May 29, 2022, 9:20 am
শিরোনামঃ
দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথঃ যানবাহনের চাপ নেই, অপেক্ষায় থাকছে ফেরি গোয়ালন্দের পদ্মা নদীর দুটি বড় ইলিশ বিক্রি হলো ১০ হাজার টাকায় বাংলার নারী সমাজ আজ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে -সালমা ইসলাম এমপি ফরিদপুর জেলা পর্যায়ে ইংরেজী বক্তব্যে শ্রেষ্ঠ হাফেজ মাহফুজ বিভাগীয় পর্যায়ে অংশ নিচ্ছেন রাজবাড়ীতে যুবদলের বিক্ষোভ সমাবেশ সড়ক বিভাগের রাস্তার উভয় পাশের স্থাপনা ৭ জুনের মধ্যে সরিয়ে নিতে নির্দেশ দিন দুপুরে গোয়ালন্দে ব্যবসায়ীকে মারপিট করে টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ গোয়ালন্দে পুলিশের হাতে চার জুয়াড়ি গ্রেপ্তার ৮ বছরের শিশু কন্যা ধর্ষণের অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের সংবাদ সম্মেলনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ঘের ও ঘর ভাঙচুরের অভিযোগ

কর্ণফুলী টানেলের কাজে দ্রুত গতি: টার্গেট নির্ধারিত সময়ে শেষ করা

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৯
  • 128 Time View
শেয়ার করুনঃ

প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে চলছে চট্টগ্রামের অন্যতম মেগা প্রকল্প বঙ্গবন্ধু টানেলের (কর্ণফুলী টানেল) কাজের গতি। এরই মধ্যে প্রকল্পের মোট কাজের প্রায় ৫৫ শতাংশ অগ্রগতি হয়েছে। প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের দাবি, নির্ধারিত সময়ের আগে শেষ হবে টানেলের নির্মাণ কাজ। তাই নির্ধারিত সময়ের আগেই ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’ যুগে প্রবেশ করছে চট্টগ্রাম তথা বাংলাদেশ।

টানেলের প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী হারুনুর রশিদ চৌধুুরী বলেন, ‘টানেল নির্মাণের কাজ দ্রুত গতিতে চলছে। কাজের সার্বিক অগ্রগতি নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট। এ পর্যন্ত প্রকল্পের প্রায় ৫৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। আশা করছি, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না কমিউনিকেশন অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেড (সিসিসিসি) কাজ শেষ করতে পারবে।’ জানা যায়, চট্টগ্রামের অন্যতম মেগা প্রকল্প কর্ণফুলী টানেলের কাজ প্রত্যাশিত সময়ের চেয়ে দ্রুততায় চলছে। নদীর তলদেশে বিরামহীন চলছে দুই টিউব বসানোর কাজ। এরই মধ্যে নদীর তলদেশে ১২২০ মিটার খনন করা হয়েছে। বসানো হয়েছে ৬১০টি রিং। পূর্ব প্রান্তে ওয়ার্কিং শাফট এবং কার্ট অ্যান্ড কভার, রোটারি জেট গ্রাউটিং এবং ডায়াফ্রাম ওয়ালের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। কর্ণফুলী নদীর পশ্চিম ও পূর্ব প্রান্তে অ্যাপ্রোচ সড়ক ও ওভারব্রিজ তৈরির কাজও চলছে বিরামহীন। দ্রুততার সঙ্গে চলছে ওপেন কাট, অ্যাপ্রোচ রোড নির্মাণের কাজ। আনোয়ারা প্রান্তে স্থায়ী বৈদ্যুতিক লাইন নির্মাণের কাজসহ সাবস্টেশন নির্মাণের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। পতেঙ্গা অংশে জি-১ এবং জি-২ রোডের কাজও চলছে। সব মিলিয়ে কাজের অগ্রগতি ৫৫ শতাংশ বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। চট্টগ্রামের গুরুত্বপূর্ণ নদী চট্টগ্রাম শহর ও আনোয়ারা উপজেলাকে বিভক্ত করেছে। এ নদীর এক তীরে রয়েছে নগর ও চট্টগ্রাম বন্দর। অপর পাশে আনোয়ারা উপজেলায় রয়েছে ভারী শিল্প এলাকা। নদীর মরফলজিক্যাল বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী কর্ণফুলী নদীর তলদেশে পলি জমা একটি বড় সমস্যা এবং চট্টগ্রাম বন্দরের কার্যকারিতার জন্য বড় হুমকি। এসব সমস্যা মোকাবিলায় কর্ণফুলী নদীর ওপর আর কোনো সেতু নির্মাণ না করে এর তলদেশে টানেল নির্মাণ করা হচ্ছে। সরকার চট্টগ্রাম জেলার দুই অংশকে সংযুক্ত করার জন্য কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়। ৩ দশমিক ৪ কিলোমিটার টানেল নির্মাণ প্রকল্পটি ২০১৫ সালের নভেম্বরে অনুমোদন পায়। এটি নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৯ হাজার ৮৮০ কোটি টাকা। যার মধ্যে প্রকল্প ঋণ হিসেবে চাইনিজ এক্সিম ব্যাংক ৫ হাজার ৯১৩ কোটি টাকার অর্থায়ন করছে। বাকি টাকা বাংলাদেশ সরকার ব্যয় করবে।

Buy,Sale,Rent Property in Dhaka Bangladesh at ghorbareewala

Visit Ghorbaree Wala

Please Share This Post in Your Social Media

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Rajbarimail
Buy property, sale, rent at Ghorbaree Wala - ghorbareewala.com
themesba-lates1749691102