September 18, 2021, 6:57 am

গোয়ালন্দে লকডাউনের মধ্যেও মানুষ ছুটছে, বাজারে ভিড়

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, এপ্রিল ২২, ২০২০
  • 37 Time View
শেয়ার করুনঃ

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে রাজবাড়ী জেলা ১০ দিনের লকডাউন মঙ্গলবার রাতে শেষ হয়েছে। কিন্তু পরিস্থিতির কোন উন্নতি না হওয়ায় জেলা প্রশাসন এবার অনির্দিষ্ট কালের জন্য লক ডাউন ঘোষণা করেছে। মঙ্গলবার জেলা প্রশাসন গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

রাজবাড়ী জেলাকে লকডাউন করা হলেও আজ বুধবার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে ছোট-খাটো যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়। আবার কারো কারো বিশেষ সুরক্ষার পোষাক (পিপিই) পড়ে মোটরসাইকেলে করে চলাচল করতে দেখা যায়। ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা, নসিমন এমনকি মোটরসাইকেলে করে অনেকে ছুটে চলছেন। আবার কেউ কেউ ঢাকামুখি যেতে না পেরে বিপাকে পড়েন। এ ছাড়া লক ডাউনের মধ্যে গোয়ালন্দ বাজারে মানুষের সমাগম ছিল চোখে পড়ার মতো। সাপ্তাহিক হাটের দিন থাকায় সকাল থেকেই মানুষ ভিড় করতে থাকে।

বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ের সামনে বসে কান্না করছিলেন আব্দুল আউয়াল নামের এক ব্যক্তিগত গাড়ি চালক। তিনি বলেন, সারাদেশে লকডাউনের কারণে কয়েকদিন ধরে ভাড়ায় চালিত ব্যক্তিগত গাড়ি চালাতে পারছেন না। সংসারের খরচ মেটাতে তিনি উপায় না পেয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অনেক অনুরোধের পর সন্তান সম্ভাবা নারী ও তার পরিবার নিয়ে ফরিদপুরের পুকুরিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। রাত একটার দিকে তাদেরকে বাড়িতে নামিয়ে দিয়ে ভোর হয়ে যাওয়ায় একটু বিশ্রাম নিয়ে বুধবারে সকালে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে বিপাকে পড়েন। উপজেলা প্রশাসনের কোন অনুমোতি ছাড়া সাধারণ গাড়ি পার হওয়ার সুযোগ নেই। সহজে ফেরিতে ওঠার অনুমোতি না মেলায় তিনি দীর্ঘক্ষণ বসে আছেন। এসময় তিনি নদী পাড়ি দিতে পারবেন কি না এ নিযে দুশ্চিন্তার মধ্যে পড়ায় কান্নায় ভেঙে পড়েন।

এদিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে প্রকাশিত গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, লকডাউন চলাকালে জনসাধারণ প্রবেশে এবং বের হওয়ার ক্ষেত্রে বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এ সময় জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়ক ও নৌপথে অন্য জেলার কেউ এই জেলায় প্রবেশ করতে পারবে না আবার কেউ যেতেও পারবে না।

অথচ এমন পরিস্থিতির মধ্যে গতকাল গোয়ালন্দ বাজার থেকে মানুষের প্রচন্ড ভিড় পড়ে যায়। এর আগে ভিড় ঠেকাতে ১২ এপ্রিল কাঁচা বাজার ও মাছ বাজারকে স্থানান্তর করে সরকারি গোয়ালন্দ কামরুল ইসলাম কলেজ মাঠে সরিয়ে নেয়। এরপরও মানুষের ভিড় কমছে না। বুধবার এমন পরিস্থিতির খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর সমন্বয়ে একটি দল বাজার এলাকায় অভিযানে নামে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গাড়ি থেকে মানু এ গলি থেকে সে গলিতে লুকিয়ে পড়ে। এভাবে অনেকটা লুকোচুরি খেলা চলতে থাকে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল-মামুনের নেতৃত্বে সেনাবাহিনী ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা বাজার ব্যবস্থাপনা পর্যবেক্ষণ করে। এর আগে মানুষের ভিড় ঠেকাতে বাজারের প্রতিটি অলিগলিতে বাঁশ দিয়ে আটকে দেওয়া হয়। এরপর মানুষের ভিড় থাকায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ধাওয়া দিতে থাকে। পরবর্তীতে মানুষের অনেকটা কমে যায়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102