August 12, 2022, 12:17 am
শিরোনামঃ
গোয়ালন্দে ‘গ্রামীণ উন্নয়নে পর্যটন’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত রাজবাড়ীতে ধর্ষনকালে এলাকাবাসি হাতেনাতে আটক করে পুলিশে দিল ধর্ষককে রাজবাড়ীতে মান ভেদে প্রতি কেজি চালের বাজার দর বেড়েছে ৬ থেকে ৮ টাকা রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দির পদ্মবিলের অপার সৌন্দর্যে মুগ্ধ দর্শনার্থীরা রাজবাড়ীর চর চাঁদপুর ও রামনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিদায় সংবর্ধনা যৌনপল্লীর মা ও শিশুদের দিনব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসাবসেবা দিল উত্তোরণ ফাউন্ডেশন রাজবাড়ীতে কৃষি ব্যাংকে ঋণ জালিয়াতি, মৃত ব্যক্তির নামেও ঋণ গোয়ালন্দে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে সেলাই মেশিন ও অনুদানের চেক বিতরণ ফরিদপুর জেলা আওয়মীলীগ কার্যালয়ে ‘‘বঙ্গবন্ধু কর্নার” স্থাপন গোয়ালন্দে নবম শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী অপহরণের চার মাস পর উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

রাজবাড়ীতে ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলের বিরুদ্ধে প্রেমিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, জুন ২২, ২০২২
  • 126 Time View
শেয়ার করুনঃ

ইমরান হোসেন মনিম, রাজবাড়ীঃ প্রেমিকাকে মারধর করার অভিযোগে রাজবাড়ী জেলা সদরের মূলঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে আলীপুর ইউনিয়নের কালীচরনপুর গ্রামের মৃত হাশেম মুন্সির ছেলে আরশাদ মুন্সি। এতে ১নম্বর আসামী করা হয়েছে অত্র ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শেখ মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান, তার ছেলে হিমেল শেখ ও চঞ্চল শেখ, স্ত্রী শারমিন বেগম ও একই ইউনিয়নের বাঘিয়ার মৃত আফসার আলী মৃধার ছেলে শাখাওয়াত মৃধা সহ পাঁচ জনকে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, গত ৬ বছর ধরে আরশাদ মুন্সির ভাগ্নির সাথে চেয়ারম্যানের ছেলে হিমেল শেখ’র প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এই সুবাদে চেয়ারম্যানের পরিবার তার ছেলের অর্থাৎ প্রেমিকা বাড়িতে গীয়ে তার ভগ্নিপতির (ভাগ্নির বাবা) কাছে বিয়ের প্রস্তাব দেয় এবং বিয়ে ঠিক হয়। বিয়ে ঠিক হওয়ার পর বেশ কয়েকবার তার ভাগ্নিকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়া হয়। এর মধ্যে তার ভাগ্নির ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষন করার অভিযোগ করা হয়। গত ২০ জুন চেয়ারম্যানের ছেলে হিমেল শেখ ও শাখাওয়াত মৃধা ভাঙ্গা থানার ভগ্নিপতির বাড়ি থেকে প্রইভেটাকারে করে তার দুই ভাগ্নিকে বেড়ানোর কথা বলে হিমেলদের বাড়ি নিয়ে আসে। তার ছোট ভাগ্নিকে ড্রইংরুমে বসিয়ে রেখে হিমেলের সাথে সম্পর্ক বড় ভাগ্নিকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষন করে। এসময় ভাগ্নির ডাক চিৎকারে অভিযুক্তরা এগিয়ে আসে তাকে এলোপাথারি মারধর করতে থাকে। এতে তার ভাগ্নির সারা শরীরে নিল ফোলা জখমের চিহ্ন রয়েছে। তিনি এ ঘটনা লোকমারফত জেনে ৯৯৯ নম্বরে পুলিশে খবর দিয়ে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অভিযোগ কারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করতে অনুরোধ জানানো হয়।

মেয়ের মা জানান, চেয়ারম্যানের ছেলের সাথে দীর্ঘ দিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছে। এই সম্পর্কেও কারনে মাঝে মাঝে তার মেয়েকে হিমেল তাদের বাড়িতে নিয়ে আসত। গত ২০ জুন তারিখে হিমেল ও তার সাথে আরেকজন এসে প্রাইভেটকারে করে হিমিলদের বাড়িতে নিয়ে যায়। এই বাড়িতে গেলে তার মেয়েকে চেয়ারম্যানসহ তার পরিবার মারধর করে। মেয়ের এই অবস্থার কথা শুনে তিনি রাজবাড়ীতে আসেন। তিনি এর সুষ্ঠু বিচারের দাবী জানান।

অভিযোগ প্রসঙ্গে মূলঘর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে তার ছেলের সাথে ওই মেয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। মাঝে মাঝে তাকে বাড়িতেও নিয়ে আসে। আজও আমার বাড়ির ঘরে এসে উঠে এবং প্রতিজ্ঞা করে ঘর থেকে সে নামবে। তাই তাকে জোর করে বের করে দেওয়া হয়। তবে মারধর করার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। তাকে কোন মারধর করা হয়নি, এটা মিথ্যা কথা বলেছে সে।

রাজবাড়ী সদর থানার তদন্ত কর্মকর্তা ইশতেখার আলম প্রধান বলেন, মূলঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের ঘটনাটা শুনেছি। তবে তিনি অভিযোগ পত্র এখনও দেখেননি। অভিযোগ পত্রের সত্যতা পাওয়া গেলে সে যেই হোক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নিবেন বলে জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
DeveloperAsif
themesba-lates1749691102
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x