০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে ছেলের বৌভাত করলেন বালিয়াকান্দি ইউএনও কার্যালয়ের অফিস সুপার

বিপ্লব বিশ্বাস, বালিয়াকান্দিঃ করোনা ভাইরাস সংক্রমনের ঝুঁকি উপেক্ষা ও সরকারী স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গন করে ছেলে আয়াতুল্লাহর বৌ ভাতের বড় অনুষ্ঠান করলেন রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ের অফিস সুপার (ও এস) এস এম আসলাম। শনিবার দুপুরে বালিয়াকান্দির বহরপুর ইউনিয়নের ইলিশকোল নিজ বাড়ীতে জাকজমকপূর্ণ এই বৌভাত অনুষ্ঠান করা হয়। সরকারী কর্মচারী সহ বিভিন্ন শ্রেণীর পেশার প্রায় পাঁচ’শ অতিথি এই বৌভাত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন।

শনিবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকাল পর্যন্ত বৌভাতের অনুষ্ঠান চলছিল। অনুষ্ঠান স্থলে কোন ধরনের সামাজিক দুরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছেনা। স্বাভাবিক সময়ের মতো অতিথিরা অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহন করেন। বাড়ীর ভিতরের প্যান্ডেলে পর্যাপ্ত আসন না থাকায় এসময় অন্তত অর্ধ শতাধিক মোটরসাইকেল, মাইক্রোবাস বা ব্যাটারীচালিত অটোরিক্সাযোগে আসা অতিথিদের বাড়ীর বাইরে ও ভিতরে অপেক্ষা করতে দেখা যায়।

যখন সারাদেশের মানুষ করোনা ভাইরাস সংক্রমনে মারাত্বক ঝুঁকির মধ্যে। ঠিক সেই মহুর্তে ইউএনও কার্যালয়ের অফিস সুপার এস এম আসলামের এ ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান করায় সবার মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ঘটনায় এস এম আসলামের বক্তব্য জানতে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ব্যাপারে কোন প্রকার মন্তব্য করতে রাজী হননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) একেএম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, আমার কাছে আসলাম তার ছেলের বিয়ের বিষয় বলেছিলেন। আমি তাকে পারিবারিক ভাবে বিয়ের কাজ সম্পন্ন করতে বলেছি। কিন্তু বড় পরিসরে বৌভাতের আয়োজন করে থাকলে বিধি মোতাবেক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে ছেলের বৌভাত করলেন বালিয়াকান্দি ইউএনও কার্যালয়ের অফিস সুপার

পোস্ট হয়েছেঃ ১১:৩৭:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০

বিপ্লব বিশ্বাস, বালিয়াকান্দিঃ করোনা ভাইরাস সংক্রমনের ঝুঁকি উপেক্ষা ও সরকারী স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গন করে ছেলে আয়াতুল্লাহর বৌ ভাতের বড় অনুষ্ঠান করলেন রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ের অফিস সুপার (ও এস) এস এম আসলাম। শনিবার দুপুরে বালিয়াকান্দির বহরপুর ইউনিয়নের ইলিশকোল নিজ বাড়ীতে জাকজমকপূর্ণ এই বৌভাত অনুষ্ঠান করা হয়। সরকারী কর্মচারী সহ বিভিন্ন শ্রেণীর পেশার প্রায় পাঁচ’শ অতিথি এই বৌভাত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন।

শনিবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকাল পর্যন্ত বৌভাতের অনুষ্ঠান চলছিল। অনুষ্ঠান স্থলে কোন ধরনের সামাজিক দুরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছেনা। স্বাভাবিক সময়ের মতো অতিথিরা অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহন করেন। বাড়ীর ভিতরের প্যান্ডেলে পর্যাপ্ত আসন না থাকায় এসময় অন্তত অর্ধ শতাধিক মোটরসাইকেল, মাইক্রোবাস বা ব্যাটারীচালিত অটোরিক্সাযোগে আসা অতিথিদের বাড়ীর বাইরে ও ভিতরে অপেক্ষা করতে দেখা যায়।

যখন সারাদেশের মানুষ করোনা ভাইরাস সংক্রমনে মারাত্বক ঝুঁকির মধ্যে। ঠিক সেই মহুর্তে ইউএনও কার্যালয়ের অফিস সুপার এস এম আসলামের এ ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান করায় সবার মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ঘটনায় এস এম আসলামের বক্তব্য জানতে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ব্যাপারে কোন প্রকার মন্তব্য করতে রাজী হননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) একেএম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, আমার কাছে আসলাম তার ছেলের বিয়ের বিষয় বলেছিলেন। আমি তাকে পারিবারিক ভাবে বিয়ের কাজ সম্পন্ন করতে বলেছি। কিন্তু বড় পরিসরে বৌভাতের আয়োজন করে থাকলে বিধি মোতাবেক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।