথা জানানো হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. তুহিন দেওয়ানের সভাপতিত্বে কোরআন থেকে তিলাওয়াত ও জাতীয় সংগীত পরিবেশন শেষে উদ্বোধন ঘোষণা করেন রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. শাহিন শেখ।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবির হোসেন রিদয় এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজবাড়ী- ২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জিল্লুল হাকিম (এমপি)। সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তফা মুন্সী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব ঘোষ, গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম মন্ডল, গোয়ালন্দ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম সুজ্জল, জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কাজী রাকিবুল ইসলাম শান্তুনু, জেলা যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী কানিজ ফাতেমা চৈতী, রাজবাড়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাকারিয়া মাসুদ রাজীব, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এরশাদ প্রমুখ।

গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্যে রাখেন রাজবাড়ী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রী মো. জিল্লুল হাকিম বলেন, রাজবাড়ী এই প্রথম একজন পূর্ণ মন্ত্রীত্ব পেয়েছে৷ আমাকে নেত্রী মূল্যায়ণ করেছেন, আমার উপর আস্থা রেখেছেন, এজন্য আমাকে মন্ত্রীত্ব দিয়েছেন। আমি মনে করি সবার দোয়া ও সমর্থনের কারনেই আজ আমি রেলপথ মন্ত্রী। এজন্য রাজবাড়ীবাসীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আমার রাজনীতির জন্ম কিন্তু ছাত্রলীগের মাধ্যমে। নেতা হতে চাইলেই কিন্তু নেতা হওয়া যায়না। নেতা হওয়ার জন্য নিজেকে উপযুক্ত করতে হয়। যাদের বয়স পার হয়ে গেছে ছাত্রলীগের নীতিমালা অনুযায়ী সে পদ পাবে না। তাকে এমনিতে সরে যাওয়া উচিত, যেন ঝামেলা সৃষ্টি না হয়। যাদের নামে মামলা আছে তারা নেতা হতে পারবে না। ছাত্রলীগের নেতা হতে হলে তাকে নির্মল চরিত্রের অধিকারী হতে হবে। তাই আগামী দিনে যারা নেতৃত্বে আসবে তারা সুশৃঙ্খলভাবে দল পরিচালনা করতে হবে। আর যারা আসতে পারবে না তারা হতাশ হলে চলবে না। তাদের দলের পিছনে লেগে থাকতে হবে।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি, সম্মানিত অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ গোয়ালন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাশীদের জমা দেয়া জীবন বৃত্তান্ত ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন কার্যক্রম বিবেচনা করে রাজবাড়ী জেলা হতে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পরবর্তীতে কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়।