September 30, 2022, 5:41 am
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় ভাঙন, বসতভিটা বিলীন, তিন ফেরিঘাট বন্ধ গোয়ালন্দে পুলিশের হাতে ইয়াবাবড়ি ও ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার ৫ অস্ত্র-গুলি ও সহযোগীসহ পাংশার পৌরসভার কাউন্সিলর গ্রেপ্তার গোয়ালন্দে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস পালিত গোয়ালন্দে মা ও শিশু ওয়ার্ড এবং পোষ্ট অপারেটিভ ওয়ার্ড উদ্বোধন মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ডিজিটাল সার্টিফিকেট ও স্মার্ট আইডি কার্ড হস্তান্তর গোয়ালন্দে মাদক বিরোধী প্রীতি ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত গোয়ালন্দে সামাজিক-সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত রাজবাড়ী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ সম্পন্ন দৌলতদিয়ায় পদ্মার ১৩ কেজির বোয়াল বিক্রি হলো ২৮ হাজারে

গোয়ালন্দে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে ‘সাংবাদিকে’র বিরুদ্ধে মানববন্ধন

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, সেপ্টেম্বর ৩, ২০২২
  • 110 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে এশিয়ান টেলিভিশন ও মানবজমিন পত্রিকায় কলেজ ছাত্রের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে গোয়ালন্দ বাজার প্রধান সড়ক সংলগ্ন গোয়ালন্দ প্রেসক্লাবের সামনে “গোয়ালন্দ উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের” ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ ক্রীড়ামোদী কয়েকশ তরুণ-যুবক উপস্থিত ছিলেন। তারা সুজন খন্দকারের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানান।

জানা গেছে, গত শুক্রবার (২৬ আগষ্ট) “ধরা ছোয়ার বাইরে দৌলতদিয়ার মাদকের গডফাদার সোহেল” শিরোনামে মানবজমিন পত্রিকায় এবং “হাতুড়ে ডাক্তারের ছেলে কোটিপতি” শিরোনামে (২ সেপ্টেম্বর) এশিয়ান টেলিভিশনে খবর প্রচার হয়। প্রকাশিত খবরে সোহেল রানাকে মাদক ব্যাবসায়ী বলা হলেও তার সপক্ষে কোন তথ্য-প্রমান দেয়া হয়নি। এমনকি অভিযুক্ত সোহেলের সাথে এ নিয়ে কোন কথাও বলেননি সুজন খন্দকার।

রাজবাড়ী সরকারি কলেজের অনার্স চতুর্থ বর্ষে দর্শন বিভাগে অধ্যয়নরত সোহেল রানা জানান, আমার পিতার নাম সহিদুল ইসলাম। তিনি একজন পল্লী চিকিৎসক, তাকে সবাই ‘সহিদ ডাঃ’ নামে চেনেন। ১৯আগষ্ট রাতে আমাদের বাসার সামনে সুজনের মোটরসাইকেল রাখা নিয়ে আমার সঙ্গে কথা কাটাকাটি ও ধাক্কাধাক্কি হয়। এতে পড়ে গিয়ে টাইলসের সাথে আঘাতে তার মাথা সামান্য কেটে যায়। এ ঘটনায় সে আমার ও পরিবার-পরিজনদের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।

ওই ঘটনার জের ধরে উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে সংবাদ প্রকাশ করে। আমি পড়াশুনার পাশাপাশি খেলাধুলা করি। দৌলতদিয়া বাজারে ‘খেলাঘর’ নামে একটি ক্রীড়া সামগ্রীর দোকান পরিচালনা করি। আমার নামে কোথাও কোনো মাদক মামলা নাই। আমি কোনদিন মাদক ছুঁয়েও দেখিনি। অথচ আমি নাকি মাদকের গডফাদার, মাদক ব্যাবসা করে কোটিপতি হয়েছি। এমন মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত সংবাদ প্রকাশ করায় মানহানি হয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি ও ন্যায় বিচার কামনা করছি। এসময় দৌলতদিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্ববায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য সমাপ্ত করা শিক্ষার্থী শামীম রিজভী বক্তব্য রাখেন।

পুলিশ ও স্হানীয় সূত্রে জানায়, সুজন খন্দকারের বিরুদ্ধে “মানব পাচার, চাঁদাবাজি ও আইসিটি” আইনে মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এছাড়াও দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীতে তার বাড়ি রয়েছে। মানব পাচার মামলায় র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তারসহ চাঁদাবাজি মামলায় পুলিশের হাতে ইতিপূর্বে তিনি একাধিকবার গ্রেপ্তারও হন।

      এ ব্যাপারে মুঠোফোনে চেষ্টা করেও অভিযুক্ত সুজন খন্দকারের সাথে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি বলে বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

   গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, কলেজ ছাত্র সোহেলের বিরুদ্ধে থানায় কোন ধরনের মামলা নেই। স্থানীয় কেউ কেউ জানায়, সোহেলের পরিবার মাদকের সাথে জড়িত। আমরা এখন পর্যন্ত সোহেলকে মাদকসহ পাইনি। ১৯আগষ্ট মোটরসাইকেল রাখা নিয়ে সুজনের সাথে সোহেলের মারামারি ঘটনায় সুজনের স্ত্রী বাদী হয়ে সোহেলসহ কয়েকজনের নামে মামলা করেছে।ওই মামলায় ইতোমধ্যে চার্জশিট প্রদান করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
DeveloperAsif
themesba-lates1749691102