July 5, 2022, 3:28 pm
শিরোনামঃ
গরু নিয়ে আমাদের আর দৌলতদিয়া ঘাটে অপেক্ষা করতে হয়না ডিবি পুলিশের অভিযানে দৌলতদিয়ায় সাত হাজার ইয়াবাসহ দুইজন গ্রেপ্তার শিক্ষক হত্যা ও লাঞ্ছনার প্রতিবাদে গোয়ালন্দে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত গোয়ালন্দের উজানচর ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত গোয়ালন্দ থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে ইয়াবা ও হেরোইনসহ গ্রেপ্তার ৩ রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি ও পিকআপ ভ্যান বিতরন রাজবাড়ী হেল্পলাইন ফাউন্ডেশনের ৪৫ সদস্যের দ্বি-বার্ষিক পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন পাবনার আ.লীগ নেতা গোয়ালন্দে হত্যায় ব্যবহৃত ট্রলার চালক গ্রেপ্তারের পর আদালতে স্বীকারোক্তি গোয়ালন্দে পুলিশের অভিযানে বিভিন্ন মামলার ৫ আসামী গ্রেপ্তার গোয়ালন্দে বাড়ির পুকুরে পরে মানসিক ভারসাম্যহীন শিশুর মৃত্যু

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় ফেরিতে জুয়া খেলা অবস্থায় হাতেনাতে চার সদস্য গ্রেপ্তার

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, মে ২১, ২০২২
  • 38 Time View
শেয়ার করুনঃ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়ালন্দঃ রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌপথে চলাচলরত ফেরিতে জুয়াড়ি চক্রের সদস্যরা ফের সক্রিয় হয়ে পড়ছেন। শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে দৌলতদিয়ার ৫নম্বর ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া রো রো (বড়) ফেরি কেরামত আলী মাঝ নদীতে পৌছলে যাত্রীবেশে থাকা নৌ পুলিশের একটি দল চার জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, গোয়ালন্দ উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া সিদ্দিক কাজী পাড়ার বরকত মোল্লা (৪২), উত্তর দৌলতদিয়া ঢল্লা পাড়ার নুরু খা (৫৩), বাহির চর দৌলতদিয়া শাহাদৎ মেম্বার পাড়ার উসমান মোল্লা (৫৪) ও একই গ্রামের সাগর হোসেন (৩৭)। এছাড়া তাদের দেওয়া ভাষ্যমতে একই গ্রামের মৃত মোহন শিকদারের ছেলে রেজাউল শিকদার (৩০) ছিলেন। তবে সে টের পেয়ে আগে পালিয়ে যান। এসময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে তাস, কুপি বাতি, তাস জুয়া খেলার একটি বোর্ড এবং নগদ ৫০০ টাকা জব্দ করে। তাদের প্রত্যেককে শনিবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আজিজুল হক খান। গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই দীর্ঘদিন ধরে নেশা বা জুয়ার সাথে জড়িত।

ঘাট সংশ্লিস্টরা জানায়, প্রায় রাতে ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া ফেরি মাঝ নদীতে পৌছলে ইঞ্জিন চালিত নৌকা ফেরির গা ঘেঁষে ভেড়ায়। এরপর নৌকা থেকে একে একে উঠে পড়ে ফেরিতে। ফেরির এক কোনায় কুপি বাতি জালিয়ে প্রথমে নিজেরা ৪-৫জন বসে তাস নিয়ে খেলা শুরু করে। এসময় কোন যাত্রী বা গাড়ি চালক খেলায় আগ্রহ দেখালে সংঘবদ্ধ সদস্যরা টাকা পয়সা, মূল্যবান জিনিসপত্র কেড়ে নেয়। কেউ এগিয়ে গেলে ধারালো ছুড়ি বা চাকু দিয়ে আঘাত করে দ্রুত নৌকা নিয়ে সটকে পড়তো।

দৌলতদিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (ওসি) সৈয়দ জাকির হোসেন বলেন,  শুক্রবার রাতে এমন খবর পেয়ে দৌলতদিয়ার ৫নম্বর ঘাট থেকে রাত পৌনে বারোটার দিকে কেরামত আলী ফেরিতে জুয়াড়ি চক্রের সদস্যরা উঠছে খবর পেয়ে যাত্রী বেশে, কয়েকজন ফেরির বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেই। ফেরিটি ঘাট ছাড়ার কিছুদূর যেতেই কুপি বাতি জালিয়ে চারজন জুয়া খেলা শুরু করলে হাতেনাতে চারজনকে আটক করি। এরা নেশার সাথে জড়িত থাকায় এ ধরনের কাজে জড়িয়ে পড়ে। এক্ষেত্রে প্রতিটি ফেরিতে পুলিশ দেওয়া সম্ভব হয়না। যে ফেরিতে পুলিশ থাকে না নিশ্চিত হওয়ার পর ওই ফেরিতেই জুয়ার আসর বসে থাকে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
DeveloperAsif
themesba-lates1749691102