May 21, 2022, 12:01 am
শিরোনামঃ
রাজবাড়ীতে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তর সরবরাহকারী চক্রের ১৩ সদস্য আটক গোয়ালন্দে পদ্মার ভাঙনঃ থেমে আছে ঘাট আধুনিকায়ন কাজ রাজবাড়ীতে টিকা সপ্তাহ উপলক্ষে প্রশিক্ষণ কর্মশালা কালুখালীতে ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রাংশ ক্রয়ে অনিয়মের অভিযোগ রাজবাড়ীতে দ্বিতীয় শ্রেনীর শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষন, ধর্ষক গ্রেপ্তার দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ তিন ফেরি বিকল, ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির চাপ গোয়ালন্দে হেরোইনসহ তরুণ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল রাজবাড়ীতে শব্দ দূষণ নিয়ন্ত্রনে সচেতনতামূলক সভা রাজবাড়ীর পুলিশ পরিদর্শক অধীর চন্দ্র রায়ের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা

গোয়ালন্দে মতবিনিময়ঃ মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে রাজবাড়ীর ইতিহাস রচনার সিদ্ধান্ত মুক্তিযোদ্ধাদের

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, মার্চ ২০, ২০২২
  • 144 Time View
শেয়ার করুনঃ

শামীম শেখ, গোয়ালন্দঃ মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে রাজবাড়ী জেলার ইতিহাস রচনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধারা। শনিবার বিকেলে গোয়ালন্দে জেলার বিভিন্ন উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অংশগ্রহনে এক মতবিনিময় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

শনিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে গোয়ালন্দ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন গোয়ালন্দ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুস সামাদ মোল্লা। সভায় বক্তারা নতুন প্রজন্মের জন্য রাজবাড়ী জেলার বিভিন্ন উপজেলায় মুক্তিযুদ্ধে ঘটে যাওয়া  ইতিহাস ও ঐতিহ্যময় স্থান সংরক্ষণে একটি বই লিপিবদ্ধ করে তা সংরক্ষণের উপর গুরুত্বারোপ করেন। সভা শেষে মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিযুদ্ধে গোয়ালন্দের প্রথম শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফকির মহিউদ্দিন আনছার যে স্থানে শহীদ হয়েছিলেন সেই যায়গাসহ গোয়ালন্দের প্রথম প্রতিরোধ যুদ্ধের স্থান বাহাদুরপুর শেখ বাড়ীতে অবস্থিত নবনির্মিত মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভ পরিদর্শন করেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মুক্তিযুদ্ধকালীন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন মিয়া, আব্দুস সালাম মোল্লা, আমিনুল ইসলাম শফি, গিয়াস উদ্দিন, সিরাজ আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা বাকাউল আহমেদ,  লেখক জাহাঙ্গীর হোসেন, ইমরান হোসেন, আব্দুল গফুর, ওমর আলী, মোজাম্মেল হোসেন, শাজাহান শেখ, মো. আব্দুল আজিজ শেখ, তৈয়বুর রহমান, নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

এ বিষয়ে রাজবাড়ী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, মুক্তিযুদ্ধকালীন কমান্ডার ফকীর আব্দুল জব্বার বলেন, আমাদের অনেক সহযোদ্ধাই ইতিমধ্যে মারা গেছেন। আমরাও একসময় থাকব না। তাই আমরা যারা এখনো জীবিত আছি তাদের জন্য আমাদের নিজ জেলার যুদ্ধকালীন ইতিহাস সঠিকভাবে লেখা এবং ঐতিহাসিক স্হানগুলো সঠিকভাবে চিহ্নিত করে তা সংরক্ষণের উদ্যোগ নেওয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। এর মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে বলে আমি মনে করি।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102