১১:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বেতনের টাকায় অসহায় মানুষের চাল দিলেন গোয়ালন্দের এসিল্যান্ড

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া ও অসহায় অতি দরিদ্র মানুষের জন্য নিজের বেতনের টাকা থেকে চাল কিনে দিচ্ছেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল-মামুন। গত মার্চ মাসের বেতনের টাকা দিয়ে প্রায় দেড় টন চাল কিনে তিনি নিজেই বিতরণ কাজ শুরু করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারিভাবে সারাদেশে জনসমাগম বন্ধে লকডাউন ঘোষনা করা হয়। এরপর থেকে হাজারো মানুষ কর্মহীন হয়ে বেকার হয়ে পড়ে। মানবেতরভাবে তারা দিন পার করতে থাকে। এসব মানুষের মাঝে প্রতিদিন সরকারিভাবে মানবিক সহযোগিতা পৌছে দিতে গিয়ে উপজেলা প্রশাসন প্রতিদিন নিত্য নতুন কিছু আবিস্কার করছেন। শহর ছেড়ে প্রত্যন্ত অঞ্চলের অনেক মানুষ নানা দুর্দাশার মধ্যে দিন পার করছে। এ অনুভুতির জায়গা থেকে নিজের সামর্থের জায়গা থেকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ব্যক্তিগত ভাবে এগিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেন। দেড়ি না করে তিনি গত মার্চ মাসের বেতনের টাকা দিয়ে কিনে ফেলেন প্রায় দেড় টন চাল। পরিবার প্রতি অবস্থা বুঝে নিজেই প্রয়োজন মাফিক ৫ কেজি থেকে ১০ কেজি করে চাল ও নগদ ১০০ টাকা করে বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছেন। গতকাল বুধবার পর্যন্ত তিনি ২০০ পরিবারের মাঝে চাল দিয়েছেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেন, সরকারি নির্দেশনা পালন করতে প্রতিদিন রাত-দিন ছুটতে হচ্ছে শহর থেকে গ্রামে। সরকারি মানবিক সহায়তা পৌছে দিতে গিয়েও দেখা মিলছে অনেক অসহায় মানুষের মুখ। তাই সরকারি সাহায্যের পাশাপাশি নিজের বেতনের টাকা দিয়ে চাল কিনে কয়েকদিন ধরে পরিবারের অবস্থা বুঝে তিনি নিজেই বাড়ি বাড়ি পৌছে দিচ্ছেন চাল। সেই সাথে নগদ ১০০ টাকা দিচ্ছেন। এই চাল ও টাকা তেমন কিছু না। তারপর অন্তত তিনটি দিন তারা পেটভরে খেতে তো পারবেন। আমি মনে করি এই মহাদুর্দিনে সামর্থ্যবান সবার এগিয়ে আসা দরকার।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

বেতনের টাকায় অসহায় মানুষের চাল দিলেন গোয়ালন্দের এসিল্যান্ড

পোস্ট হয়েছেঃ ০৪:২৮:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ এপ্রিল ২০২০

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া ও অসহায় অতি দরিদ্র মানুষের জন্য নিজের বেতনের টাকা থেকে চাল কিনে দিচ্ছেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল-মামুন। গত মার্চ মাসের বেতনের টাকা দিয়ে প্রায় দেড় টন চাল কিনে তিনি নিজেই বিতরণ কাজ শুরু করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারিভাবে সারাদেশে জনসমাগম বন্ধে লকডাউন ঘোষনা করা হয়। এরপর থেকে হাজারো মানুষ কর্মহীন হয়ে বেকার হয়ে পড়ে। মানবেতরভাবে তারা দিন পার করতে থাকে। এসব মানুষের মাঝে প্রতিদিন সরকারিভাবে মানবিক সহযোগিতা পৌছে দিতে গিয়ে উপজেলা প্রশাসন প্রতিদিন নিত্য নতুন কিছু আবিস্কার করছেন। শহর ছেড়ে প্রত্যন্ত অঞ্চলের অনেক মানুষ নানা দুর্দাশার মধ্যে দিন পার করছে। এ অনুভুতির জায়গা থেকে নিজের সামর্থের জায়গা থেকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ব্যক্তিগত ভাবে এগিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেন। দেড়ি না করে তিনি গত মার্চ মাসের বেতনের টাকা দিয়ে কিনে ফেলেন প্রায় দেড় টন চাল। পরিবার প্রতি অবস্থা বুঝে নিজেই প্রয়োজন মাফিক ৫ কেজি থেকে ১০ কেজি করে চাল ও নগদ ১০০ টাকা করে বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছেন। গতকাল বুধবার পর্যন্ত তিনি ২০০ পরিবারের মাঝে চাল দিয়েছেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল-মামুন বলেন, সরকারি নির্দেশনা পালন করতে প্রতিদিন রাত-দিন ছুটতে হচ্ছে শহর থেকে গ্রামে। সরকারি মানবিক সহায়তা পৌছে দিতে গিয়েও দেখা মিলছে অনেক অসহায় মানুষের মুখ। তাই সরকারি সাহায্যের পাশাপাশি নিজের বেতনের টাকা দিয়ে চাল কিনে কয়েকদিন ধরে পরিবারের অবস্থা বুঝে তিনি নিজেই বাড়ি বাড়ি পৌছে দিচ্ছেন চাল। সেই সাথে নগদ ১০০ টাকা দিচ্ছেন। এই চাল ও টাকা তেমন কিছু না। তারপর অন্তত তিনটি দিন তারা পেটভরে খেতে তো পারবেন। আমি মনে করি এই মহাদুর্দিনে সামর্থ্যবান সবার এগিয়ে আসা দরকার।