August 7, 2022, 9:49 am
শিরোনামঃ
রাজবাড়ীতে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ থানায় মামলা দায়ের বিএনপি নেতা এ্যাডঃ আসলাম মিয়া অসুস্থ, সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা রাজবাড়ীতে শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গোয়ালন্দে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ গোয়ালন্দে যুবলীগের আয়োজনে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন গোয়ালন্দে নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মদিন পালন টাকা ছিনিয়ে নিতেই খুন করা হয় মানসিক ভারসাম্যহীন ভিক্ষুককে, অপর ভিক্ষুককে কুপিয়ে জখম গোয়ালন্দে চলন্ত ফেরি থেকে চার জুয়াড়ি গ্রেপ্তার, টাকা ও তাস জব্দ ক্যান্সারে আক্রান্ত আলিফের পাশে প্রথম আলো গোয়ালন্দ বন্ধুসভা গোয়ালন্দে পদ্মার ২৫ কেজির বিপন্ন বাগাড় বিক্রি হলো ২৮ হাজার টাকায়

গোয়ালন্দে নিখোঁজ নারী নেত্রী, পিবিআইয়ের হাতে স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার যুবলীগ নেতা

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, জুলাই ১, ২০২২
  • 214 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে নারী নেত্রী লিলি বেগম নিখোঁজ মামলার প্রধান আসামি যুবলীগ নেতা লতিফ শেখ (৪৮) এবং তার স্ত্রী ফিরোজা বেগমকে (৪০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই), ফরিদপুরের একটি দল। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআইয়ের উপপরিদর্শক (এস.আই) মোঃ সালাউদ্দিন গত ২৯ জুন বুধবার স্থানীয় যুবলীগ নেতা লতিফকে দৌলতদিয়া রেলস্টেশন এলাকা থেকে এবং তার স্ত্রীকে বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পরদিন ৩০ জুন তাদেরকে আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক ১ দিনের রিমান্ডে আনা হয়। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে রাজবাড়ীর কারাগারে পাঠানো হয়। তবে মামলার তদন্তের স্বার্থে রিমান্ডে পাওয়া তথ্য সম্পর্কে কোনকিছু জানাতে চাননি এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। এ মামলার ৩ নং আসামি লতিফ শেখের ছেলে রবিউল শেখ (২৪)। আসামিরা দৌলতদিয়া শামসু মাষ্টার পাড়ার বাসিন্দা। লতিফ শেখ দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সহসভাপতি। নিখোঁজ লিলি বেগম দৌলতদিয়া পূর্বপাড়া যৌনপল্লীর বাড়ীয়ালী এবং যৌনকর্মী ও তাদের সন্তানদের অধিকার প্রতিষ্ঠা নিয়ে কর্মরত বেসরকারি সংগঠন মুক্তি মহিলা সমিতির কার্য্য নির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি।

লিলি বেগম নিখোঁজ ঘটনায় গত বছরের ১৪ ডিসেম্বর রাজবাড়ীর বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে মামলা দায়ের করেন লিলির মেয়ে জামাই স্হানীয় বাসিন্দা মুরাদ হোসেন। আদালত মামলাটিকে গোয়ালন্দ ঘাট থানাকে নথিভুক্ত করতে এবং তদন্তের জন্য ফরিদপুর পিবিআইকে দায়িত্ব দেয়।

মামলার অভিযোগে প্রকাশ, আসামী লতিফ সেখ দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীর অভ্যন্তরে অবস্থিত লিলি বেগমের বাড়ীতে নিয়মিত যাতায়াত ও অবস্থান করত। নিবির ঘনিষ্টতার কারণে লতিফ স্থানীয়ভাবে লিলি বেগমের স্বামী হিসেবে সমধিক পরিচিত ছিল। গত ১০ নভেম্বর দুপুর ১ টার সময় লিলি বেগমকে তার কথিত স্বামী লতিফ সেখ দাওয়াত খাওয়ানোর কথা বলে তার নিজ বাড়ীতে ডেকে নেয়। ওই দিন বিকেলে লিলি বেগমের স্বজনরা তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ খবর নিয়েও অদ্যাবধি তার সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এদিকে লিলি বেগমকে উদ্ধারের দাবিতে মুক্তি মহিলা সমিতি, লিলির আত্মীয়-স্বজন ও পল্লী বাসীরা মানব বন্ধনসহ নানাবিধ কর্মসূচি পালন করে।

এ বিষয়ে মুক্তি মহিলা সমিতির নির্বাহী পরিচালক মর্জিনা বেগম বলেন, লিলি বেগম আমার অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ একজন সহকর্মী। পল্লীর অসহায় নারী ও শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় সে দীর্ঘদিন ধরে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে গেছে। তার অকস্মাৎ নিখোঁজ ঘটনায় আমরা স্তম্ভিত, আতঙ্কিত। তবে দীর্ঘদিন পর হলেও এ ঘটনার প্রধান দুই আসামিকে পিবিআই গ্রেপ্তার করেছে। আশা করি লিলি বেগমকে দ্রুতই পুলিশ উদ্ধার করতে সক্ষম হবে এবং অপরাধীরা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পাবে।

Please Share This Post in Your Social Media

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
DeveloperAsif
themesba-lates1749691102
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x