১২:২৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে শিক্ষক নুরুল ইসলাম এর বৃক্ষরোপন

জাকিব আহমেদ জ্যাক, ফরিদপুরঃ ফরিদপুরে এবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে প্রতিমাসে ভালো কাজ করা আলোকিত সেই স্কুল শিক্ষক ফরিদপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের রসায়ন শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহন করেছে। সোমবার সকালে তিনি ফরিদপুর শহরের দৃষ্টি নন্দন ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ সড়কের দুই পাশে ২৫টি কৃষ্ণচুড়া গাছ লাগিয়েছেন।

বেলা ১০টার দিকে শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম ফরিদপুর শহরের বায়তুল আমান সড়কের সরকারী টির্চাস ট্রেনিং কলেজ প্রাঙ্গন থেকে শুরু করে পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর পূর্বে ব্রীজ পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে প্রায় ৫০০ দেশী খেজুরের বীজ রোপন করেন।

শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সরকারীভাবে বৃক্ষরোপন কর্মসুচি চলছে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে বৃক্ষরোপন কর্মসুচির উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রীর অনুপ্রেরনায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। বছরব্যাপী ফলজ, বনজ ও ঔষুধী গাছ লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে।প্রতি মাসে একটি ভালো কাজ করে থাকেন যার সুনাম সবার মুখে।

তিনি বলেন, ভালো কাজের অংশ হিসেবে ফরিদপুর থেকে যখন দেশী খেজুরগাছ প্রায় বিলুপ্তি হতে চলেছে ঠিক তখনই তিনি খেজুরগাছ রক্ষা ও শহরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সড়কের রোড় ডিভাইডারে দুই হাজার দেশী খেজুরের বীজ রোপন করেন। ফরিদপুরের পদ্মাপাড়ে “দয়া করে নদীতে কেউ প্লাস্টিক বর্জ্য ফেলবেন না, নদী না বাচঁলে আমরা বাচবো নাঁ, নদী বাঁচলে আমরা বাঁচবো” এই শ্লোগান সম্বলিত দুটি স্থায়ী বিল বোর্ড স্থাপন করেছেন। মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ও নদীর দূষণ রক্ষার্থে তিনি ফরিদপুরের ধলার মোড় পদ্মানদীর পাড়ে ১টি ও ভাজন ডাঙ্গা ভুঁইয়া বাড়ীর ঘাট পদ্মানদীর পাড়ে ১টি বিলবোর্ড স্থাপন করেছেন। দেশে করোনার প্রভাবে যখন মানুষ কর্মহীন হয়ে পরে তখন তিনি ফরিদপুর শহরের দরিদ্র দিনমুজুর,রিক্সা চালক, চা বিক্রেতা, নরসুন্দর ও খেটে খাওয়া প্রতিবেশীদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেন। রিক্সা চালকদের সকালের নান্তা, রিক্সা চালক ও ভিক্ষুক মিলে অর্ধশত ব্যক্তির দুপুরে চাইনিজ খাইয়েছেন। দুঃস্থ্যদের মাঝে সেমাই, চিনি ও গুড়া দুধ বিতরণ করেছেন। শহরে রোপন করেছেন ২০টি কৃষ্ণচূড়া ও রাধাচূড়ার চাড়াসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে রোপন করেছেন ১ হাজার ১০০ তালের বীজ।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

ফরিদপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে শিক্ষক নুরুল ইসলাম এর বৃক্ষরোপন

পোস্ট হয়েছেঃ ১০:৩৩:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ জুলাই ২০২০

জাকিব আহমেদ জ্যাক, ফরিদপুরঃ ফরিদপুরে এবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে প্রতিমাসে ভালো কাজ করা আলোকিত সেই স্কুল শিক্ষক ফরিদপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের রসায়ন শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহন করেছে। সোমবার সকালে তিনি ফরিদপুর শহরের দৃষ্টি নন্দন ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ সড়কের দুই পাশে ২৫টি কৃষ্ণচুড়া গাছ লাগিয়েছেন।

বেলা ১০টার দিকে শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম ফরিদপুর শহরের বায়তুল আমান সড়কের সরকারী টির্চাস ট্রেনিং কলেজ প্রাঙ্গন থেকে শুরু করে পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর পূর্বে ব্রীজ পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে প্রায় ৫০০ দেশী খেজুরের বীজ রোপন করেন।

শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সরকারীভাবে বৃক্ষরোপন কর্মসুচি চলছে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে বৃক্ষরোপন কর্মসুচির উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রীর অনুপ্রেরনায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। বছরব্যাপী ফলজ, বনজ ও ঔষুধী গাছ লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে।প্রতি মাসে একটি ভালো কাজ করে থাকেন যার সুনাম সবার মুখে।

তিনি বলেন, ভালো কাজের অংশ হিসেবে ফরিদপুর থেকে যখন দেশী খেজুরগাছ প্রায় বিলুপ্তি হতে চলেছে ঠিক তখনই তিনি খেজুরগাছ রক্ষা ও শহরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সড়কের রোড় ডিভাইডারে দুই হাজার দেশী খেজুরের বীজ রোপন করেন। ফরিদপুরের পদ্মাপাড়ে “দয়া করে নদীতে কেউ প্লাস্টিক বর্জ্য ফেলবেন না, নদী না বাচঁলে আমরা বাচবো নাঁ, নদী বাঁচলে আমরা বাঁচবো” এই শ্লোগান সম্বলিত দুটি স্থায়ী বিল বোর্ড স্থাপন করেছেন। মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ও নদীর দূষণ রক্ষার্থে তিনি ফরিদপুরের ধলার মোড় পদ্মানদীর পাড়ে ১টি ও ভাজন ডাঙ্গা ভুঁইয়া বাড়ীর ঘাট পদ্মানদীর পাড়ে ১টি বিলবোর্ড স্থাপন করেছেন। দেশে করোনার প্রভাবে যখন মানুষ কর্মহীন হয়ে পরে তখন তিনি ফরিদপুর শহরের দরিদ্র দিনমুজুর,রিক্সা চালক, চা বিক্রেতা, নরসুন্দর ও খেটে খাওয়া প্রতিবেশীদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেন। রিক্সা চালকদের সকালের নান্তা, রিক্সা চালক ও ভিক্ষুক মিলে অর্ধশত ব্যক্তির দুপুরে চাইনিজ খাইয়েছেন। দুঃস্থ্যদের মাঝে সেমাই, চিনি ও গুড়া দুধ বিতরণ করেছেন। শহরে রোপন করেছেন ২০টি কৃষ্ণচূড়া ও রাধাচূড়ার চাড়াসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে রোপন করেছেন ১ হাজার ১০০ তালের বীজ।