May 18, 2022, 4:27 pm
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ তিন ফেরি বিকল, ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির চাপ গোয়ালন্দে হেরোইনসহ তরুণ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল রাজবাড়ীতে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রনে সচেতনতামূলক সভা রাজবাড়ীর পুলিশ পরিদর্শক অধীর চন্দ্র রায়ের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা রাজবাড়ীতে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও লোকসানে চাষিরা রাজবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ গোয়ালন্দে জমি নিয়ে সংঘর্ষে কৃষক নিহত, মামলা দায়ের, গ্রেপ্তার ২ দৌলতদিয়ায় বেশি দামে তেল বিক্রি করায় ৪টি দোকানে জরিমানা গোয়ালন্দে হেরোইনসহ যুবক গ্রেপ্তার

গোয়ালন্দে নববর্ষ উপলক্ষে হলো শত বছরের চৈত্র সংক্রান্তি মেলা

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, এপ্রিল ১৫, ২০২২
  • 53 Time View
শেয়ার করুনঃ

মঈন মৃধা, গোয়ালন্দঃ বর্ষবরণ উপলক্ষে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে শত বছর ধরে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে চৈত্র সংক্রান্তি মেলা। এছাড়া সেই সাথে অনুষ্ঠিত হচ্ছে প্রায় ৩২ বছর যাবৎ চরক পূজা। এই পূজার মূল আকর্ষণ হচ্ছে পিঠে বড়শী দিয়ে আটকিয়ে চরকিতে ঘোরা।

এই পূজা আর মেলা দেখতে সেই সাথে গ্রামীণ তৈজসপত্র ক্রয় করতে অনেক দূর দুরান্ত থেকে আসে হাজার হাজার মানুষ। গোয়ালন্দ উপজেলার ছোট ভাকলা ইউনিয়নের কাটাখালি প্রেমচান ফকিরের বাড়ীর পাশের মাঠে চড়ক পূজা ও গ্রামীণ মেলা অনুষ্টিত হয়।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরের পর থেকে সন্ধ্যার পর পর্যন্ত চলে এ মেলা। বিকালে মেলার মাঠে হিন্দু সম্প্রদায়ের হাজারো ভক্ত অনুসারীদের উপস্থিতিতে চরক পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। এ চড়ক পূজাকে কেন্দ্র করে সেখানে মেলা বসানো হয়। স্থানীয় ভাষায় এ মেলাকে বলা হয় ‘পিঠফোঁড়া মেলা’। এর আগে চড়ক পূজা করা হয়। পূজার পাশাপাশি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের কালী, শীতলা এবং বুড়ি দেবীর পূজা করা হয়। একইসঙ্গে এবার তিনজনের পিঠ ফুটো করে চড়কে ঘোরানো হয় তার পূজাও করা হয়।

সুজিত কুমার নামের মেলায় আগত আরেকজন বলেন, আমি এই মেলা ছোটবেলা থেকেই দেখে আসছি। মহামারি করোনার কারণে গত দুই বছর মেলা হয়নি। দুই বছর পর এবার মেলা হওয়াতে সহপরিবার নিয়ে এসেছি, ভগবানের কাছে প্রার্থনা করছি।

মেলা উদযাপন কমিটির সভাপতি বাদল ফকির জানান, চরক পুজায় যাদের বড়শী বিধিয়ে চরকীতে ঘোরানো হয় তারা এক সপ্তাহ যাবৎ উপবাস করে থাকেন। প্রতি বছর হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকেরা বাংলা সনের পয়লা বৈশাখে প্রায় ৩২ বছর ধরে এই চড়ক পূজা ও মেলার আয়োজন করে। তারই অংশ হিসেবে এই চড়ক মেলার আয়োজন করা হয়েছে। মেলা উপভোগ করতে বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার দর্শনার্থীদের ভিড় জমতে দেখা যায়। সেই সঙ্গে চড়ক মেলাকে কেন্দ্র করে মেলায় বাহারি রকমারি দোকান বসে।

তিনি বলেন, মেলাটি রাজবাড়ী জেলার মধ্যে সবচেয়ে পুরাতন। স্থানীয় প্রবীণ ব্যক্তিদের ভাষ্যমতে শত বছরের বেশি দিন ধরে এখানে মেলা বসে। তবে চড়ক পূজা ও পিঠে বরশি বিধিয়ে ঘোরানো হয় প্রায় ৩২ বছর ধরে। যে কারনে এই মেলায় সবচেয়ে বেশি লোকের সমাগম হয়। সকলে শান্তি প্রিয়ভাবে মেলায় এসে বাঙ্গালীর কৃষ্টি, সংস্কৃতি আনন্দ উপভোগ করে। সরকারি ‍পৃষ্ঠপোষকতা পেলে মেলা আরো অনেক জাকজমক হতে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102