September 18, 2021, 7:11 am

পদ্মা নদীতে ২২ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের ২৫ কেজির বাগাড় মাছ আটক

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, নভেম্বর ২০, ২০২০
  • 22 Time View
শেয়ার করুনঃ

হেলাল মাহমুদ/মইন মৃধাঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার বাহির চর দৌলতদিয়ার পদ্মা নদীতে জেলেদের জালে ২৫ কেজি ওজনের একটি বড় বাগাড় মাছ ধরা পড়েছে। মাছটি স্থানীয় বাজারের এক মৎস্য ব্যবসায়ী ২২ হাজার ৫০০ টাকায় কিনে নেন। জেলেরা জালে এতবড় মাছ পাওয়ায় সবাই আনন্দিত। এ ধরনের বড় মাছ সংরক্ষণের দাবী জানিয়েছে মৎস্য বিভাগ।

ব্যবসায়ীরা জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দৌলতদিয়া দুলাল বেপারী পাড়ার ওয়াছেল বেপারী, আক্কাছ বেপারী, বাবু বেপারীসহ কয়েকজন নদীতে মাছ ধরতে যায়। রাতভর পদ্মার দৌলতদিয়া ফেরিঘাট সহ আশপাশ এলাকায় বের জাল ফেলে মাছ না পাওয়ায় হতাশ হন। শুক্রবার ভোরে বাহির চর দৌলতদিয়া এলাকায় বের জাল ফেলে অপেক্ষা করতে থাকেন। জাল তুলে নৌকায় ওঠানার সময় বড় ধরনের ঝাকি দিলে বুঝতে বাকি থাকে না বড় মাছ আটকা পড়েছে। জাল গুটিয়ে নৌকায় তোলার শেষ পর্যায়ে ওয়াছেল বেপারী দেখতে পান বড় একটি বাগাড় আটকা পড়েছে। তখন সবার মুখে খুশির ঝিলিক ফুটে উঠে। মুহুর্তে পরিবেশ আনন্দে মুখরিত হয়ে ওঠে। দেরি না করে ওয়াছেল বেপারী মাছটি নিয়ে দৌলতদিয়াঘাট টার্মিনাল সংলগ্ন মাছ বাজারের মকু মোল্লার আড়তে যান। আড়তে থাকা মকু মোল্লার ছেলে রওশন মোল্লা ওজন দিয়ে দেখেন মাছটি প্রায় ২৫ কেজি। রওশন মোল্লা নিলামে মাছটির ডাক হাঁকতে থাকেন। বাজারে বড় মাছের সন্ধান পেয়ে বাড়ি থেকে দ্রুত ছুটে যান দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকার চাঁদনি-আরিফা মৎস্য আড়তের ব্যবসায়ী চান্দু মোল্লা। নিলামে তিনি অন্যান্যদের সাথে শরিক হয়ে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ৯০০ টাকা কেজি দরে কিনে নেন।

জেলে ওয়াছেল বেপারী জানান, এই মৌসুমে তিনি এতবড় মাছ প্রথমবার পেয়েছেন। এর আগে ছোট-বড় পাঙ্গাশ সহ বিভিন্ন ধরনের মাছ পেয়েছেন। তবে বাগাড় মাছ এর আগে তিনি এতবড় পাননি। বৃহস্পতিবার রাতভর বের জাল দিয়ে কয়েকটি খ্যাপ দিয়ে মাছ না পেয়ে যখন সবাই হতাশ হচ্ছিলেন। কিন্তু রাত শেষে ভোরের দিকে জালে এতবড় মাছ আটকা পড়ায় সবার কষ্ট নিমিশেই দূর হয়ে যায়। এরকম মাছ মাঝেমধ্যে ধরা পড়লে আমাদের সবার পোষায়। পরে মাছটি ঘাটের মকু মোল্লার আড়তে নিয়ে গেলে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে চান্দু মোল্লা কিনে নেয়।

দৌলতদিয়ার ৫নম্বর ফেরিঘাট সংলগ্ন চাঁদনি-আরিফা মৎস্য আড়তের মালিক চান্দু মোল্লা বলেন, বাড়িতে থাকা অবস্থায় শুক্রবার ভোরে খবর পাই বাজারে বড় একটি বাগাড় মাছ উঠেছে। আর দেরি না করে দ্রুত বাজারে ছুটে গিয়ে নিলামে অংশ নেই। পরে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ৯০০ টাকা কেজি দরে ২২ হাজার ৫০০ টাকায় বাগাড় মাছটি কিনে নেই। মাছটি বর্তমানে ফেরিঘাটের পন্টুনের সাথে রশি দিয়ে বেধে রেখেছি। ঢাকার বিভিন্ন পরিচিত ব্যক্তিদের সাথে যোগাযোগ করছি। ২৫ হাজার টাকা হলেই বিক্রি করে দিব। প্রায় তিন মাস আগে ৩২ কেজি ওজনের আরো একটি বাগাড় মাছ কিনেছিলাম।

গোয়ালন্দ উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তা রেজাউল শরীফ বলেন, বর্তমানে মাঝে মধ্যে বড় পাঙ্গাশ, বাগাড় ও রুই মাছ ধরা পড়ছে। বড় মাছগুলি সংরক্ষণ করা গেলে সবচেয়ে ভালো হতো। বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদের মাসিক সমন্বয় সভায় পদ্মা নদীতে অভয়াশ্রম করার প্রস্তাব রেখেছি। এটি করতে পারলে দেশীয় প্রজাতির মাছের কোন অভাব থাকবে না। এই মৌসুমে এ ধরনের অনেক বড় মাছ পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102