January 20, 2022, 5:09 pm

পাংশায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আতঙ্কে এলাকাবাসী

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, জানুয়ারি ৮, ২০২২
  • 25 Time View
শেয়ার করুনঃ

সারাদেশে পঞ্চম ধাপের রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন শেষ হলেও দফায় দফায় চলছে হামলা-সংঘর্ষ। সেই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সকাল ও বিকেলে উপজেলার কশবা মাজাইল, সরিষা ও মাছপাড়া ইউনিয়নে কয়েক দফা হামলা-আক্রমন হয়েছে। ভাংচুর করা হয়েছে কয়েক ঘর বাড়িতে। বাধার দেওয়া হচ্ছে কৃষি কাজে। শুক্রবার বিকালে পাংশা মডেল থানায় পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক এলাকাবাসী সাথে কথা বলে জানা যায়, কসবামাজাইল ইউনিয়ন পরিষদের পরাজিত প্রার্থী রাকিবুল ইসলামের একটি গ্রুপের জাকিরুল ইসলাম, আজাদ, সুলতান মন্ডল, জজ মন্ডল, সুমন বিশ্বাস, মতিয়ার বিশ্বাস, আনছার বিশ্বাসসহ ২০/২৫ জন সদস্য কসবামাজাইল বাজারে গিয়ে মুকুলের চায়ের দোকানের সামনে দেশী অস্ত্র রামদা, হাতুড়ি, লাঠি নিয়ে শুক্রবার বিকেলে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহরিয়ার সুফল মাহমুদের গ্রুপের উপর হামলা করেন। ভাংচুর করেন ঘরবাড়ী, দোকান। ছিনিয়ে নেয় আসবাব পত্র।

এসময় কসবামাজাইল এলাকার মতিবুল ইসলাম, ওহিদুল সরদার, মুকুল মন্ডল, মনোয়ার, জিকু খান, মোসলেম মন্ডল, খায়রুজ্জামান ও আউয়াল নামের একাধিক ব্যক্তি আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য ককপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
অপরদিকে উপজেলার সরিষা ইউনিয়নের পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আহম্মদ হোসেন জানান, নৌকা প্রতিকের বিজয়ী প্রার্থীর কর্মীরা বেছে বেছে তাদের কর্মীদের ৮টি বাড়ী ভাংচুর করেছে। বাধার দেয়া হচ্ছে কৃষি কাজে। এতে অনেকে পেঁয়াজ রোপন করতে পারছেন না।

পাংশার মাছপাড়া ইউনিয়নের শুক্রবার সকালে বিজয়ী মোন্তাজ মেম্বার ও পরাজিত কাইয়ুমের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়। সে সময় উভয় পক্ষের অন্তত ৭জন আহত হয়। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান জানিয়েছেন, এ সকল একাধিক ঘটনায় উভয় পক্ষের পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Developed by POS Digital
themesba-lates1749691102