September 17, 2021, 7:44 am
Title :
রাজবাড়ীতে নদী তীর সংরক্ষণ কাজের ৫০ মিটার সিসি ব্লক বিলীন দৌলতদিয়া ঘাটে ওরস ফেরত গাড়ির চাপে লম্বা লাইন, দুর্ভোগ রাজবাড়ীতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযান, মাদকসহ গ্রেপ্তার ৩ পদ্মা নদীতে অবৈধভাবে মাটি খনন করায় ঝুঁকিতে রাস্তা-বসতভিটা বালিয়াকান্দিতে ইয়াবাবড়ি ও টাকা সহ দুই তরুণ গ্রেপ্তার মাঝ রাতে বিয়ে করলেন চিত্র নায়িকা মাহিয়া মাহি রাজবাড়ীতে হেরোইনসহ ট্রেন যাত্রী গ্রেপ্তার আইন শৃঙ্খলা সভাঃ “আমার ছেলে মদ-ই খেয়েছে, ডাকাতি তো করেনি”! দৌলতদিয়ায় মদ খেয়ে মাতলামী, ১১ মামলার আসামীসহ গ্রেপ্তার ৪ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রাণ ফিরে এসেছে, স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

কালুখালীতে বিলে মাছ ধরা নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে আহত ২৫, আশঙ্কাজনক ২জনকে ঢাকায় প্রেরণ

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, অক্টোবর ১৭, ২০২০
  • 52 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার সাওরাইল গ্রামে শনিবার স্থানীয় সাহেব আলী ও মুক্তার হোসেন নামের চাচাতো দুই ভাইয়ের মধ্যে বিলে মাছ ধরা ও বাঁধ দেয়া নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় গ্রুপের লোকজনের মধ্যে নারীসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে সাওরাইল বিশ্বাসবাড়ী সাতপুকুর মোড় নামক এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরপরই আহতদের পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে চিকিৎসা ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এছাড়া আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুইজনকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় কয়েকজন জানায়, সংঘর্ষে গুরুতর আহত ৭ জনকে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে চিকিৎসার পর ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। ফরিদপুরে রেফার করা রোগীদের মধ্যে রয়েছেন ইউনুস (৫৫), আব্দুর রাজ্জাক (৫৫), মজনু (৫২), মুক্তার হোসেন (৩০) ফেরদৌস (১৬), ওয়াজেদ আলী (৩৫) ও ফারুক (৫০)। এরমধ্যে মজনু ও ফারুককে আশঙ্কা জনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

পাংশা হাসপাতালে চিকিৎসাধীনরা হলেন, ওবায়দুল (৩২), আব্দুর রশিদ (৫০), নান্নু (৩০), শুকুর আলী (৫০), আল আমীন (২৬), ইমরুল (২০), নুজদার (৪৫), শহিদুল (৪০), রুমান (২১), ইউনুস মন্ডল (৫৫), আব্দুর রাজ্জাক (৫৫), নজরুল ইসলাম (৪০), দাউদ মন্ডল (৩০), আবু দাউদ (৫৫), আলাউদ্দিন (৩০), ডাবলু বিশ্বাস (১৫), সাদিয়া আফরিন (২৩), হাবিব (২০), শহিদুল ইসলাম (৩১) ও পলি বেগম (৩০)। আহতরা সবাই সাওরাইল গ্রামের বাসিন্দা। ধারোলো দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে অনেকের হাত, পা, মাথা, বুক, পেট ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে কাটা-ফাটা, জখম হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয়রা জানায়, সাহেব আলী ও মুক্তার হোসেন সর্ম্পকে আপন চাচাতো ভাই। এরা দুই ভাই স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমর্থিত একজন। অপরজন স্থানীয় ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সমর্থিত। বিরোধের কারণে তারা পৃথক সমাজভুক্ত হয়ে বাস করেন। সাহেব আলী সাওরাইলের আলমগীর বিশ্বাসের সমাজভুক্ত ও মুক্তার হোসেন একই গ্রামের সাদেক শেখের সমাজভুক্ত। শনিবার দুপুরে বিলে মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের সমর্থিত লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষে ছড়িয়ে পড়লে ২৫ জন আহত হন।

খবর পেয়ে সাওরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম ওরফে আলী ও সাওরাইল ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম সরোয়ার ঠান্ডু পাংশা হাসপাতালে তাদের খোঁজ খবর নেন।
পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসা কর্মকর্তা নিপা নন্দী সাংবাদিকদের জানান, আহত রোগীদের চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

কালুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেন, বিলকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি আ.লীগের সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে বিরোধ চলছে। বিরোধপূর্ণ জমিতে মাছ ধরা নিয়ে কয়েকদিন ধরে উত্তেজনা চলছিল। কয়েকদিন আগেও দুই পক্ষের লোকজনের সাথে বসে সমাধানের উদ্যোগ নেওয়া হয়। শনিবার দুপুরে ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম সরোয়ার ঠান্ডু সমর্থিত লোকজন প্রস্তুতি নিয়ে বিলে মাছ ধরতে যায়। খবর পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থিত লোকজন বাধা দিতে গেলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বেধে যায়। খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102