May 18, 2022, 4:35 pm
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ তিন ফেরি বিকল, ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির চাপ গোয়ালন্দে হেরোইনসহ তরুণ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল রাজবাড়ীতে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রনে সচেতনতামূলক সভা রাজবাড়ীর পুলিশ পরিদর্শক অধীর চন্দ্র রায়ের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা রাজবাড়ীতে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও লোকসানে চাষিরা রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ গোয়ালন্দে জমি নিয়ে সংঘর্ষে কৃষক নিহত, মামলা দায়ের, গ্রেপ্তার ২ দৌলতদিয়ায় বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ৪টি দোকানে জরিমানা গোয়ালন্দে হেরোইনসহ যুবক গ্রেপ্তার

কালুখালীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে কলেজ শিক্ষককে কুপিয়ে জখম

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, এপ্রিল ১৫, ২০২২
  • 55 Time View
শেয়ার করুনঃ

ষ্টাফ রিপোর্টার, রাজবাড়ীঃ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের মোহনপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে কলেজ শিক্ষককে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ। জখম হওয়া শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান মোহনপুর গ্রামের মৃত দিয়ানত আলী মন্ডলের ছেলে। তিনি ঢাকা জেলা-১ আসন দোহার উপজেলার বেগম আয়শা পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় এন্ড কলেজের ইংরেজী বিষয়ের প্রভাষক।

বৃহস্পতিবার তিনি বৈশাখের ছুটিতে বাড়িতে আসেন। শুক্রবার দুপুর পৌনে একটার দিকে মোহনপুর জামে মসজিদে জুম্মার নামাজ পড়তে বাড়ি থেকে রওনা হন। মসজিদের কাছাকাছি আতিকুর রহমানের বাড়ির কাছে আসলে আতিকুর রহমান সহ আরো কয়েকজন ধারালো অস্ত্র ও লাঠি নিয়ে আগে থেকেই ওত পেতে থাকে এবং কিছু বুঝে ওঠার আগেই শিক্ষক সিদ্দিকের ওপর হামলা করে। অতর্কিতভাবে কোপ দিলে তার বাম পায়ে ও পিঠে দা’য়ের কোপে কেটে গিয়ে গর্ত হয়ে যায়। পরে সে চিতকার করলে আতিকুর সহ সবাই দৌড়ে পালিয়ে যায়। তৎক্ষনাৎ সে কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন। চিকিৎসা নিয়ে কালূখালী থানায় উপস্থিত হয়ে বিকেলে আতিকুর রহমান সহ আরো চার জনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ দায়ের করেন। আতিকুর রহমান মোহনপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে। এলাকায় তাকে সবাই সুদখোর আতিক নামে চেনে।

আহত সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আতিকুর রহমান এলাকার একজন সুদের ব্যাবসায়ী। তিনি তার ভাইকে কিছুদিন আগে কিছু টাকা ধার হিসেবে দিয়েছিল। সে টাকার সুদ সমেত পরিষোধ করেছেন। কিন্তু আতিকুর তার সুদের টাকা আরো বকেয়া রয়েছে বলে দাবী করে আসছেন। কয়েকবার বসে এ নিয়ে মিমাংসাও করা হয়েছে। কিন্তু তারপরও তার সাথে কোন ঝামেলা বা বিবাদ না থাকলেও তার ওপর আঘাত করে। অহেতুক তাকে এভাবে কোপানো ও মারধর কেন করা হল। তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

কালূখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাজমুল হাসান জানান, সিদ্দিকুর রহমান নামে এক কলেজ শিক্ষক তার পায়ে কোপানো আঘাত নিয়ে থানায় আশে। প্রথমে অভিযোগ আকারে দিয়ে যায়। বিষয়টি মামলা আকারে নেওয়া প্রক্রিয়া গ্রহন করা হয়েছে এবং তৎক্ষনাৎ আসামী আতিকুর রহমান সহ অভিযোগ পত্রে থাকা নাম অনুসারে তাদের কয়েকজনকে ধরতে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে। আশা করছেন অভিযুক্তরা শিগরিরি ধরা পরবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102