August 8, 2022, 1:07 am
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে অবৈধ খননযন্ত্র ধ্বংস রাজবাড়ীতে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ থানায় মামলা দায়ের বিএনপি নেতা এ্যাডঃ আসলাম মিয়া অসুস্থ, সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা রাজবাড়ীতে শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গোয়ালন্দে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ গোয়ালন্দে যুবলীগের আয়োজনে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন গোয়ালন্দে নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মদিন পালন টাকা ছিনিয়ে নিতেই খুন করা হয় মানসিক ভারসাম্যহীন ভিক্ষুককে, অপর ভিক্ষুককে কুপিয়ে জখম গোয়ালন্দে চলন্ত ফেরি থেকে চার জুয়াড়ি গ্রেপ্তার, টাকা ও তাস জব্দ ক্যান্সারে আক্রান্ত আলিফের পাশে প্রথম আলো গোয়ালন্দ বন্ধুসভা

গোয়ালন্দে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় খননযন্ত্র ধ্বংস

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০২০
  • 91 Time View
শেয়ার করুনঃ
মইন মৃধাঃ রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার মরা পদ্মা নদী হতে অবৈধ স্যালো ইঞ্জিনের মাধ্যমে বালু উত্তোলন করায় খননযন্ত্রের শতাধিক পাইপ ধ্বংস করেছে স্থানীয় প্রশাসন।
সোমবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে গোয়ালন্দের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রফিকুল ইসলাম অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করা খননযন্ত্রের শতাধিক পাইপ ধ্বংস করেন। যার আথিক মূল্য প্রায় ২ লাখ টাকা। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ এর আগেও প্রসাশনের লোকজন অবৈধ খননযন্ত্র ধ্বংস করলেও কয়েক দিনের মধ্যে সেখানে নতুন করে বসিয়ে প্রভাবশালীরা নির্বিচারের বালু তুলে রমরমা বাণিজ্য করে।
জানা গেছে, গোয়ালন্দে মরা পদ্মা নদীর উজানচর ইউনিয়নের ৭ নং ফৈজদ্দিন মাতুব্বর পাড়া এলাকায় বেশ কিছুদিন ধরে স্যালো ইঞ্জিন দিয়ে বালু তুলছে স্থানীয় লাভলু ফকির, শমসের, জহিরুল মুন্সি, ইউসুফ সহ প্রভাবশালী কয়েক ব্যক্তি। এই বালু দীর্ঘ পাইপের মাধ্যমে পাশ্ববর্তী ফরিদপুর সদর উপজেলার গোয়ালটিলা নামক জায়গায় ফেলে বালুর স্তুপ করছেন। সেখান থেকে চড়া দামে ট্রাকে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করছে উত্তোলিত হওয়া বালু।এভাবে বালু উত্তোলনের ফলে হুমকির মুখে পড়েছে নদী পাড়ের মানুষেরা। তাছাড়া শুষ্ক মৌসুমে ওই এলাকায় বোরো ধানের চাষ করতেন জমির মালিকরা। প্রাণ ভয়ে তারা তাদের নাম প্রকাশ না করারও অনুরোধ করেছেন। অভিযুক্তদের মধ্যে লাভলু ফকিরের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি দাবি করেন, ড্রেজার মেশিনটি আমার নিজের। তবে সেটা আমি জহিরুল মুন্সির নিকট ভাড়া দিয়ে দিয়েছি। জহিরুল ফরিদপুর সীমান্তের মধ্যে তাদের নিজস্ব জমি ও শরীকদের জমি হতে বৈধভাবে মাটি কাটছে। ওই জমি সরকারি খাস নয়, ব্যক্তি মালিকানাধীন। এছাড়া আমরা কাউকে কোনরূপ হুমকি বা ভয়ভীতি দেখাইনি। এটা উদ্দেশ্যমূলক অভিযোগ।
এ প্রসঙ্গে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রফিকুল ইসলাম জানান, অবৈধভাবে মরা পদ্মা নদী থেকে বালু উত্তোলনের খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে ড্রেজার মেশিনের শতাধিক পাইপ ধ্বংস করা হয়েছে। এ কাজের সাথে জড়িতে কাউকে ধরতে না পাড়ায় তাদের শাস্তির আওতায় আনা সম্ভব হয়নি। এখন থেকে শুধু এখানে নয় উপজেলার কোথাও অবৈধভাবে কেউ বালু উত্তোলন করতে না পারে সে দিকে বিশেষ নজর রাখা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
DeveloperAsif
themesba-lates1749691102
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x