September 18, 2021, 8:17 am

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গোয়ালন্দের প্রথম নারী স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, আগস্ট ২৫, ২০২০
  • 38 Time View
শেয়ার করুনঃ

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নের হাউলি কেউটিল গ্রামের প্রয়াত অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক আব্দুল আজিজ শিকদার ওরফে আজিজ মাষ্টারের স্ত্রী, উপজেলার প্রথম নারী স্কুল শিক্ষক মমতাজ বেগম (৬৬) মঙ্গলবার বিকেলে নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি……রাজিউন)। তিনি অবসরপ্রাপ্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। সম্প্রতি করোনার উপসর্গ নিয়ে তাঁকে ফরিদপুরের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়। সোমবার তাঁর করোনা পজিটিভ হিসেবে রিপোর্ট আসে।

লেখক ও রাজনীতিবীদ রাজু শিকদার এবং দৈনিক সমকাল পত্রিকার গোয়ালন্দ প্রতিনিধি ও গোয়ালন্দ প্রেসক্লাব সভাপতি আসজাদ হোসেন আজু শিকদারের মা ছিলেন তিনি। অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে মঙ্গলবার (২৫ আগষ্ট) ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতিকালে নিজ বাড়িতে মৃত্যু বরণ করেন। মঙ্গলবার রাতেই নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

সাংবাদিক আজু শিকদার জানান, সম্প্রতি তাঁর মায়ের শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে ফরিদপুরের একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত রোববার তাঁর শরীর থেকে করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরদিন সোমবার করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়। করোনার আক্রান্তের সংবাদে তিনি বেশি দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হয়ে পড়েন। এ জন্য হাসপাতাল ছেড়ে বাড়িতে আসার আগ্রহ দেখায়। পরবর্তীতে শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হওয়ায় ফরিদপুর থেকে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেওয়ার উদ্দেশ্যে সোমবার নিজ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। এ জন্য গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ফরিদপুর থেকে একটি এ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে আনা হয়। বিকেল ৩ টার দিকে ঢাকায় নেওয়ার প্রস্তুতিকালে এ্যাম্বুলেন্সে তোলার আগেই তিনি নিজ বাড়িতে মৃত্যু বরণ করেন।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মরহুম মমতাজ বেগম গোয়ালন্দ উপজেলার প্রথম মহিলা শিক্ষক। ১৯৭২ সালে গোয়ালন্দ উপজেলায় প্রথম মহিলা শিক্ষক হিসেবে স্থানীয় বালিয়াকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। ২০১৩ সালে হাউলি কেউটিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে অবসর গ্রহণ করেন। একজন আদর্শ মা হিসেবে স্থানীয়ভাবে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ২০১৫ সালে তাঁকে উপজেলা পর্যায়ে সম্মাননা প্রদান করা হয়। তিনি দুই ছেলে, এক মেয়ে সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। গতকাল বাদ এশা নিজ বাড়িতে নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফনের সিদ্ধান্ত হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102