০৪:০৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গোয়ালন্দে আগুনে গোয়ালে থাকা গরুসহ রান্নাঘর ভষ্মিভূত

হেলাল মাহমুদঃ রোববার বিকেলে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড মাষ্টার পাড়ার সন্তোষ কুমার বিশ্বাসের বাড়িতে আগুন লেগে গোয়াল ঘরে থাকা গাভীন গরু অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। এছাড়া পরিবারের রান্না ঘর আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। গাভীন গরুটির আনুমানিক বাজার মূল্য ৮০ হাজার টাকা।

জানা যায়, রোববার (৫ জুলাই) বিকাল ৩টার দিকে সন্তোষ কুমার বিশ্বাসের স্ত্রী রান্না শেষ করে চুলার উপর কিছু খড়ি রেখে দিয়ে তার নিজের ঘরে যায়। ঘর থেকে বাইরে আসতেই দেখেন, রান্না ঘরের বাসের মাচার খড়িতে আগুন লেগে ধোঁয়া উঠছে। তখন তিনি রান্না ঘরে থাকা বিদ্যুৎতের সংযোগ বিছিন্ন করে দিয়ে চিৎকার করতে থাকলে আশেপাশের লোকজনা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। খবর পেয়ে দ্রুত গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশনের একটি টীম সেখানে হাজির হয়ে দেখেন স্থানীয় লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছে। পরে তারা বাধ্য হয়ে ফিরে আসে।

পৌরসভার স্থানীয় ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিজাম উদ্দিন সেখ বলেন, আমি একটু অন্য এলাকার অনুষ্ঠানে বাইরে আছি। তবে আগুন লেগে সন্তোষ কুমারের গাভী ও রান্নাঘর পুড়ে যাওয়ার বিষয়টি শুনেছি। এসে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের টীম লিডার আব্দুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমরা স্পটে যাওয়ার আগেই স্থানীয় প্রতিবেশিরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে প্রায় ৮০ হাজার টাকা মূল্যের একটি গাভীন গরু অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঝলছে যাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

গোয়ালন্দে আগুনে গোয়ালে থাকা গরুসহ রান্নাঘর ভষ্মিভূত

পোস্ট হয়েছেঃ ০৮:০৪:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ জুলাই ২০২০

হেলাল মাহমুদঃ রোববার বিকেলে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড মাষ্টার পাড়ার সন্তোষ কুমার বিশ্বাসের বাড়িতে আগুন লেগে গোয়াল ঘরে থাকা গাভীন গরু অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। এছাড়া পরিবারের রান্না ঘর আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। গাভীন গরুটির আনুমানিক বাজার মূল্য ৮০ হাজার টাকা।

জানা যায়, রোববার (৫ জুলাই) বিকাল ৩টার দিকে সন্তোষ কুমার বিশ্বাসের স্ত্রী রান্না শেষ করে চুলার উপর কিছু খড়ি রেখে দিয়ে তার নিজের ঘরে যায়। ঘর থেকে বাইরে আসতেই দেখেন, রান্না ঘরের বাসের মাচার খড়িতে আগুন লেগে ধোঁয়া উঠছে। তখন তিনি রান্না ঘরে থাকা বিদ্যুৎতের সংযোগ বিছিন্ন করে দিয়ে চিৎকার করতে থাকলে আশেপাশের লোকজনা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। খবর পেয়ে দ্রুত গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশনের একটি টীম সেখানে হাজির হয়ে দেখেন স্থানীয় লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছে। পরে তারা বাধ্য হয়ে ফিরে আসে।

পৌরসভার স্থানীয় ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিজাম উদ্দিন সেখ বলেন, আমি একটু অন্য এলাকার অনুষ্ঠানে বাইরে আছি। তবে আগুন লেগে সন্তোষ কুমারের গাভী ও রান্নাঘর পুড়ে যাওয়ার বিষয়টি শুনেছি। এসে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের টীম লিডার আব্দুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমরা স্পটে যাওয়ার আগেই স্থানীয় প্রতিবেশিরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে প্রায় ৮০ হাজার টাকা মূল্যের একটি গাভীন গরু অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঝলছে যাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।