০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নিখোঁজের ১৫ ঘন্টা পর পদ্মা নদী থেকে তরুণের লাশ উদ্ধার (ভিডিও)

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট পদ্মা নদীতে পড়ে নিখোঁজের ১৫ ঘন্টা পর সোমবার সকালে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দল আশিক ফকির (১৯) নামের তরুণের লাশ উদ্ধার করেছে। সে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ড বদন মৃধার পাড়ার ইদ্রিস ফকিরের ছেলে। রোববার বিকেলে সে দৌলতদিয়ার ৪নম্বর ফেরি ঘাটে বসে থাকা অবস্থায় অসুস্থ্য হয়ে পড়লে অসাবধানতা বশত নদীতে পড়ে নিখোঁজ হয়।

লাশ উদ্ধারের পর রোববার নিহত আশিক ফকিরের বাবা ইদ্রিস ফকির জানান, তাঁর তিন ছেলের মধ্যে আশিক দ্বিতীয়। করোনা পরিস্থিতির কারণে সে বাড়িতেই আবদ্ধ ছিল। বেশ কয়েকদিন বাড়িতে থাকার পর রোববার বিকেলে ফেরি ঘাটে একটু ঘুরতে বের হওয়ার কথা জানিয়ে বেলা তিনটার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়। এর ঘন্টা খানেক পর বিকেল চারটার দিকে খবর আসে আশিক পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয়েছে। আশিক কিছুটা অসুস্থ্য প্রকৃতির ছিল। মাথা ঘুরে পড়ে যাওয়ায় সে আর উঠতে পারেনি। এছাড়া সে দৌলতদিয়া ঘাট টার্মিনাল এলাকার একটি ওয়ার্কশপে শ্রমিকের কাজ করতো।


তিনি আরো বলেন, খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ফেরি ঘাটে গিয়ে খোঁজ করতে থাকি। অনেকক্ষণ সন্ধান করেও না পেয়ে গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সকে খবর দেই। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ফেরি ঘাটে পৌছলেও তারা উদ্ধার অভিযান না চালিয়ে ফিরে আসে। উপায় না পেয়ে স্থানীয় লোকজনের সাথে করে আমরা অনেক রাত পর্যন্ত সন্ধান করে না পেয়ে বাড়ি ফিরে যায়।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর ষ্টেশন মাষ্টার আব্দুর রহমান বলেন, রোববার বিকেলের দিকে ওই তরুণ নিখোঁজ হলেও আমাদেরকে সন্ধ্যার দিকে খবর দেয়। রাত হওয়ায় আমাদের পক্ষে উদ্ধার অভিযান চালানো সম্ভব হয়নি। এছাড়া ডুবুরি না থাকায় মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ষ্টেশনে ডুবুরি দলকে খবর দিয়ে ফের সোমবার সকাল আটটা থেকে উদ্ধার অভিযান শুরু করি। বেলা সাড়ে দশটার দিকে চার নম্বর ফেরি ঘাট পন্টুনের পাশে ডুবন্ত অবস্থায় ডুবুরি দল নিখোঁজ আশিকের লাশ উদ্ধার করে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল-তায়াবীর জানান, ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল নিখোঁজ তরুণের লাশ উদ্ধার করেছে। পরিবার থেকে লাশের বিনা ময়না তদন্তে দাফনের জন্য আবেদন করায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

নিখোঁজের ১৫ ঘন্টা পর পদ্মা নদী থেকে তরুণের লাশ উদ্ধার (ভিডিও)

পোস্ট হয়েছেঃ ০২:৩৮:৩৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ এপ্রিল ২০২০

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট পদ্মা নদীতে পড়ে নিখোঁজের ১৫ ঘন্টা পর সোমবার সকালে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দল আশিক ফকির (১৯) নামের তরুণের লাশ উদ্ধার করেছে। সে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ড বদন মৃধার পাড়ার ইদ্রিস ফকিরের ছেলে। রোববার বিকেলে সে দৌলতদিয়ার ৪নম্বর ফেরি ঘাটে বসে থাকা অবস্থায় অসুস্থ্য হয়ে পড়লে অসাবধানতা বশত নদীতে পড়ে নিখোঁজ হয়।

লাশ উদ্ধারের পর রোববার নিহত আশিক ফকিরের বাবা ইদ্রিস ফকির জানান, তাঁর তিন ছেলের মধ্যে আশিক দ্বিতীয়। করোনা পরিস্থিতির কারণে সে বাড়িতেই আবদ্ধ ছিল। বেশ কয়েকদিন বাড়িতে থাকার পর রোববার বিকেলে ফেরি ঘাটে একটু ঘুরতে বের হওয়ার কথা জানিয়ে বেলা তিনটার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়। এর ঘন্টা খানেক পর বিকেল চারটার দিকে খবর আসে আশিক পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয়েছে। আশিক কিছুটা অসুস্থ্য প্রকৃতির ছিল। মাথা ঘুরে পড়ে যাওয়ায় সে আর উঠতে পারেনি। এছাড়া সে দৌলতদিয়া ঘাট টার্মিনাল এলাকার একটি ওয়ার্কশপে শ্রমিকের কাজ করতো।


তিনি আরো বলেন, খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ফেরি ঘাটে গিয়ে খোঁজ করতে থাকি। অনেকক্ষণ সন্ধান করেও না পেয়ে গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সকে খবর দেই। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ফেরি ঘাটে পৌছলেও তারা উদ্ধার অভিযান না চালিয়ে ফিরে আসে। উপায় না পেয়ে স্থানীয় লোকজনের সাথে করে আমরা অনেক রাত পর্যন্ত সন্ধান করে না পেয়ে বাড়ি ফিরে যায়।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর ষ্টেশন মাষ্টার আব্দুর রহমান বলেন, রোববার বিকেলের দিকে ওই তরুণ নিখোঁজ হলেও আমাদেরকে সন্ধ্যার দিকে খবর দেয়। রাত হওয়ায় আমাদের পক্ষে উদ্ধার অভিযান চালানো সম্ভব হয়নি। এছাড়া ডুবুরি না থাকায় মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ষ্টেশনে ডুবুরি দলকে খবর দিয়ে ফের সোমবার সকাল আটটা থেকে উদ্ধার অভিযান শুরু করি। বেলা সাড়ে দশটার দিকে চার নম্বর ফেরি ঘাট পন্টুনের পাশে ডুবন্ত অবস্থায় ডুবুরি দল নিখোঁজ আশিকের লাশ উদ্ধার করে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল-তায়াবীর জানান, ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল নিখোঁজ তরুণের লাশ উদ্ধার করেছে। পরিবার থেকে লাশের বিনা ময়না তদন্তে দাফনের জন্য আবেদন করায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে।