০৪:০৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পদত্যাগ করলেন মেয়র আতিকুল

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন আতিকুল ইসলাম। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেলে তার স্বাক্ষরিত পদত্যাগ পত্রটি ডিএনসিসি সচিবের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছেন। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন আতিকুল ইসলামের রাজনৈতিক সচিব সাইফুদ্দিন ইমন।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই আলোচনা ছিল ডিএসসিসির মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কে হচ্ছেন? সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রোববার (২৯ ডিসেম্বর) দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নিজেদের মেয়র প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ।

ডিএনসিসিতে সদ্য বিদায়ী মেয়র আতিকুল ইসলামের নাম ঘোষণা করা হয়। অন্যদিকে ডিএসসিসিতে মেয়র পদে শেখ ফজলে নূর তাপসের নাম ঘোষণা করা হয়। গতকালই জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করেছেন তাপস।

গত ২৩ ডিসেম্বর জারি করা বিশেষ পরিপত্রে বলা হয়েছে, সিটি কর্পোরেশন একটি সরকারি কর্তৃপক্ষ হওয়ায় এর মেয়র পদটিকে হাইকোর্ট লাভজনক পদ হিসেবে ঘোষণা করেন। কাজেই স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯ অনুযায়ী- মেয়র পদে অধিষ্ঠিত কোনো ব্যক্তি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। তবে ওই ব্যক্তি নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করতে চাইলে তাকে ওই পদ থেকে পদত্যাগ করতে হবে। কাউন্সিলর পদধারীরা লাভজনক পদে সার্বক্ষণিক অধিষ্ঠিত নন বলে তারা পদে থেকে প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে আইনগত কোনো বাধা নেই।

প্রসঙ্গত, ডিএনসিসির মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয়। পরে ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে আট লাখ ৪৯ হাজার ৩০২ ভোট পেয়ে আতিকুল ইসলাম মেয়র নির্বাচিত হন।

ট্যাগঃ
রিপোর্টারের সম্পর্কে জানুন

Rajbari Mail

জনপ্রিয় পোস্ট

গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল

পদত্যাগ করলেন মেয়র আতিকুল

পোস্ট হয়েছেঃ ১২:২৪:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন আতিকুল ইসলাম। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেলে তার স্বাক্ষরিত পদত্যাগ পত্রটি ডিএনসিসি সচিবের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছেন। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন আতিকুল ইসলামের রাজনৈতিক সচিব সাইফুদ্দিন ইমন।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই আলোচনা ছিল ডিএসসিসির মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কে হচ্ছেন? সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রোববার (২৯ ডিসেম্বর) দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নিজেদের মেয়র প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ।

ডিএনসিসিতে সদ্য বিদায়ী মেয়র আতিকুল ইসলামের নাম ঘোষণা করা হয়। অন্যদিকে ডিএসসিসিতে মেয়র পদে শেখ ফজলে নূর তাপসের নাম ঘোষণা করা হয়। গতকালই জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করেছেন তাপস।

গত ২৩ ডিসেম্বর জারি করা বিশেষ পরিপত্রে বলা হয়েছে, সিটি কর্পোরেশন একটি সরকারি কর্তৃপক্ষ হওয়ায় এর মেয়র পদটিকে হাইকোর্ট লাভজনক পদ হিসেবে ঘোষণা করেন। কাজেই স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯ অনুযায়ী- মেয়র পদে অধিষ্ঠিত কোনো ব্যক্তি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। তবে ওই ব্যক্তি নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করতে চাইলে তাকে ওই পদ থেকে পদত্যাগ করতে হবে। কাউন্সিলর পদধারীরা লাভজনক পদে সার্বক্ষণিক অধিষ্ঠিত নন বলে তারা পদে থেকে প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে আইনগত কোনো বাধা নেই।

প্রসঙ্গত, ডিএনসিসির মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয়। পরে ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে আট লাখ ৪৯ হাজার ৩০২ ভোট পেয়ে আতিকুল ইসলাম মেয়র নির্বাচিত হন।