July 5, 2022, 3:51 pm
শিরোনামঃ
গরু নিয়ে আমাদের আর দৌলতদিয়া ঘাটে অপেক্ষা করতে হয়না ডিবি পুলিশের অভিযানে দৌলতদিয়ায় সাত হাজার ইয়াবাসহ দুইজন গ্রেপ্তার শিক্ষক হত্যা ও লাঞ্ছনার প্রতিবাদে গোয়ালন্দে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত গোয়ালন্দের উজানচর ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত গোয়ালন্দ থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে ইয়াবা ও হেরোইনসহ গ্রেপ্তার ৩ রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি ও পিকআপ ভ্যান বিতরন রাজবাড়ী হেল্পলাইন ফাউন্ডেশনের ৪৫ সদস্যের দ্বি-বার্ষিক পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন পাবনার আ.লীগ নেতা গোয়ালন্দে হত্যায় ব্যবহৃত ট্রলার চালক গ্রেপ্তারের পর আদালতে স্বীকারোক্তি গোয়ালন্দে পুলিশের অভিযানে বিভিন্ন মামলার ৫ আসামী গ্রেপ্তার গোয়ালন্দে বাড়ির পুকুরে পরে মানসিক ভারসাম্যহীন শিশুর মৃত্যু

রাজবাড়ীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে ইউপি সদস্যকে মারপিটের অভিযোগ

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, মে ২১, ২০২২
  • 56 Time View
শেয়ার করুনঃ

ইমরান হোসেন, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ অনুর্দ্ধ-১৭ ফুটবল টুর্ণামেন্টের খেলা শুরু হয়েছে গত বৃহস্পতিবার (১৯ মে)। খেলায় পরদিন শুক্রবার বিকালে কাজী হেদায়েত হোসেন স্টেডিয়ামে মিজানপুরের সাথে শহীদওহাবপুর ইউপির খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় মিজানপুর দল শহীদওহাবপুরকে ২-১ গোলে হারিয়ে বিজয়ী হয়।

কিন্তু এ খেলায় মিজানপুর দলে অনুর্দ্ধ-১৭ ছেলেদের খেলার কথা থাকলেও সেখানে-১৭ উর্দ্ধ বয়সী খেলোয়ারদের দিয়ে খেলানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড সদস্য ও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান বাবু। এ অভিযোগের কারনে হাবিবুর সহ তাদের অকথ্য ভাষায় গালাগলি করার প্রতিবাদ করলে খেলা শেষে ইউনিয়ন সদস্য হাবিবুরকে মিজানপুর ইউনিয়নের ৪৫ থেকে ৫০ জন খেলোয়ার সহ আগত সমর্থকরা বেধরকভাবে পেটায়। এ ঘটনায় শনিবার বিকালে হাবিবুরের স্ত্রী আসমা খাতুন অভিযোগ দায়ের করেন। মিজানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান টুকু মিজির ছেলে জয় মিজি’কে আসামী করে অজ্ঞাত ৫০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়।

অভিযোগে বলা হয়, ইউনিয়ন সদস্য হাবিবুরসহ অন্যান্য খেলোয়ারদের শুক্রবার বিকালে খেলা শেষে কোন ধরনের কথা বার্তা না বলেই একাধারে মিজানুপুরের খেলোয়ার সহ আগতরা কিল, ঘুষি, লাথি সহ বেধরক মারধর করে। এতে হাবিবুরের শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্ত জমাট বাধে ও শরীরের বিভিন্ন স্থান ফুলে যায়। মিজানপুরের খেলোয়ার ও আগত সমর্থক প্রত্যেকের ব্যাগে দেশীয় অস্ত্র, চাপাতি, ছুড়ি, দা সহ বিভিন্ন ধরনের দেশীয় অস্ত্র আনা হয় বলেও জানান হাবিবুর।

এ বিষয়ে মিজানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান টুকু মিজির দুটি মোবাইল ফোন নম্বরে একাধিকবার ফোন করা হলেও বন্ধ পাওয়া যায়। খেলা চলাকালীন সময়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ সভাপতি গোলাম মাওলা, সদর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক সিয়াদত আলী টগর, রাজবাড়ী ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি মঞ্জুরুল আলম দুলাল ও শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ নুর মোহাম্মদ ভূইয়া উপস্থিত ছিলেন। অভিযোগ পত্রে হাবিবুরের কাছে থাকা নগদ টাকা ও স্বর্ণের চেইন ও আংটি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগও করা হয়।

রাজবাড়ী সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইফতেখারুল আলম প্রধান জানান, তিনি এখনও অভিযোগ হাতে পাননি। অভিযোগ পেলে খতিয়ে দেখে অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

মারপিটের ঘটনায় জানতে চাইলে রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মার্জিয়া সুলতানা জানান, যেহেতু সরকারী পর্যায়ের ফুটবল খেলা চলমান রয়েছে। তাই এ খেলায় কোন ধরনের অপ্রিতিকর ঘটনা আমরা বরদাস্ত কোরবনা। আমি মিজানপুর ইউপি চেয়ারম্যানকে মৌখিকভাবে হুশিয়ারি করেছি খেলার মাঠে মারপিট করার কারনে। শহীদ ওহাবপুর ইউনিয়নের মেম্বারকে লিখিত অভিযোগ দিতে বলেছিঅ অভিযোগ পেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
DeveloperAsif
themesba-lates1749691102