১১:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পাংশার কাচারীপাড়া গ্রামে দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত-৫

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের কাচারীপাড়া গ্রামে বুধবার সকালে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষে উভয়পক্ষে মহিলাসহ অন্তত পাঁচ জন কমবেশী আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, শহিদ মন্ডল, সালাউদ্দিন মোল্লা, সেলিম প্রামানিক, সুবর্ণা বেগম ও নূরজাহান বেগম। এদের মধ্যে নূরজাহান বেগম পাংশা হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ী ফিরে গেছেন। অপর ৪জনকে পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, কাচারীপাড়া মধ্যপাড়া গ্রামের ওয়াজেদ প্রামানিকের ছেলে সেলিম প্রামানিক ও কাচারীপাড়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের শহিদ মন্ডল দু’পরিবারের লোকজনের মধ্যে পূর্ব দ্বন্দ্বের জের ধরে বুধবার সকালে কয়েক দফা রেশারেশির পর সংঘর্ষ বাধে। এ সময় হামলায় শহিদ মন্ডলের বাড়ীসহ অপর একজনের বাড়ীর বেড়া কুপিয়ে ক্ষতিসাধন করে প্রতিপক্ষের লোকজন।

খবর পেয়ে পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আহসান উল্লাহ-এর নেতৃত্বে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এছাড়া পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম ও পাংশার এসিল্যান্ড নুজহাত তাসনীম আওন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। প্রশাসনের কর্মকর্তারা বিবাদমান দু’গ্রুপের লোকজনকে শান্ত থাকতে প্রয়োজনীয় সতর্কতা প্রদান করেন।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

পাংশার কাচারীপাড়া গ্রামে দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত-৫

পোস্ট হয়েছেঃ ০৭:২৭:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ এপ্রিল ২০২০

রাজবাড়ীমেইল ডেস্কঃ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের কাচারীপাড়া গ্রামে বুধবার সকালে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষে উভয়পক্ষে মহিলাসহ অন্তত পাঁচ জন কমবেশী আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, শহিদ মন্ডল, সালাউদ্দিন মোল্লা, সেলিম প্রামানিক, সুবর্ণা বেগম ও নূরজাহান বেগম। এদের মধ্যে নূরজাহান বেগম পাংশা হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ী ফিরে গেছেন। অপর ৪জনকে পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, কাচারীপাড়া মধ্যপাড়া গ্রামের ওয়াজেদ প্রামানিকের ছেলে সেলিম প্রামানিক ও কাচারীপাড়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের শহিদ মন্ডল দু’পরিবারের লোকজনের মধ্যে পূর্ব দ্বন্দ্বের জের ধরে বুধবার সকালে কয়েক দফা রেশারেশির পর সংঘর্ষ বাধে। এ সময় হামলায় শহিদ মন্ডলের বাড়ীসহ অপর একজনের বাড়ীর বেড়া কুপিয়ে ক্ষতিসাধন করে প্রতিপক্ষের লোকজন।

খবর পেয়ে পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আহসান উল্লাহ-এর নেতৃত্বে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এছাড়া পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম ও পাংশার এসিল্যান্ড নুজহাত তাসনীম আওন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। প্রশাসনের কর্মকর্তারা বিবাদমান দু’গ্রুপের লোকজনকে শান্ত থাকতে প্রয়োজনীয় সতর্কতা প্রদান করেন।