May 18, 2022, 4:32 pm
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ তিন ফেরি বিকল, ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির চাপ গোয়ালন্দে হেরোইনসহ তরুণ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল রাজবাড়ীতে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রনে সচেতনতামূলক সভা রাজবাড়ীর পুলিশ পরিদর্শক অধীর চন্দ্র রায়ের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা রাজবাড়ীতে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও লোকসানে চাষিরা রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ গোয়ালন্দে জমি নিয়ে সংঘর্ষে কৃষক নিহত, মামলা দায়ের, গ্রেপ্তার ২ দৌলতদিয়ায় বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ৪টি দোকানে জরিমানা গোয়ালন্দে হেরোইনসহ যুবক গ্রেপ্তার

রাজবাড়ীতে ইফতারিতে মৌসুমী ফলের চাহিদা বেশি, বেশি দামের অভিযোগ ক্রেতাদের

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, এপ্রিল ১৮, ২০২২
  • 33 Time View
শেয়ার করুনঃ

ইমরান হোসেন মনিম, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীতে পবিত্র রমজান উপলক্ষে রোজাদারদের ভাজাপোড়া ও মুখোরোচক খাবারের চাইতে রসালো মৌসুমী ফলের দিকে বেশি চাহিদা দেখা গছে। তবে এসব ফলের বাজার দর বেশি থাকায় ক্রেতা সাধারনের অভিযোগ রয়েছে।

বিক্রেতারা বলছেন ফলের বাজার দর বেশি থাকায় কিনতে হচ্ছে বেশি দামে তাই বিক্রিও করতে হচ্ছে বেশি দামে। ছোট, বড় ও মাঝারি আকারের প্রতি পিস হিসেবে বিক্রি করছেন ১৫০ টাকা থেকে ৭০০ টাকা পর্যন্ত। অনেক বিক্রেতাকে পিস হিসেবে বা শ’হিসেবে কিনে তা কেজি হিসেবে বিক্রি করতে দেখা যায়। প্রতি কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেড়ি দরে বিক্রি করেন ব্যাবসায়ীরা। তবে এতে ক্রেতাদের আক্ষেপ রয়েছে কেজিতে বিক্রি করায়।

তপ্ত গরমে সারাদিনের ক্লান্তি শেষে রোজাদাররা শরীরের প্রশান্তি আনতে বিভিন্নি ধরনের রসালো ও মৌসুমী ফলের দোকানে ভিড় করে ফল কিনতে দেখা গেছে। রমজান উপলক্ষে রাজবাড়ীর সবচেয়ে বড় পাইকারী ও খুচরা ফলের বাজারে বর্তমানে সব ধরনের মৌসুমী ফলের আমদানি দেখা গেছে। মুখোরোচক ভাজাপোড়া ইফতারির চাইতে এসব ফলের দোকানে ফল কিনতে আগ্রহ বেশি ছিল তাদের। তবে গত বছরের চাইতে এবছর সব ধরনের ফলের বাজার দর বেশি বলে অভিযোগ করেন ক্রেতারা। বিশেষ করে এসময়ের

সবচাইতে চাহিদা সম্পন্ন মৌসুমী ফল তরমুজ, বাঙ্গি, ডাব, কলা, বেল, পেঁপেঁ, আনার, আনারস, আপেল, মালটা ও বিভিন্ন ফলের দাম সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে। বাজারে পর্যাপ্ত আমদানি থাকা সত্বেও এসব ফলের দাম বেশি দেখা যায় বাজারে। তবে কিছু কিছু দোকানি তরমুজ পিস হিসেবে বিক্রি না করে বেশি লাভের আশায় কেজি হিসেবে বিক্রি করছেন এ নিয়েও রয়েছে ক্রেতাদের বিস্তর অভিযোগ। তবে অত্যাধিক গরমের কারনে ভাজা পোড়া ইফতার সামগ্রীর দোকানে ক্রেতাদের ভির কম দেখা গেছে। বিক্রি কম হওয়ায় লোকসান হচ্ছে তাদের। বাজারে কয়েকবার ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ব্যাবসায়ীদের জরিমানা করা হলেও অনেকেই তা না মেনে কেজি দরে বিক্রি করছেন এখনও।

সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ ইব্রাহিম টিটন বলেন, প্রচন্ড গরমে ইফতারের সময় লবন ও পানির ঘাটতি পূরনে পানি জাতীয় তরল খাবার খাওয়ার প্রতি বেশি নজর দিতে বলেছেন।বিশেষ করে শরবত, তরমুজ, বাঙ্গি সহ পানি জাতীয় খাবার দিয়ে ইফতার করার কথা জানান।

ক্রেতারা জানান ইফতারে তারা সারাদিন রোজা রেখে ভাজাপোড়া খাবারের চাইতে রসালো ফল বেশি কিনছেন। তরমুজ, বাঙ্গি, কলা, বেল, আপেল, মালটা সহ বিভিন্ন ধরনের ফলের বাজার দর বেশি বলে জানান।তার পরও তাদের বাধ্য হয়ে কিনতে হচ্ছে এসব মৌসুমী ফল। আর কেজি দরে বাধ্য হয়ে তাদের তরমুজ কিনতে হচ্ছে প্রতিদিনই। বাজার ব্যাবস্থাপনায় প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ প্রয়োজন বলে দাবী ক্রেতা সাধারনের।

বাজারে কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করা হচ্ছে এ বিষয়ে প্রশাসনিক কোন ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে কিনা জানতে চাইলে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক আবু কাসার খান বলেন, এর আগে বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। প্রয়োজনে আরো করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102