০৯:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৩ অক্টোবর ২০২৩, ১৮ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বালিয়াকান্দিতে লকডাউন মানছে না সাধারন মানুষ, মোট আক্রান্ত ৫৮

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ১৬ জুন থেকে উপজেলার সদর ইউনিয়নকে ১২ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষনা করে উপজেলা প্রশাসন ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি। অথচ বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়নের রাস্তা, বাজারে মানুষের চলাচল দেখা গেছে আগের মত। নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে সাধারন মানুষ চলাচল করছে। লকডাউনের কোন রকম দৃশ্যই চোখে পরেনি উপজেলার বাজার ও রাস্তাঘাট গুলোতে।

বালিয়াকান্দিতে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৪ জন সহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮ জনে দাঁড়িয়েছে। তবে জেলার বাইরে থেকে নমুনা দিয়ে বালিয়াকান্দি উপজেলার আরো ৯ জন করোনা আক্রান্ত রয়েছেন।

লকডাউনের নির্দেশনায় উল্লেখ ছিল, এ উপজেলার সকল হাট বাজার, বন্ধ থাকবে। বাজারে শুধু জরুরী প্রয়োজনে যাওয়া যাবে এবং যানবাহন চলাচল করবে স্বাস্থ্য বিধি মেনে। অথচ কোন হাট বা বাজার আজ পর্যন্ত বন্ধ থাকতে দেখা যায়নি। মানুষ স্বাস্থ্য বিধির তোয়াক্কা না করে বাজার রাস্তা ঘাটে অবাধে চলাচল করতে দেখা গেছে। অবাধে চলতে দেখা গেছে যানবাহন গুলো কোন ধরনের বিধি নিষেধ না মেনেই। অনেকের মুখে ছিলনা কোন মাস্ক। এ কারনে বালিয়াকান্দিতে করোনা সংক্রমন ও আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

বালিয়াকান্দি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) একেএম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, সাধারন মানুষ বিশেষ প্রয়োজনে বাজারে আসছে না। তারা অপ্রয়োজনেও বাজার এবং রাস্তা ঘাটে চলাচল করছে। লকডাউন ও সামাজিক স্বাস্থ্য বিধি তারা মানছেন না। অবাধে চলাচল করছেন। এভাবে আসলে লকডাউন সাধারন মানুষ মানবেন না। তবে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন সাধারন ছুটি ঘোষনা হলে তখন পুরোপুরি সব কিছু বন্ধ করতে পারবেন বলে জানান।

রাজবাড়ী সিভিল সার্জন ডা. মো. নুরুল ইসলাম বলেন, রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল সহ পাঁচ উপজেলার স্বাস্থ্য কেন্দ্রে করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। নমুনা সংগ্রহ করতে কোন ধরনের ধীরগতি নেই এখানে। যারা নমুনা দিতে আসছেন, সবাই নমুনা দিতে পারছেন এ কেন্দ্র গুলোতে। তবে মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়েও নমুনা সংগ্রহের কাজ চলছে বলে জানান। রাজবাড়ীতে নতুন করে ২৪ ঘন্টায় আরো ১৯ জন করোনা আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়াল ৩৬২ জনে।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

রাজবাড়ীতে বিএনপি জামায়াতের সন্ত্রাস নৈরাজ্যের প্রতিবাদে আ.লীগের শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

বালিয়াকান্দিতে লকডাউন মানছে না সাধারন মানুষ, মোট আক্রান্ত ৫৮

পোস্ট হয়েছেঃ ০৭:৩৬:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ জুন ২০২০

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ১৬ জুন থেকে উপজেলার সদর ইউনিয়নকে ১২ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষনা করে উপজেলা প্রশাসন ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি। অথচ বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়নের রাস্তা, বাজারে মানুষের চলাচল দেখা গেছে আগের মত। নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে সাধারন মানুষ চলাচল করছে। লকডাউনের কোন রকম দৃশ্যই চোখে পরেনি উপজেলার বাজার ও রাস্তাঘাট গুলোতে।

বালিয়াকান্দিতে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৪ জন সহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮ জনে দাঁড়িয়েছে। তবে জেলার বাইরে থেকে নমুনা দিয়ে বালিয়াকান্দি উপজেলার আরো ৯ জন করোনা আক্রান্ত রয়েছেন।

লকডাউনের নির্দেশনায় উল্লেখ ছিল, এ উপজেলার সকল হাট বাজার, বন্ধ থাকবে। বাজারে শুধু জরুরী প্রয়োজনে যাওয়া যাবে এবং যানবাহন চলাচল করবে স্বাস্থ্য বিধি মেনে। অথচ কোন হাট বা বাজার আজ পর্যন্ত বন্ধ থাকতে দেখা যায়নি। মানুষ স্বাস্থ্য বিধির তোয়াক্কা না করে বাজার রাস্তা ঘাটে অবাধে চলাচল করতে দেখা গেছে। অবাধে চলতে দেখা গেছে যানবাহন গুলো কোন ধরনের বিধি নিষেধ না মেনেই। অনেকের মুখে ছিলনা কোন মাস্ক। এ কারনে বালিয়াকান্দিতে করোনা সংক্রমন ও আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

বালিয়াকান্দি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) একেএম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, সাধারন মানুষ বিশেষ প্রয়োজনে বাজারে আসছে না। তারা অপ্রয়োজনেও বাজার এবং রাস্তা ঘাটে চলাচল করছে। লকডাউন ও সামাজিক স্বাস্থ্য বিধি তারা মানছেন না। অবাধে চলাচল করছেন। এভাবে আসলে লকডাউন সাধারন মানুষ মানবেন না। তবে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন সাধারন ছুটি ঘোষনা হলে তখন পুরোপুরি সব কিছু বন্ধ করতে পারবেন বলে জানান।

রাজবাড়ী সিভিল সার্জন ডা. মো. নুরুল ইসলাম বলেন, রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল সহ পাঁচ উপজেলার স্বাস্থ্য কেন্দ্রে করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। নমুনা সংগ্রহ করতে কোন ধরনের ধীরগতি নেই এখানে। যারা নমুনা দিতে আসছেন, সবাই নমুনা দিতে পারছেন এ কেন্দ্র গুলোতে। তবে মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়েও নমুনা সংগ্রহের কাজ চলছে বলে জানান। রাজবাড়ীতে নতুন করে ২৪ ঘন্টায় আরো ১৯ জন করোনা আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়াল ৩৬২ জনে।