August 12, 2022, 12:11 pm
শিরোনামঃ
গোয়ালন্দে ‘গ্রামীণ উন্নয়নে পর্যটন’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত রাজবাড়ীতে ধর্ষনকালে এলাকাবাসি হাতেনাতে আটক করে পুলিশে দিল ধর্ষককে রাজবাড়ীতে মান ভেদে প্রতি কেজি চালের বাজার দর বেড়েছে ৬ থেকে ৮ টাকা রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দির পদ্মবিলের অপার সৌন্দর্যে মুগ্ধ দর্শনার্থীরা রাজবাড়ীর চর চাঁদপুর ও রামনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিদায় সংবর্ধনা যৌনপল্লীর মা ও শিশুদের দিনব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসাবসেবা দিল উত্তোরণ ফাউন্ডেশন রাজবাড়ীতে কৃষি ব্যাংকে ঋণ জালিয়াতি, মৃত ব্যক্তির নামেও ঋণ গোয়ালন্দে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে সেলাই মেশিন ও অনুদানের চেক বিতরণ ফরিদপুর জেলা আওয়মীলীগ কার্যালয়ে ‘‘বঙ্গবন্ধু কর্নার” স্থাপন গোয়ালন্দে নবম শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী অপহরণের চার মাস পর উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

দৌলতদিয়া ঘাটে ঈদ ফেরত মানুষের ঢল, দিন শেষে গাড়ির চাপ বাড়ছে

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, জুলাই ১৫, ২০২২
  • 25 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ কাটিয়ে সপ্তাহের শেষ দিন শুক্রবার সকাল থেকে কর্মস্থলমুখী মানুষ ছুটছে। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ঘাটে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের থেকে আসা কর্মজীবী মানুষের ঢল নামে। বিভিন্ন ধরনের যানবাহন বোঝাই ঘাটে পৌছানো যাত্রীরা সুবিধাজনক ঘাটের ফেরিতে উঠছে। নদী পাড়ি দিতে আসা ঢাকামুখী যানবাহন সরাসরি ফেরিতে উঠছে। দুই দিন ধরে বিকেল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত নদী পাড়ি দিতে আসা গাড়ির চাপ থাকছে।

শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাটে অপেক্ষা করে দেখা যায়, দৌলতদিয়া ফেরি ঘাট এলাকার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কোথাও যানবাহনের লাইন নেই। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে ছেড়ে আসা গাড়িগুলো সরাসরি ফেরি ঘাটের সংযোগ সড়কে দাড়াচ্ছে। সেখান থেকে ভাগ ভাগ হয়ে যে ঘাটে ফেরি ভেড়ানো দেখছেন সে ঘাটেই চলে যাচ্ছে। বেশির ভাগ সরাসরি ফেরিতে উঠতে গেলেও মাঝে মধ্যে যাত্রীর ভিড়ে উঠতে কিছুটা সময় ক্ষেপন হচ্ছে। অন্যান্য বারের তুলনায় ঈদ ফেরত যাত্রীদের কর্মস্থলে যাত্রাটা ছিল অনেকটা স্বস্তির। এর আগে কোন ঈদে এমন স্বস্তির যাত্রা দেখেননি কেউ। ঘন্টার পর ঘন্টা গোয়ালন্দ ঘাট এলাকায় দীর্ঘ যানজটে বসে থাকতে হয়েছে। এমনকি অনেক গাড়ি এক-দুই দিন পর্যন্ত ঘাটেই যানজটে লাইনে বসে থাকতে হয়েছে। এতে করে আটকে থাকা মানুষ সহ যানবাহন চালক ও সহকারীদের অবর্ননীয় দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে।

এছাড়া দৌলতদিয়া লঞ্চ ঘাটেও একইভাবে যাত্রীদের ভিড় পড়েছে। শুক্রবার সকাল থেকেই দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি লঞ্চে যাত্রী বোঝাই নদী পাড়ি দিচ্ছে। কর্তব্যরত পুলিশের পাশাপাশি রোভার স্কাউট, আনসার সদস্যরা কাজ করছেন।

চুয়াডাঙ্গা থেকে পূর্বাসা পরিবহনের একটি বাসে ঢাকায় ফিরছিলেন সিলেটের একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আব্দুল ওহাব। দৌলতদিয়ার ৫নম্বর ফেরি ঘাটে আলাপকালে তিনি বলেন, এমন যাত্রা ইতোপূর্বে কখনো দেখেনি। গত ঈদুল ফিতরের সময় দৌলতদিয়া ঘাটে প্রায় ১০ ঘন্টার মতো যানজটে আটকে ছিলাম। অথচ সম্পূর্ণ বিপরিত চিত্র এবারের ঈদুল আযহায়।

তিনি বলেন, সিলেট কর্মস্থলে আগামী রোববার যোগ দিতে হবে। ঘাটের পরিস্থিতি কি চুয়াডাঙ্গা থেকে তো বুঝতে পারিনি। তাই সকাল ৭টার বাসে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছি। সড়কের কোথাও কোন বাধা বা যানজট ছাড়াই মাত্র তিন ঘন্টায় দৌলতদিয়া ঘাটে এসে পৌছেছি। ঘাটে পৌছে দেখি পুরো সড়ক ফাঁকা। সরাসরি ফেরিতে গিয়ে উঠে পড়ছি। অথচ ঘন্টার পর ঘন্টা এই ঘাটে বসে থেকে আমাদের কতই না দুর্দিন কেটেছে।

বিআইডব্লিউটিসি আরিচা কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ বলেন, যানবাহনের চাপ কম থাকায় ফেরি সংখ্যাও কমানো হয়েছে। দুই দিন ধরে মধ্যরাতের পর থেকে পরদিন বিকেলের আগ পর্যন্ত যানবাহনের চাপ কম থাকায় ফেরি সংখ্যা কমিয়ে ১০টা করা হয়। বিকেলে গাড়ির চাপ বাড়লে তা শেষ না হওয়া পর্যন্ত ফেরি সংখ্যা বাড়িয়ে ১৪-১৫টি করা হয়। তবে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটের জন্য সার্বক্ষনিকভাবে ২১টি ফেরি সচল রাখা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
DeveloperAsif
themesba-lates1749691102
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x