December 7, 2021, 9:46 pm
Title :
গোয়ালন্দে চার ভিক্ষুককে পুনর্বাসনে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান গোয়ালন্দে পালানোর সময় জনতার হাতে মোটরসাইকেলসহ চোর আটক পাঁচুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাতিজাকে অপহরন, ৯৯৯-এ নম্বরে ফোন করে উদ্ধার ঘূূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবঃ বৃষ্টিতে গোয়ালন্দে জনজীবন বিপর্যস্ত পাংশার দশ ইউপিতে নৌকা পেলেন যারা রাজবাড়ীতে বোমাসহ নৌকা প্রার্থীর ছেলেসহ আটক দুই রাজবাড়ীতে মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে তরুণ গ্রেপ্তার রাজবাড়ীতে ইলিশ সম্পদ উন্নয়নের লক্ষে অবহিতকরণ কর্মশালা গোয়ালন্দে দরিদ্র পরিবারের ঘরে জমজ তিন সন্তান “ঘর জুড়ে আলো, মন জুড়ে আধার” গোয়ালন্দে হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নির্মল সভাপতি ও কোমল সম্পাদক

গোয়ালন্দে নিষেধাজ্ঞা মানছে না, তবুও বাজারে ভিড় করছে মানুষ (ভিডিও সহ)

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৬, ২০২০
  • 44 Time View
শেয়ার করুনঃ

রাকিবুল হকঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলের বাজারগুলোতে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গ্রামাঞ্চলে হাট-বাজার বসছে। বুধবার রাতে ও গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে এমনই চিত্র দেখা যায়। অথচ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সর্বত্র সাধারণ দোকানপাট-ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক সংলগ্ন গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে বাজার বসেছে। শাক-সবজিসহ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আনা মাছ বেচাকেনা চলছে। এছাড়া এলাকায় চায়ের দোকান ও মুদিখানা দোকান খোলা রেখেছে। ফলে মানুষের ভিড় সকাল থেকেই চলছে। এমন ভিড় সামাল দিয়েই মানুষজন কেনাকাটা করছে।

দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে উপস্থিত ইউনিয়ন পরিষদের স্থানীয় সদস্য ও পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল গণি মন্ডল বলেন, আজকাল সহজে কেউ কথা শুনতে চায়না। কে শুনে কার কথা। ওইভাবে বলিনি। তবে বলেছিলাম ভিড় করা ঠিক না। কিন্তু ইউনিয়ন পরিষদের সামনে রীতিমতো বাজার বসেছে।

দৌলতদিয়া ঘাট বাজারে দেখা যায়, বাজারের ভিতর একপাশ থেকে আরেক পাশে ভিড়ের কারণে যাওয়া যাচ্ছে না। মানুষ রাস্তার দুই পাশে শাক-সবজির পসরা নিয়ে বসেছেন। চায়ের দোকানও খোলা রয়েছে। কেউ চা খাচ্ছে আর জম্পেশ আড্ডা দিচ্ছে। আবার কেউ খোশ মেজাজে কেনাকাটা করছে। মানুষের ভিড় সামলে কয়েকজনের সাথে কথা বলতেই স্থানীয় অনেকে দোকানী ক্ষুদ্ধ হয়ে বললেন, যেখানে মানুষ একত্রে একাধিক লোক দাড়ানো নিষেধ, সেখানে দেখেন কিভাবে হাট বসেছে।

দেবগ্রাম থেকে গাজর ও টমেটো বিক্রি করতে এসেছেন কৃষক ইউসুফ সরদার ও উসমান সরদার দুই ভাই। তারা বলেন, করোনা নিয়ে তেমন কারো মধ্যে দুশ্চিন্তা দেখছিনা। তবে সবাই কিছুটা সতর্ক থাকার চেষ্টা করছে। এরপর শাক-সবজি বেচাকেনা না হলে কৃষক বাঁচবে কিভাবে? সকালে তাই একমন গাজর বিক্রি করতে নিয়ে এসেছি।

বাজার করতে আসা স্থানীয় যুবক রাশেদ শেখ বলেন, আরো সকালে অনেক মানুষের ভিড় ছিল। ভিড়ের মধ্যে পা ফেলার জায়গাটুকো ছিল না। তখন আসলে দেখতে পারতেন মানুষের অবস্থা। এত ভিড়ের কারণে কিছু কেনাকাটা করবো ভয় লাগছে।

বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তা বাজার করতে এসে মানুষের ভিড় দেখে সটকে পড়েন। আলাপকালে তিনি বলেন, এভাবে মানুষের ভিড় থাকলে বাজার করবো কিভাবে? এরাই করনোভাইরাসের সংক্রমণ ছড়াবে। কে সুস্থ্য আর কে অসুস্থ্য তা চিনবো কিভাবে? তাই এত ভিড়ের মধ্যে বাজার করার সাহস পেলাম না। প্রয়োজনে পড়ে আসবো।

বুধবার সন্ধ্যার পর চর দৌলতদিয়া হামিদ মৃধার হাটে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়, অধিকাংশ দোকান পাট খোলা। সব ধরনের দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা থাকায় মানুষের ভিড় লেগেই আছে।

গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবায়েত হায়াত শিপলু রাজবাড়ীমেইলকে বলেন, মাইকিং করে সবাইকে সতর্ক করা হয়েছে। এমনকি স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে ওষুধ ও কাঁচাপণ্যের দোকান ছাড়া সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। আমি নিজে ঘুরে ঘুরে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পেতে সরকারের নির্দেশনা মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছি। এখন কেউ এ নির্দেশনা না মানলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102