১১:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

তিন শতাধিক শ্রমিকের ঈদ বাজার দিল মোস্তফা মেটাল

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ করোনার কারনে অসহায় কারখানার শ্রমিকদের বেতন বোনাসের পাশাপাশি ঈদ বাজার দিয়েছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার উৎপাদনমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠান মোস্তফা মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড। শুক্রবার সন্ধ্যায় মোস্তফা মেটালের তিন শতাধিক শ্রমিকের বেতনের পাশাপাশি ঈদ বোনাস প্রদান করা হয়। একই সাথে শ্রমিকদের পরিবারের জন্য ঈদের খাদ্য সামগ্রীর বাজার তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচর মোকবুলের দোকান এলাকায় স্থাপিত মোস্তফা মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এর কারখানা চত্বরে শ্রমিকদের বেতন-বোনাসের পাশাপাশি ঈদ বাজার হিসেবে চাউল, চিনি, দুই রকমের সেমাই, গুড়া দুধ সহ আনুসাঙ্গিক মসলাও দেওয়া হয়। এসব ঈদ বাজার সামগ্রী তুলে দেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মো. মোস্তফা মুন্সী, পরিচালক মো. সেলিম মুন্সী সহ প্রতিষ্ঠানের উর্দ্বোতন কর্মকর্তাগন প্রমূখ।

এসময় প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক মো. সেলিম মুন্সী বলেন, করোনার কারণে দেশের অনেক শিল্প প্রতিষ্ঠান প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। আবার অনেক প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের বোনাস তো দূরের কথা বেতন দিতে পারছেন না। আল্লাহর অশেষ কৃপায় আমরা তাদের ন্যায্য পাওনা বেতনের পাশাপাশি বোনাসসহ ঈদ বাজার তুলে দিয়েছি। এসময় প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে করোনাকালীন সময় সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করার আহ্বান জানান।

সেলিম মুন্সী আরো বলেন, গত একটি মাস পবিত্র রমযান উপলক্ষে মোস্তফা মেটালের উদ্যোগে রমযানের শুরু থেকে অসহায় ছিন্নমূল প্রায় ৩০০ মানুষের প্রতিদিন ইফতারির ব্যবস্থা করা হয়েছে। তার আগে প্রায় ১০ হাজার অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ইনশাআল্লাহ করোনা কালিন সময় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে সামর্থ অনুযায়ী মানুষের পাশে থাকবো।

প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা মুন্সী শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারাই হচ্ছেন কোম্পানীর প্রাণ, চালিকা শক্তি। আপনারা ভালো থাকলে প্রতিষ্ঠান ভালো থাকবে। আর প্রতিষ্ঠান ভালো থাকলে আমরাও ভালো থাকবো। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন। সবাইকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে সতকর্তার সাথে ঈদ উদযাপনের আহ্বান জানান।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

তিন শতাধিক শ্রমিকের ঈদ বাজার দিল মোস্তফা মেটাল

পোস্ট হয়েছেঃ ১১:১৪:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মে ২০২০

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ করোনার কারনে অসহায় কারখানার শ্রমিকদের বেতন বোনাসের পাশাপাশি ঈদ বাজার দিয়েছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার উৎপাদনমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠান মোস্তফা মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড। শুক্রবার সন্ধ্যায় মোস্তফা মেটালের তিন শতাধিক শ্রমিকের বেতনের পাশাপাশি ঈদ বোনাস প্রদান করা হয়। একই সাথে শ্রমিকদের পরিবারের জন্য ঈদের খাদ্য সামগ্রীর বাজার তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচর মোকবুলের দোকান এলাকায় স্থাপিত মোস্তফা মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এর কারখানা চত্বরে শ্রমিকদের বেতন-বোনাসের পাশাপাশি ঈদ বাজার হিসেবে চাউল, চিনি, দুই রকমের সেমাই, গুড়া দুধ সহ আনুসাঙ্গিক মসলাও দেওয়া হয়। এসব ঈদ বাজার সামগ্রী তুলে দেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মো. মোস্তফা মুন্সী, পরিচালক মো. সেলিম মুন্সী সহ প্রতিষ্ঠানের উর্দ্বোতন কর্মকর্তাগন প্রমূখ।

এসময় প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক মো. সেলিম মুন্সী বলেন, করোনার কারণে দেশের অনেক শিল্প প্রতিষ্ঠান প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। আবার অনেক প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের বোনাস তো দূরের কথা বেতন দিতে পারছেন না। আল্লাহর অশেষ কৃপায় আমরা তাদের ন্যায্য পাওনা বেতনের পাশাপাশি বোনাসসহ ঈদ বাজার তুলে দিয়েছি। এসময় প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে করোনাকালীন সময় সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করার আহ্বান জানান।

সেলিম মুন্সী আরো বলেন, গত একটি মাস পবিত্র রমযান উপলক্ষে মোস্তফা মেটালের উদ্যোগে রমযানের শুরু থেকে অসহায় ছিন্নমূল প্রায় ৩০০ মানুষের প্রতিদিন ইফতারির ব্যবস্থা করা হয়েছে। তার আগে প্রায় ১০ হাজার অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ইনশাআল্লাহ করোনা কালিন সময় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে সামর্থ অনুযায়ী মানুষের পাশে থাকবো।

প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা মুন্সী শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারাই হচ্ছেন কোম্পানীর প্রাণ, চালিকা শক্তি। আপনারা ভালো থাকলে প্রতিষ্ঠান ভালো থাকবে। আর প্রতিষ্ঠান ভালো থাকলে আমরাও ভালো থাকবো। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন। সবাইকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে সতকর্তার সাথে ঈদ উদযাপনের আহ্বান জানান।